ঢাকা     রোববার   ১৪ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে প্রেমিকের আত্মহত্যার চেষ্টা

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৪, ১৬ জুন ২০২৪  
থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে প্রেমিকের আত্মহত্যার চেষ্টা

বগুড়ার শিবগঞ্জ থানায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন মাহবুব হোসেন (২৮) নামে এক তরুণ। 

শনিবার বেলা ১১টার দিকে থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটায় ‘৯৯৯’ এ ফোন পেয়ে থানা পুলিশ মাহবুব হোসেনকে তার প্রেমিকার বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মাহবুব শিবগঞ্জ উপজেলার নাটমরিচাই গ্রামের আবু সালেহর ছেলে। তিনি পেশায় দিনমজুর। বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তাকে পরিবারের জিম্মায় দিয়েছে পুলিশ। 

পুলিশ জানায়, মাহবুবের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গ্রামের এক মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। সম্প্রতি সে জানতে পারে মেয়েটির বিয়ে ঠিক হয়েছে। এরপর গত শুক্রবার সে ওই মেয়ের বাড়িতে গিয়ে মেয়ের পরিবারকে প্রেমের কথা জানিয়ে বিয়ে করতে চায়। এরপর মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে মাহবুবের অভিভাবকদের ফোন দিলে তারা বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে জানায়- আপনারা যা করার করুন। 

এমন অবস্থায় মেয়ের পরিবার থেকে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে ঘটনা জানালে তারা ঘটনাস্থলে যায় এবং ছেলের অভিভাবকের সাথে কথা বলে ছেলেকে তাদের জিম্মায় নিয়ে যেতে বলে। তখন তারা পুলিশকে জানায়, আমরা রাতে যেতে পারব না, প্রয়োজনে কাল সকালে যাব। পরে মেয়ের বাবার অনুরোধে ছেলেটিকে থানায় নিয়ে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়।

এ দিকে মাহবুবের বাবা আবুল হোসেন জানান, তার ছেলের সঙ্গে কী ঘটেছে তিনি  জানেন না। তবে রাতে পুলিশ যে তাদের যেতে বলেছিল এ কথা তিনি স্বীকার করেছেন। কিন্তু টাকা না থাকায় ছেলেকে তিনি নিতে যেতে পারেননি বলে জানান। 

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, যেহেতু মাহবুব আসামি নয়, তার বিরুদ্ধে কোনো লিখিত অভিযোগও নেই, তাই তাকে মেয়ের বাড়ি থেকে থানায় নিয়ে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়। সকালে তাকে তার অভিভাবকদের জিম্মায় দেয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে সে এই ঘটনা ঘটায়। ডিউটি অফিসার তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখন সে বাড়িতে রয়েছে। 


 

এনাম//

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়