ঢাকা     রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

ঘুষের টাকা ফেরত চেয়ে সাব রেজিস্ট্রারকে উকিল নোটিশ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:২৫, ২ জুন ২০২৩   আপডেট: ২১:৪১, ২ জুন ২০২৩
ঘুষের টাকা ফেরত চেয়ে সাব রেজিস্ট্রারকে উকিল নোটিশ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর সাব রেজিস্ট্রারকে ঘুষের টাকা ফেরত দিতে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন আব্দুল বারী মিয়া নামের এক সেবাগ্রহীতা।

গত ১৩ মে অ্যাডভোকেট বেলায়েত হোসেন খান কাপাশ স্বাক্ষরিত একটি উকিল নোটিশ ভূঞাপুর সাব রেজিস্ট্রার অঞ্জনা রানী দেবনাথকে দেওয়া হয়। নোটিশে পরবর্তী সাত কর্ম দিবসের মধ্যে টাকা ফেরতের কথা উল্লেখ করা হয়।

উকিল নোটিশ সূত্রে জানা যায়, ভূঞাপুর পৌরসভার ঘাটান্দি এলাকার মৃত নছর আলীর ছেলে আব্দুল বারী মিয়া পাওয়ার অ্যাটর্নি দলিল রেজিস্ট্রি করার জন্য একটি দলিল দাখিল করেন সাব রেজিস্ট্রার অঞ্জনা রানী দেবনাথের কাছে। পরে সাব রেজিস্ট্রার জমির দলিল দেখে অন্য পক্ষ হতে অভিযোগ আছে মর্মে টাকা দাবি করেন। এ সময় সাব রেজিস্ট্রার অঞ্জনা দেবনাথ বারী মিয়ার কাছে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন। পরে ৭ লাখ টাকায় দলিল করার চুক্তি হওয়ার পর টাকা পরিশোধ করেন বারী মিয়া।

গত ৩ মে কমিশন দলিল করে দেওয়ার জন্য সাব রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মচারী জুয়েল বারী মিয়ার বাসায় গিয়ে দাতাদের টিপসই নেন। কিন্তু পরবর্তীতে তার দলিল সম্পাদন না হয়ে প্রতিপক্ষ দাতা ফেরদৌস হোসেন খান গং এবং গ্রহীতা খায়রুল ইসলাম তালকদার গংকে ১৪৩০ নম্বর রেজিস্ট্রি করেন এবং বারী মিয়ার ১৪৩০ নম্বর দলিল বাতিল করে ১৪৩১ নম্বর করেন। ফলে তিনি প্রতারিত হওয়ায় গত ১৬ মে ঘুষের টাকা ফেরত চেয়ে নোটিশ পাঠান।

সেবাগ্রহীতারা জানান, ভূঞাপুর সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের অফিস সহকারী জুয়েল ও সিরাজের মাধ্যমে দলিল সম্পাদনের ঘুষের টাকা লেনদেন করেন সাব রেজিস্ট্রার অঞ্জনা রানী দেবনাথ। দলিলের ওপর নির্ভর করে টাকা লেনদেনের পরিমাণ। কয়েক বছর ধরে সিরাজ সাব রেজিস্ট্রার অফিসের কাজ করার সুবাদে একটি সিন্ডিকেট তৈরি করেছেন।

বারী মিয়া বলেন, দলিল করার জন্য সাব রেজিস্ট্রারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী টাকা পরিশোধ করলেও তিনি আমার দলিল সম্পাদন করেননি। পরে ঘুষের টাকা ফেরত চেয়ে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছি। এখন পর্যন্ত কোনো টাকা ফেরত পাইনি।

অভিযোগের বিষয়ে ভূঞাপুর সাব রেজিস্ট্রার অঞ্জনা রানী দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত বক্তব্য দেওয়া নিষেধ। এই বিষয়ে আর কিছু বলতে চাই না।

জেলা রেজিস্ট্রার মো. মাহফুজুর রহমান খান বলেন, টাকা ফেরত চেয়ে উকিল নোটিশ দেওয়ার বিষয়টি জানা নেই।

কাওছার/কেআই

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়