ঢাকা, বুধবার, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ০১ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

পাঠকের ভালোবাসা কুড়াচ্ছে ‘গুল্টু’

সাহিত্য ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৬ ১০:৫৫:০৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৬ ১০:৫৫:০৯ পিএম

টুনি নামের ছোট্ট এক মেয়ে আলাদিনের চেরাগ ঘষতেই বেরিয়ে আসে দৈত্য। ওর নাম গুল্টু। দৈত্যটি আবার ভীষণ ভয় পায় টুনির স্কুল ব্যাগ বাগুকে। গুল্টু নামের দৈত্যটি সামান্য স্কুল ব্যাগকে ভয় পায় কেন? এই প্রশ্নের উত্তর জানা যাবে মাহফুজ রহমানের ‘গুল্টু’ পড়লে। এটি একটি ছড়ার বই।

ছড়ার বইটি প্রকাশিত হয়েছে এবারের একুশে বইমেলায়। প্রকাশক ময়ূরপঙ্খি। বইটিতে ২৪ পৃষ্ঠায় আছে ১৭টি ছড়া। বইটির প্রচ্ছদ এবং অলংকরণ করেছেন লেখক নিজেই। ছড়া ও ছবিতে ঝলমলে ‘গুল্টু’ এরই মধ্যে কুড়িয়েছে অকুণ্ঠ প্রশংসা।

খ্যাতিমান ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটন বলেন, ‘বইটি এক কথায় ঈর্ষণীয়।’ প্রকাশনা সংস্থা ময়ূরপঙ্খি জানিয়েছে, প্রশংসার পাশাপাশি বইটির প্রতি পাঠকের আগ্রহও রয়েছে। ছড়াকার মাহফুজ রহমান বলেন, ‘ছেলেবেলা থেকে ছড়া লিখছি। সে হিসেবে ২০ বছরের বেশি সময় ধরে লিখছি। ছবি আঁকছি তারও আগে থেকে। ‘গুল্টু’ আমার প্রথম ছড়ার বই। এতদিনের প্রস্তুতি ও পরিশ্রমের ফসল ‘গুল্টু’ সবার ভালোবাসা পাচ্ছে, যা আমার জন্য অত্যন্ত আনন্দের।’

কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেছেন, ‘নতুন প্রজন্মের মধ্যে নিশ্চয়ই অনেক ভালো ছড়াকার আছেন। আমি একজনকে খুঁজে পেয়েছি। তার নাম মাহফুজ রহমান।’ একই মাধ্যমে, অর্থাৎ ফেসবুকে জনপ্রিয় ছড়াকার রোমেন রায়হান লিখেছেন, ‘শুধু সাধারণ পাঠক নয়, যারা এই সময়ে ছড়া লিখতে চায় তাদেরও এই বই পড়া উচিত- জানার জন্য ছড়া কেমন হবে।’

‘গুল্টু’র ছড়ার বিষয়গুলো অনুপম। ছন্দ ও অন্ত্যমিল সম্পর্কে আরেক প্রখ্যাত ছড়াকার ও শিশুসাহিত্যিক আমীরুল ইসলাম বলেন, ‘গুল্টু’র প্রতিটি ছড়ার ছন্দ ও অন্ত্যমিল নিখুঁত, বিষয়গুলো অভিনব।’

আর বইটির প্রচ্ছদ ও অলঙ্করণ সম্পর্কে শিল্পী মাসুক হেলালের মন্তব্য, ‘আঁকাগুলো অসাধারণ! যত্নের ছাপ স্পষ্ট।’

কার্টুনিস্ট মেহেদী হক বলেছেন, ‘অসম্ভব সুন্দর কাজ! ফেসবুকের যুগে এরকম মন দিয়ে করা কাজ আজকাল দেখি কম।’

রঙিন ‘গুল্টু’র দাম ২৫০ টাকা।


ঢাকা/তারা