ঢাকা     সোমবার   ১৫ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

হজযাত্রীর মৃত্যু হাজার ছাড়াল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:১৮, ২০ জুন ২০২৪   আপডেট: ১৯:২৬, ২০ জুন ২০২৪
হজযাত্রীর মৃত্যু হাজার ছাড়াল

এ বছর সৌদি আরবে হজযাত্রীর মৃত্যুর সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়েছে। এছাড়া এখনো অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি। 

সৌদি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কিছু হজযাত্রী বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন। আর কিছু মারা গেছেন অত্যধিক তাপমাত্রার কারণে। এবার যেসব হজযাত্রী মারা গেছেন তাদের অর্ধেকের বেশি বৈধ নয় বলে দাবি সৌদি আরবের। 

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, হজ পালনের সময় নিহতদের তালিকায় বৃহস্পতিবার নতুন করে মিসরের আরও ৫৮ হজযাত্রীর নাম যুক্ত হয়েছে। আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের একজন কূটনীতিক এএফপিকে বলেছেন, হজ পালন করতে গিয়ে প্রাণ হারানো সহস্রাধিক হজযাত্রীর মধ্যে কেবল মিসরেরই নাগরিক আছেন ৬৫৮ জন।

তিনি বলেছেন, সৌদিতে মারা যাওয়া মিসরীয়দের প্রায় ৬৩০ জনই অবৈধভাবে হজ করতে গিয়েছিলেন। যে কারণে তারা প্রখর তাপপ্রবাহ থেকে সুরক্ষা নিশ্চিতে যাত্রীদের জন্য যেসব সুবিধা ও পরিষেবা বরাদ্দ করেছে সৌদির সরকার, সেসব থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন। অবৈধভাবে সৌদিতে প্রবেশ করা এই যাত্রীরা এমনকি থাকা, খাওয়া এবং এয়ার কন্ডিশন সুবিধাও পাচ্ছেন না।

মিসরের বাইরে জর্ডান, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, সেনেগাল, তিউনিসিয়া, বাংলাদেশ ও ভারতের নাগরিকরাও রয়েছেন মৃত হজযাত্রীদের তালিকায়। 

এ বছর হজ শুরু হয়েছে গত ১৪ জুন থেকে। সৌদির আবহওয়া দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত এক সপ্তাহ ধরে মক্কার তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠানামা করছে। 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ১৮ লাখ হজযাত্রী এবার হজ করতে সৌদি এসেছেন। এই হজযাত্রীদের মধ্যে বৃদ্ধ ও অসুস্থ অনেকে রয়েছেন।তাছাড়া এমন হাজার হাজার হজযাত্রী রয়েছেন, যারা বিধি মেনে সৌদিতে আসেননি। প্রখর তাপপ্রবাহ থেকে সুরক্ষায় সৌদি সরকারের সাহায্য ও সেবা বঞ্চিত এসব হজযাত্রীদের মধ্যেই মৃত্যু ও নিখোঁজের ঘটনা বেশি ঘটেছে।

তিউনিসিয়ার ৭০ বছর বয়সী হজযাত্রী মাবরুকা বিনতে সালেম শুশানা গত শনিবার আরাফাত ময়দানে হজের চূড়ান্ত পর্বের পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে তার স্বামী মোহাম্মদ বুধবার (১৯) জুন এএফপিকে জানিয়েছেন।

তিনি জানান, তার স্ত্রী অনিবন্ধিত হজযাত্রী ছিলেন, তার কাছে আনুষ্ঠানিক হজ পারমিট ছিল না। ফলে তিনি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত সুবিধাগুলো ব্যবহার করতে পারেননি, যা হজযাত্রীদের শীতল হতে দেয়।

মোহাম্মদ আরও জানান, ‘তার স্ত্রী একজন বয়স্ক নারী। তিনি ক্লান্ত ছিলেন। খুব গরম অনুভব করছিলেন এবং তার ঘুমানোর জায়গা ছিল না। আমি সব হাসপাতালে তার খোঁজ করেছি। এখন পর্যন্ত আমার কোনো ক্লু নেই।’

নিখোঁজ হজযাত্রীদের পরিবার পরিজন ও আত্মীয়রা ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাদের ছবি আপলোড করে সহায়তার আকুতি জানিয়েছেন।

হজ ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের একটি।  শারীরিক ও আর্থিক সামর্থ্যবান মুসলিম নারী-পুরুষের জীবনে একবার হজ করা ফরজ।

গত মাসে প্রকাশিত সৌদি সমীক্ষা অনুসারে, প্রতি দশকে এই এলাকার তাপমাত্রা ০.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস (০.৭২ ডিগ্রি ফারেনহাইট) বাড়ছে।

গত বছর দুই শতাধিক হজযাত্রীর মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছিল, বেশিরভাগই ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক ছিলেন।

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়