RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১২ ১৪২৭ ||  ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ইশরাকের প্রচারে জনস্রোত দেখে অবাক!

আরিফ সাওন || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২০, ২১ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
ইশরাকের প্রচারে জনস্রোত দেখে অবাক!

‘বিশাল মিছিল দেখলাম, লোক আর লোক।’ হাত দিয়ে ইশারা করে দেখিয়ে বললেন, ‘ওদিকে গেছে। ওদিকে দেখে আসলাম ফুলের ডালা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। সবার হাতে ফুল আর ফুল।’

ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় দোকানে চা খেতে খেতে চায়ের দোকানিকে এসব কথা বলছিলেন এক ব্যক্তি। ইশরাকের প্রচারে জনস্রোত দেখে অবাক তিনি।

শুধু তিনি নন, জনস্রোতে অবাক অনেকেই। ওই ব্যক্তি স্টাফ কোয়ার্টার থেকে বাওনি বাজার, ডেমরা বাজার হয়ে ডেমরা ব্রিজের দিক থেকে এসেছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার হোসেন মার্কেটের সামনে দিয়ে পথসভা করে সেদিকেই গেছেন ইশরাক।

তার কথা শেষ হতেই চায়ের দোকানি বলেন, ‘সে তো খোকা ভাইয়ের পোলা। লোক তো হইবই। খোকা ভাই যদি বেঁচে থাকতেন, তাইলে দেখতেন লোক কারে কয়! মিছেলে খালি মাথা আর মাথা। আমগো এলাকা থেকে যারা আইছে দেখলেন না, তারা নিজেদের পকেটের টাকা খরচ করেই কাজ করে যাচ্ছে।’

সেসময় ওই ব্যক্তি আবার বলেন, ‘এই সময় সাহস করে এত মানুষ বিএনপি'র মিছিলে আইছে চিন্তাই করা যায় না।’

চায়ের দোকানদার বলেন, ‘খোকা ভাইয়ের জনপ্রিয়তা আছিল, তার পোলার জনপ্রিয়তা তো থাকবই। এখন মানুষ ভোট দিতে পারলেই হয়। তাইলে ইশরাকের জয় কেউ ঠেকাইতে পারব না।’

পাশে থাকা আরেক ব্যক্তি তখন বলেন, ‘শুধু ডেমরা এলাকায় না সে যেখানেই যাচ্ছে, সেখানেই জনস্রোতে পরিণত হচ্ছে‌।’

ইশরাক হোসেন স্টাফ কোয়ার্টার থেকে বাওনি বাজার, ডেমরা বাজার হয়ে ডেমরা ব্রিজের দিকে গণসংযোগ নিয়ে গেলে একটু পর পর রাস্তার দু'পাশে থাকা নারী পুরুষ তাকে ফুল ছিটিয়ে বরণ করে নেন। এসময় শ্লোগানে শ্লোগানে চারদিক মুখরিত হয়ে ওঠে। ইশরাক হাত নেড়ে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান। সবার কাছে দোয়া চান।

ডেমরার মালা মার্কেট এলাকায় গণসংযোগকালে এক পথ সভায় ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বলেন, ‘আপনারা কেন্দ্রে গিয়ে নিজের ভোট নিজে দেবেন। আজকে ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার তৈরি হয়েছে এই জোয়ারে সকল অপচেষ্টা ভেসে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে শরিক হয়েছেন, এক তারিখে আমরা সেই বিজয় ছিনিয়ে আনব। দেশনেত্রীকে মুক্ত করার যে আন্দোলনে আমরা শরীফ হয়েছি, আন্দোলনকে চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ।

‘আমার কোনো রাষ্ট্রীয় শক্তি নাই, পুলিশি শক্তি নাই, আমার শক্তি হচ্ছে জনগণ। আমি আপনাদেরকে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাব। প্রয়োজনে জীবন দিব। বারবার বলে আসছি আমি এটা প্রমাণ করব যে, আমি যেটা বলি সেটাই করি। যদি মরতে হয় মরবো, রক্ত ঝরাতে হলে রক্ত ঝরাব।

‘আমার বাবা যাত্রাবাড়ী এলাকায় যুদ্ধের সময় গুলি খেয়েছিলেন। জনগণের অধিকার আদায়ে তিনি রক্ত ঝরিয়েছিলেন আর আমি ইশরাক সেই বাবার সন্তান, আমাকে কেউ আটকাতে পারবে না। আল্লাহ আমাকে সৃষ্টি করেছেন, আমি আল্লাহকে ছাড়া কোনো মানুষকে ভয় পাই না।”

আজ মঙ্গলবার পর্যায়ক্রমে ডেমরার বাওয়ানী জুটমিল, ডেমরা বাজার, মিরপাড়া, আমুলিয়া স্টাফ কোয়ার্টার রোড, হাজী নগর ব্রিজ, মোয়াজ্জেম আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, সারুলিয়া বাজার, মা-মেমোরিয়াল স্কুল, সফুরুদ্দিন মার্কেট, আমতলা, তালেবালী মসজিদ, জয়নালের স্কুল, অক্সফোর্ড স্কুল হয়ে রসুলনগর, ৬৬ নং ওয়ার্ডে অবরিতা কমিউনিটি সেন্টার, ডগাইর বাজার, বাঁশেরপুল হয়ে ৬৪ নং ওয়ার্ডের ডেমরা মেইন রোডে গিয়ে গণসংযোগ ও প্রচারণার সমাপ্তি হবে।


ঢাকা/সাওন/সনি

রাইজিংবিডি.কম

আরো পড়ুন  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়