ঢাকা     শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৭ ১৪২৯ ||  ০১ জিলহজ ১৪৪৩

নিদারুণ মানসিক কষ্টে আছি: হানিফ সংকেত

জ্যেষ্ঠ বিনোদন প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৭, ২৫ মে ২০২২   আপডেট: ১৫:৪৩, ২৫ মে ২০২২
নিদারুণ মানসিক কষ্টে আছি: হানিফ সংকেত

নন্দিত উপস্থাপক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব হানিফ সংকেতের মৃত্যুর গুজব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় তিনি বিস্মিত, বিব্রত এবং ব্যথিত। আজ সকালে হানিফ সংকেতের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়লে তার শুভানুধ্যায়ী, ভক্তকুল উদ্বিগ্ন হন। সকাল থেকে অসংখ্য ফোন রিসিভ করতে হয় তাকে।   

এরপর হানিফ সংকেত এ প্রসঙ্গে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। তিনি লেখেন, ‘আমার ভাবতে কষ্ট হচ্ছে আমাকে স্ট্যাটাস দিয়ে প্রমাণ দিতে হলো- আমি বেঁচে আছি। আমার মৃত্যু নিয়ে এ ধরনের স্ট্যাটাস দিতে হবে কখনও ভাবিনি।’

তিনি আরো লিখেছেন: ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী এক শ্রেণির বিকৃত মানসিকতার মানুষ তাদের ভিউ ব্যবসা ও ফলোয়ার বাড়াবার প্রত্যাশায় মানুষের মৃত্যু নিয়ে মিথ্যে ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে অসামাজিক কাজ করছে। ছড়িয়েছে আমার মৃত্যু সংবাদ। একজন সুস্থ মানুষকে মেরে ফেলার পেছনে এদের কি ধরনের মানসিকতা কাজ করে আমার বোধগম্য নয়। তারা কী একবারও চিন্তা করে না আমাদেরও পরিবার আছে, আত্মীয়-স্বজন আছে, শুভাকাঙ্ক্ষী আছে? এ ধরণের সংবাদে তাদের মানসিক অবস্থা কি হতে পারে?’

‘আপনাদের সবার দোয়া ও ভালোবাসায় আমি সুস্থ আছি’ উল্লেখ করে হানিফ সংকেত প্রশ্ন তুলেছেন, ‘গত দু’দিন ধরে আমি ও আমার পরিবার এই মৃত্যু গুজবের কারণে নিদারুণ মানসিক কষ্টে আছি। শত শত মানুষ যোগাযোগ করেছেন, এখনও করছেন। সুস্থতা কামনা করছেন।কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে শুধুমাত্র ভিউ, লাইক, শেয়ার পাবার জন্য একজন মানুষকে এরা মেরে ফেলবে? এ কি ধরনের মানসিকতা? নাকি এদের অন্য কোনো উদ্দেশ্য আছে?’

এর আগেও বেশ কয়েকজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বের মৃত্যুর আগেই গুজব ছড়িয়েছে একটি মহল- স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘সময় এসেছে এদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার। যেসব মাধ্যম এবং পেজ থেকে এ ধরনের সংবাদ আপলোড হচ্ছে, শেয়ার হচ্ছে, তাদের আপনারা বুঝিয়ে দিন, না জেনে না শুনে নিশ্চিত না হয়ে কোনো কিছু শেয়ার করা শুধু অন্যায় নয়, অপরাধও।’

যারা এ ধরনের গুজব ছড়িয়েছে তাদের প্রতি অন্তর থেকে ঘৃণা প্রকাশ করেছেন বরেণ্য এই টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব। তিনি আইনের সহায়তা নিয়েছেন। ‘সাইবার ক্রাইম কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা শীঘ্রই ব্যবস্থা নেবেন বলে আমাকে আশ্বস্ত করেছেন।’ স্ট্যটাসে উল্লেখ করেছেন তিনি। একইসঙ্গে গুজবে কখনও কান না-দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ‘ইত্যাদি’খ্যাত এই নির্মাতা।  

রাহাত/তারা

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়