ঢাকা     শুক্রবার   ১৪ জুন ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

নড়াইলে ভুল অপারেশনে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

নড়াইল প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৪৩, ২৮ মে ২০২৪  
নড়াইলে ভুল অপারেশনে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

নড়াইলে ভুল অপারেশনে মিতা বেগম (৩৫) নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

মিতা বেগম নড়াইল পৌরসভার রঘুনাথপুর এলাকার জাকির হোসেনের স্ত্রী। সোমবার (২৭ মে) রাতে মিতা বেগমের মরদেহ স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
 
ভূক্তভোগীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার (২৪ মে) বিকালে গৃহবধূ মিতা বেগমের প্রসব বেদনা উঠলে তাকে শহরের মডার্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুব্রত কুমার দে মিতার সিজার অপারেশন করেন।

রাতেই ওই চিকিৎসক রোগীর পরিবারকে বলেন, রোগীর ব্লাড প্রেসার কমে যাচ্ছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা অথবা যশোরে নিয়ে যেতে হবে। চিকিৎসকের কথা মতো রোগীকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থার আরও অবনতি হয়। পরে তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হলে সোমবার (২৭ মে) ভোরে তার মৃত্যু হয়।

মিতা বেগমের ভাসুর ইমরুল হাসান বলেন, অপারেশনের পর রোগীকে ৩ ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয়। যখন যশোর নেওয়া হয় তখনও তার শরীর রক্ত শূন্যতা ছিল। যশোর মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ভুল অপারেশনের জন্য মিতার মৃত্যু হয়েছে । সিজার অপারেশনের সময় চিকিৎসক রোগীর মূত্র থলি কেটে ফেলেন। পরে সঠিক চিকিৎসা না দিয়ে একটি নলের সঙ্গে রক্তনালী সাদা স্কচটেপ দিয়ে জোড়াতালি দিয়ে বেঁধে দেন। পরে ঠিক মতো রক্ত চলাচল করতে না পারায় রোগীর রক্ত শূন্যতা দেখা দেয় এবং ব্লাড প্রেসার কমে যায়। ফলে রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে এবিষয় অভিযুক্ত নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুব্রত কুমার দে বলেন, অপারেশন ভুল ছিল না। মূত্রথলি বা অন্য কোনো নালি কাটা পড়েনি। তার ব্লাড প্রেসার কম ছিল। এজন্য তাকে যশোরে রেফার্ড করা হয়েছিল। তার মৃত্যুর কারণ কী- এ প্রশ্ন করলে তিনি সদুত্তর দিতে পারেননি।

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের কোনো অভিযোগ আমরা পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

শরিফুল/টিপু

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়