ঢাকা     শুক্রবার   ০১ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

লালমনিরহাট শহরে সড়কে পার্কিং, যানজটে নাকাল পৌরবাসী

লালমনিরহাট সংবাদদাতা  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৫৫, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩  
লালমনিরহাট শহরে সড়কে পার্কিং, যানজটে নাকাল পৌরবাসী

লালমনিরহাট শহরের মোড়ে মোড়ে অনুমোদনহীন অটোরিকশা, রিকশার অবৈধ স্ট্যান্ড, সড়ক লাগোয়া ব্যবসায়ীদের ফুটপাত দখল এবং রাস্তা দখল করে নির্মাণসামগ্রী রাখায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে প্রতিটি সড়কে। এতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে সাধারণ পথচারী, পৌরবাসী। 

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছ, শহরের মিশনমোড়, বিডিআরগেট, কালীবাড়ি, টিএনটি মোড়, হাসপাতাল এলাকাহ বিভিন্ন মোড়ে অবৈধভাবে সড়ক দখল করে করা হয়েছে অটোরিকশা স্ট্যান্ড। যত্রতত্র অবৈধ গাড়ি পার্কিং, ফুটপাত জুড়ে রয়েছে দোকানপাটসহ নানা ধরনের ভ্রাম্যমাণ ব্যবসা। এতে করে পথচারীরা ফুটপাত ছেড়ে রাস্তায় নেমেছে। শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, অনেকে রাস্তার একপাশ দখল করে বাড়ি নির্মাণের সরঞ্জাম রেখেছেন। এতে প্রশস্ত কমে এসেছে সড়কের, সৃষ্টি হচ্ছে যানজট ও ভোগান্তির।

মিশনমোড় চত্বরের পাশে সড়কে অটো রেখে যাত্রী সংগ্রহে ব্যস্ত থাকা রহিম জানান, মিশনমোড়ের আশপাশে স্ট্যান্ড না থাকায় সড়কের পাশে অটো রেখেছেন। ভিড় হলেও অনেকে সড়কের উপর রাখে। ট্রাফিক পুলিশ মাঝে-মধ্যে এসে সরিয়ে দিয়ে যায় কিন্তু জায়গা না থাকায় কিছুক্ষণের মধ্যে পুরনো চিত্রে ফিরে আসে সড়কে। 

ক্যান্টিনমোড়ে সড়কের উপর অটো রাখা অটো চালক সাহেব আলী বলেন, ‘জায়গা নেই তাই রেখেছি, তবে যাত্রী পেলেই চলে যাব।’ 

সড়ক দখল করে যানবাহন রাখার বিষয়ে কেউ নজরদারি করে কি-না জানতে চাইলে তিনি জানান, তেমন কেউ কিছু বলে না। তবে এখানে কেউ যাত্রী সংগ্রহে সহযোগিতা করলে ১০-১৫ টাকা দিতে হয়। 

মিশনমোড় চত্বরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যবসায়ী জানান, ফুটপাত দখল করে তিনি একা নন, অনেকে ব্যবসা করছেন। ফুটপাতের উপরে থাকা ফুলের দোকানগুলো ভিতর দিয়ে পথচারীরা চলাচল করে।

পথচারী শফিকুল ইসলাম জানান, বিডিআর গেট আর মিশনমোড় চত্বরে ফুটপাত দখলের হিড়িক পড়েছে। হোটেল, ফুল ব্যবসায়ীসহ অধিকাংশ দোকানদাররা ফুটপাত দখল করে রেখেছে। ফলে পথচারীরা রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। অনেক সময় দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়। এসবের জন্য সড়ক, ফুটপাত ও ট্রাফিক কর্তৃপক্ষের অবহেলা দায়ী বলে জানান তিনি। 

লালমনিরহাট ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আশীষ কুমার পাল বলেন, অবৈধ পার্কিং ও সড়কের উপর অবৈধভাবে অটোরিকশা স্ট্যান্ড সরাতে ট্রাফিক পুলিশ নিয়মিত কাজ কাজ করছে। প্রতি রোববার ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করা দোকান সরাতে ট্রাফিক পুলিশ যৌথভাবে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে আসছে। শহরের মিশনমোড় থেকে বিডিআর গেট সড়কের ফুটপাত দখলমুক্ত করা হয়েছে। যানজট নিরসন ও অবৈধ পার্কিং ঠেকাতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

লালমনিরহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম স্বপন বলেন, পৌরসভার পক্ষ থেকে সড়ক দখলমুক্ত করতে কাজ করা হচ্ছে। আর যানজট নিরসন ও ফুটপাত দখলমুক্ত রাখতে পুলিশ বিভাগকে জানানো হয়েছে। তারা কাজ করছে। ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করায় পথচারীরা সড়ক দিয়ে চলাচল করছে, এতে দুর্ঘটনা ঘটছে। জনদুর্ভোগ কমাতে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।
 

জামাল/বকুল 

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়