ঢাকা     শুক্রবার   ১৪ জুন ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

ট্রাক বহর নিয়ে ভাইয়ের নির্বাচনি প্রচারণায় পাবনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

পাবনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৪, ১৯ মে ২০২৪   আপডেট: ২১:০৫, ১৯ মে ২০২৪
ট্রাক বহর নিয়ে ভাইয়ের নির্বাচনি প্রচারণায় পাবনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

ভাইয়ের নির্বাচনি প্রচারণায় আব্দুর রহিম পাকন (গাড়িতে বসা)। ছবি সংগৃহীত

ট্রাকের বহর নিয়ে মিছিল করে ভাইয়ের পক্ষে নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর অভিযোগ উঠেছে পাবনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিম পাকনের বিরুদ্ধে। রোববার (১৯ মে) বিকেলে ছোট ভাই ভাঙ্গুড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মেছবাহুর রহমান রোজকে সঙ্গে নিয়ে উপজেলা সদরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন তিনি।

মেছবাহুর রহমান রোজ উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ‘ঘোড়া’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর আগে, মেছবাহুর রহমানের বিরুদ্ধে জীবন্ত ঘোড়া নিয়ে প্রচারণা চালানোর অভিযোগ ওঠে।

এদিকে, ট্রাক বহর নিয়ে মিছিল করার ধারণ করা ভিডিও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়ে মৌখিক অভিযোগ করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী ‘মোটরসাইকেল’ প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম হাসনাইন রাসেল।

জানা গেছে, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে ভাঙ্গুড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য বিদায়ী মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল (মোটরসাইকেল), জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বাকিবিল্লাহ (আনারস) ও জেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি মেছবাহুর রহমান রোজ (ঘোড়া) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

গত ২ মে প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে প্রচারণা শুরু করেন প্রার্থীরা। বাকিবিল্লাহ অন্য প্রার্থীর প্রভাবে কর্মী সংকটের অভিযোগ তুলে প্রচারণা বন্ধ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। এতে বাকিবিল্লাহর কর্মী সমর্থকরা মেছবাহুর রহমান রোজকে সমর্থন দেন। এরপর থেকেই বাকিবিল্লাহ ও মেছবাহুর রহমানের কর্মী সমর্থকরা একাট্টা হয়ে গোলাম হাসনাইন রাসেলের বিপক্ষে ব্যাপক প্রচারণা শুরু করেন।

অভিযোগের বিষয়ে কথা বলতে যোগাযোগ করা হলে মেছবাহুর রহমান রোজকে ফোন করলেও তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

অভিযোগের বিষয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম পাকন বলেন, ‘আচরণবিধিতে নিষেধ থাকলেও মিছিল তো করতেই হয়। হেঁটে তো আর মিছিল করা যায় না। তাই ট্রাক নিয়ে মিছিল দিচ্ছি। মন্ত্রী-এমপি ছাড়া অন্য সবাই নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে পারবেন। তাই আমিও চালাচ্ছি।’

এ বিষয়ে ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা নাজমুন্নাহার বলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ট্রাকের বহরের মিছিলের বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। এটা সুস্পষ্ট আচরণবিধি লঙ্ঘন। এ বিষয়ে অনুসন্ধান করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পাবনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শরীফ আহমেদ বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলা হবে।’

শাহীন/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়