ঢাকা     শনিবার   ২২ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৮ ১৪৩১

মোদির হোটেল বিল বকেয়া ৮০ লাখ রুপি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৩, ২৫ মে ২০২৪  
মোদির হোটেল বিল বকেয়া ৮০ লাখ রুপি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হোটেলের বিল বকেয়া রয়েছে! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনেছে মহিশুরের রেডিসন ব্লু প্লাজা হোটেল কর্তৃপক্ষ।

হোটেলটির পক্ষে জানানো হয়, গত বছরের ৯ থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত তাদের হোটেলে ছিলেন মোদি। প্রধানমন্ত্রীর ৮০ লাখ রুপির বেশি বিল বাকি রয়েছে। আগামী ১ জুনের মধ্যে এই বকেয়া না মেটালে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রজেক্ট টাইগার ইভেন্টের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মহিশুর গিয়েছিলেন। এই অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিল ন্যাশনাল টাইগার কনজারভেশন অথরিটি এবং পরিবেশ মন্ত্রণালয়। খুব কম সময়ের নোটিসেই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। গোটা অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য কর্নাটকের বনদপ্তরকে নির্দেশ দেয় দুই সংস্থা। আশ্বাস দেওয়া হয়, অনুষ্ঠানের যাবতীয় খরচ বহন করবে কেন্দ্র।

প্রাথমিকভাবে তিন কোটি রুপি খরচ হবে বলে মনে করেছিলেন আয়োজকরা। যেহেতু খুব কম নোটিসে অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়, তাই অনুষ্ঠানের বাজেট বেড়ে দাঁড়ায় ৬ দশমিক ৩৩ কোটিতে। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরে কর্নাটকের বনদপ্তরের কাছে তিন কোটি রুপি পাঠিয়ে দেয় কেন্দ্র। কিন্তু বাকি তিন কোটি ৩৩ লাখ রুপি এখনো বকেয়া রয়েছে। তার মধ্যেই রয়েছে মোদির ৮০ লাখ ৬০ হাজার রুপি হোটেল বিল।

গত সেপ্টেম্বরে এই বকেয়া চেয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছিল কর্নাটক বনদপ্তর। কিন্তু কেন্দ্রের পক্ষে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, অনুষ্ঠানের বাকি খরচ মেটাতে হবে কর্নাটককেই। গত মার্চ মাসে আবারও কর্নাটকের পক্ষে কেন্দ্রকে চিঠি লেখা হয়। কিন্তু তার জবাব আসেনি, ফলে হোটেলের বিল মেটানোও সম্ভব হয়নি। এই পরিস্থিতিতে সরব হয়েছে মহিশুরের রেডিসন ব্লু প্লাজা হোটেল। তারা কর্নাটকের বনদপ্তরকে চিঠি লিখে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, বকেয়া বিল এবং তার সঙ্গে জরিমানা হিসাবে জমা হওয়া সব অর্থ পরিশোধ করতে হবে ১ জুনের মধ্যে। তা না হলে আইনি ব্যবস্থা নেবে হোটেল কর্তৃপক্ষ। 

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়