RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৯ ১৪২৭ ||  ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সবজির দাম কেজিতে ১০-১৫ টাকা কমেছে

শিহাবুল ইসলাম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:২৩, ৪ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৩:৪৯, ৪ ডিসেম্বর ২০২০
সবজির দাম কেজিতে ১০-১৫ টাকা কমেছে

শীতের সবজি বাজারে আসায় দাম কমতে শুরু করেছে। গত সপ্তাহের চেয়ে কেজিতে ১০-১৫ টাকা দাম কমেছে। এতে স্বস্তি ফিরছে ক্রেতার মধ্যে।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে। কারওয়ান বাজারে বেগুন বিক্রি হচ্ছে ২৫-৪০ টাকা কেজি; মূলা ১৫-২০ টাকা কেজি; কাঁচা টমেটো ২৫-৪০ টাকা; তবে পাকা টমেটোর দম কমেনি, ৮০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে; করলা ও শালগম বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকা কেজি; বরবটি ৫০-৬০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিল ৭০-৮০ টাকা কেজি; ফুলকপি আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ১০-৩০ টাকা পিস; কাঁচা পেঁপে ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

সরকার দুই দফা দাম নির্ধারণ করে দিলেও আলুর দাম কমেনি। পুরাতন আলু গত সপ্তাহে ছিল ৪৫ টাকা কেজি, এখনও একই দামে বিক্রি হচ্ছে। নতুন আলু গত সপ্তাহে ছিল ৭০ টাকা কেজি, আজ তা ৬০ টাকা। আদা গত সপ্তাহে ছিল ৯০ টাকা কেজি, ১০টাকা করে আজ ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দেশি পেঁয়াজ গত সপ্তাহে ছিল ৭০ টাকা কেজি, ভারতের পেঁয়াজ ৫০ টাকা কেজি; এ সপ্তাহে তা যথাক্রমে ৫০ ও ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

মিনিকেট চালের দাম প্রতি বস্তায় ৫০ টাকা বেড়েছে। আটাশ চাল বিক্রি হচ্ছে ৪৭-৪৮ টাকা, চিনিগুড়া ৮৩-৮৬ টাকা, বাসমতি ৫৮-৬৬ টাকা, আঁটব চাল ৫৪-৫৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

সবজির পাশাপাশি দাম কমেছে মুরগির মাংস ও ডিমের দাম। ডিম প্রতিডজন বিক্রি হচ্ছে ৮৫ থেকে ৯০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ৯০ থেকে ৯৫ টাকা। আর গত সপ্তাহে ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা কেজিতে বিক্রি হওয়া বয়লার মুরগির দাম কমে ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাকিস্তানিজাতের মুরগি ২৩০ টাকা কেজি, দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ টাকা কেজি দরে। গরুর মাংসের দাম আগের মতোই প্রতিকেজি ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, রাজধানীর শুক্রাবাদের খুচরা কাঁচাবাজারে বেগুন ৫০ টাকা কেজি দরে, আলু ৬০ টাকা কেজি দরে, ভারতের পেঁয়াজ ৪০ টাকা ও দেশি পেঁয়াজ ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

দাম কমার ব্যাপারে কারওরানবাজারে ব্যবসায়ী সোহেল মিয়া বলেন, পর্যাপ্ত পরিমাণ সবজি বাজারে আসছে। এতে সংকট কেটে গেছে। গত সপ্তাহের চেয়ে দাম অনেকটা কম। দৈনিক দাম কমছে।

খুচরা বাজারে দাম বেশি রাখা সম্পর্কে এই ব্যবসায়ী বলেন, পাইকারি বাজার থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার খুচরা বাজারে কেজিতে ১০-১৫ টাকা বেশি দরে বিক্রি হয়। কারণ তিন ধাপে সবজি বিক্রি হয়। সকালে ফ্রেশ সবজি কিনে নিয়ে যায় খুচরা ব্যবসায়ীরা। যে শসা তারা ৪০ টাকায় কিনে নিয়ে যায়, খুচরা বাজারে ৫০ কেজি টাকা দরে বিক্রি করে। সব সবজির ক্ষেত্রে তাই হয়।

শুক্রাবাদের কারওয়ান কাঁচাবাজারের সবজি কিনতে এসেছেন মুজাহিদুল ইসলাম। তার ছয়জনের পরিবারের জন্য এক সপ্তাহের বাজার একসঙ্গে করেন। তিনি বলেন, গত সপ্তাহের চেয়ে সবজির দাম বেশ কম।

ঢাকা/বকুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়