ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

কারাভোগ শেষে ভারতীয় নাগরিক হস্তান্তর

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ২৮ মার্চ ২০২৪  
কারাভোগ শেষে ভারতীয় নাগরিক হস্তান্তর

ভারতীয় নাগরিক হস্তান্তর।

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ভারতীয় নাগরিক দীপক কুমার ঠাকুরকে (৩৫) পাঁচ বছর কারাভোগ শেষে নিজ দেশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) বেলা সোয়া ১২টায় চুয়াডাঙ্গার দর্শনা এবং ভারতের গেদে বন্দরের শূন্য রেখায় দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ওই নাগরিককে হস্তান্তর করা হয়।

দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ইনচার্জ এসআই আতিকুর রহমান বলেন, ভারতের বিহার রাজ্যের সমস্তিপুর জেলার ওয়ারিশনগর থানার মনিহারপুর গ্রামের শ্রীরাম নরেশ ঠাকুরের ছেলে দীপক কুমার ঠাকুর অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে এদেশে প্রবেশ করে।
অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে তার বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ৯ সেপ্টেম্বর পিরোজপুর থানায় একটি মামলা হওয়ার পর তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সে সময় পিরোজপুর আদালতের বিজ্ঞ বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশে দেন। ২০২৩ সালের ১৮ অক্টোবর পিরোজপুর জেলা কারাগার থেকে তাকে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। একই বছরের ১৯ অক্টোবর দর্শনা বন্দরের চেকপোস্টে তাকে হস্তান্তরের জন্য নেওয়া হয়। কিন্তু দীপকের পরিবারের কেউ উপস্থিত না থাকার কারণে তাকে হস্তান্তর করা সম্ভব হয় না।

৪ বছর ৬ মাস ১৯ দিন কারাভোগ শেষে। বৃহস্পতিবার জয়নগর-গেদে সীমান্তের শূন্য রেখায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাকে তার বাবা শ্রীরাম নরেশ ঠাকুর ও তার বোন জামাই গৌরব কুমারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ভারতীয় বিএসএফ’র কোম্পানি কমান্ডার এসি ভিওসি এইচ মাখেন এবং বিএসএফ’র কমান্ডেন্ট নাগা রঞ্জন, ডিআইবি সাধন কুমার মন্ডল ও কৌশিক বিশ্বাস, কাস্টমস সুপার রামওতার পি যাদব, কৃষ্ণগঞ্জ থানার এসআই তন্ময় দাস, গেদে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা জিসি দে ও রেডক্রসের প্রতিনিধি চিত্ত রঞ্জন দাস।

এদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন দর্শনা আন্তর্জাতিক চেকপোস্টের ইনচার্জ সুবেদার এনামুল কবির, কাস্টমস সুপার জাহিদ হাসান, দর্শনা ইমিগ্রেশন ইনচার্জ এসআই আতিকুর রহমান, দর্শনা থানার এসআই ফাহিম হাসান ও জেলা কারাগারের কারারক্ষী মনিরুজ্জামান।

খাইরুল/ফয়সাল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ