ঢাকা     বুধবার   ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৪ ১৪৩১

অভিবাসীদের তীব্র ঠান্ডায় প্রায় নগ্ন করে দাঁড় করিয়ে রাখা হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৩, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
অভিবাসীদের তীব্র ঠান্ডায় প্রায় নগ্ন করে দাঁড় করিয়ে রাখা হচ্ছে

হিমাঙ্কের তাপমাত্রায় অভিবাসীদের প্রায় নগ্ন করে দাঁড় করিয়ে রাখার ঘটনা ঘটেছে সার্বিয়া। পরে এসব অভিবাসীকে সার্বিয়া থেকে উত্তর মেসিডোনিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার ভিডিও ইউরোপীয় সীমান্তে অভিবাসীদের সাথে ক্রমবর্ধমান দুর্ব্যবহারের প্রমাণ বলে বৃহস্পতিবার দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।

উত্তর মেসিডোনিয়ার বেসরকারি সংস্থা লেজিস গার্ডিয়ানের কাছে এ সংক্রান্ত দুটি ভিডিও পাঠিয়েছে। তাতে সার্বিয়ান-উত্তর মেসিডোনিয়ান সীমান্তের কাছে খোলা সড়কে অর্ধ-উলঙ্গ পুরুষদের একটি সারিতে দাঁড় করিয়ে রাখানোর দৃশ্য দেখা গেছে।

লেজিস জানিয়েছে, ভিডিওগুলো সার্বিয়া সীমান্তের নিকটবর্তী লোজানে গ্রামের কাছে একজন স্থানীয় ব্যক্তি ধারণ করেছিলেন। ১০ ফেব্রুয়ারি তাদের কাছে ভিডিও হস্তান্তর করেছিলেন ওই ব্যক্তি। ২৪ ঘণ্টার সময়ের মধ্যে দুটি নিপীড়নমূলক এবং‘অপমানজনক’ পুশব্যাকের ঘটনা ঘটেছে। অর্ধশতাধিক মানুষকে উত্তরে পুশব্যাকের আগে সার্বিয়া কর্তৃপক্ষ তাদের নগ্ন বা অন্তর্বাস খুলতে বাধ্য করেছিল। লেজিসের স্থানীয় কর্মীরা পরে সেই পুরুষদের সাথে কথা বলতে সক্ষম হয়। তারা নিজেদের সিরিয়ার নাগরিক বলে পরিচয় দিয়েছে।

লেজিসের সভাপতি জেসমিন রেডজেপি বলেছেন, ‘বিরক্তিকর এবং অবমাননাকর’ পুশব্যাকের ঘটনাগুলো ইইউ-সার্বিয়ান সীমান্ত সহযোগিতা শীর্ষ সম্মেলনের পরে ঘটলো। ওই শীর্ষ সম্মেলনের লক্ষ্য ছিল মানবপাচার অভিযানের বিরুদ্ধে সার্বিয়ার সীমান্তকে শক্তিশালী করা।

রেডজেপি জানান, চলতি বছরের শুরু থেকে তাদের কর্মীরা সার্বিয়া থেকে উত্তর মেসেডোনিয়ায় ক্রমবর্ধমান পুশব্যাকের ঘটনা দেখেছেন। ‘আমরা এখন বলতে পারি এটি নিয়মিত ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে’-বলেন তিনি।

ঢাকা/শাহেদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়