ঢাকা     বুধবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৬ ১৪৩০

গেল বছর, আগামী বছর: নব আনন্দে জাগো

অজয় দাশগুপ্ত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:০৮, ১ জানুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ১১:১৮, ১ জানুয়ারি ২০২৩
গেল বছর, আগামী বছর: নব আনন্দে জাগো

প্রতিবছরই আমরা পেছনে তাকাই। চেষ্টা করি গেল বছরের ভালো মন্দ খুঁজে বের করতে। একে চলতি ভাষায় বলি সালতামামি। এ কাজ সাংবাদিকের। এ কাজ প্রতিবেদকের। কিন্তু যখন আমরা প্রবন্ধ বা কলাম লিখি তখন কেবল কী কী ঘটেছিল তার চাইতে জরুরি হয়ে দাঁড়ায় মুল্যায়ন বা মতামত। বাংলাদেশ পৃথিবী বিচ্ছিন্ন কোনো দেশ নয়। বরং দিন দিন আমরা হয়ে উঠছি গ্লোবাল ভিলেজের অপরিহার্য অংশ। সে কারণে গত বছরের শুরুতে শুরু হওয়া রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধই আমার মতে গেল বছরের সবচেয়ে লোমহর্ষক এবং সাংঘাতিক ঘটনা।

করোনা মহামারি হঠাৎ করে দুনিয়াকে আক্রমণ করার পর স্তব্দ হয়ে যায় মানুষ। এক এক করে পৃথিবীর সব দেশে ছড়িয়ে পড়ে এই মহামারি। আমেরিকা, চীন, রাশিয়ার মতো বড় দেশগুলোর পাশাপাশি ভূটান বা লাওসের মতো ছোট দেশও বাদ পড়েনি। এশিয়া, আফ্রিকা, ইউরোপ আটলান্টিক পাড়ে এক বেদনা একই কষ্টের কাহিনী যখন সভ্যতাকে আক্রমণ করে ধ্বংস করে দিতে চেয়েছিল আমরা ধরে নিয়েছিলাম এমন বাস্তবতার মুখোমুখি দুনিয়া আর যাইহোক যুদ্ধ বিগ্রহে জড়াবে না। মানুষের সে বিশ্বাসকে তছনছ করে দিয়েছে রাশিয়ার একনায়ক পুতিন।

ন্যাটোতে ইউক্রেনের যোগ দেওয়ার আগ্রহ দেখানোর পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নির্দেশ দেন। এ বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া রুশ সেনাদের শক্তিশালী হামলায় ইউক্রেনজুড়ে ব্যাপক ধ্বংস, ক্ষয়ক্ষতি হয়। গোপনে সরে গিয়ে পাল্টা লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি। ইউক্রেন ছেড়ে পালাতে শুরু করে দেশটির সাধারণ মানুষ। ইউরোপে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় শরণার্থী সংকট দেখা দেয়। রাজধানী কিয়েভসহ প্রধান শহরগুলোতে পৌঁছে যায় রুশ সেনারা। ইউক্রেনের সেনারা তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তুললেও রুশ সেনারা দখল করে নেয় বেশ কয়েকটি প্রধান শহর। লুহানস্ক ও দোনেৎস্ক নামের দুটি অঞ্চলকে স্বাধীন দেশের স্বীকৃতিও দিয়ে দেয় রাশিয়া। এই যুদ্ধের কারণে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অস্থিরতা দেখা দেয় গোটা বিশ্বে। সে মন্দার জের টানচে আমাদের স্বদেশ। সে যুদ্ধের ফলে সিডনির জীবনও পড়েছে সংকট আর সমস্যার আর্থিক আবর্তে ।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মর্যাদা আর সম্মানের প্রতীক, দীর্ঘ ঐতিহ্য রাজ মুকুটধারীর গৌরবে গরীয়সী রানি এলিজাবেথের মৃত্যু ছিল আরেক বড় ঘটনা। যুক্তরাজ্যসহ আরও ১৫টি কমনওয়েলথ রাজ্যের রানি ছিলেন তিনি। ১৯৫২ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি মাত্র ২৫ বছর বয়সে ব্রিটেনের সিংহাসনে বসেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। সিংহাসনে ছিলেন সত্তর বছর। তিনি সবচেয়ে দীর্ঘজীবী এবং সবচেয়ে দীর্ঘকাল ধরে শাসনকারী ব্রিটিশ শাসক। তাঁর মৃত্যুর পর ব্রিটেনের নতুন রাজা হিসেবে শপথ নেন তৃতীয় চার্লস।

ইরানে সংগঠিত  নারী বিপ্লব  গেল বছরের সেরা ঘটনার একটা ঘটনা । নীতি পুলিশের হেফাজতে কুর্দি তরুণী মাশা আমিনির মৃত্যু ঘিরে গত সেপ্টেম্বরে ইরানজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। এই বিক্ষোভ এরই মধ্যে শততম দিন পার করেছে। বিক্ষোভে ৬৯ শিশুসহ পাঁচ শতাধিক বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। এবারের বিক্ষোভের উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে নারীদের অংশগ্রহণ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইরানের বিক্ষোভকে সমর্থন জানিয়ে বিক্ষোভ হয়েছে। বিক্ষোভের মুখে ইরান সরকার নীতি পুলিশি ব্যবস্থা বিলুপ্ত ঘোষণা করে। ইরানে ১৯৭৯ সালে ইসলামিক অভ্যুত্থানের পর এত বড় সরকারবিরোধী গণবিক্ষোভ দেশটিতে আর দেখা যায়নি।

এ ঘটনার রেশ ধরেই ফিরে যাবো স্বদেশের মাটিতে। টিপ পরায় গত এপ্রিলে ঢাকার ফার্মগেট এলাকায় হয়রানির শিকার হন তেজগাঁও কলজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক লতা সমাদ্দার। টিপ পরা সম্পর্কে সেসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় নানান গুজব ছড়ানো হয়। জাল হাদিসের প্রচার করা হয়। ভালো ভালো নামকরা আলেম ও একটিভিস্টরা এ বিষয়ে ভিত্তিহীন কথা প্রচার করেন। কুসংস্কারের ভিত্তিতে তারা ফতোয়া দেন। টিপ পরা হারাম বলে বক্তারা মাঠ গরম করেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতে এমন কোনো ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেনি আগে ।

তবে পজিটিভ নিউজের টপে ছিল পদ্মা সেতু । এ বছরের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিল পদ্মা সেতুর উদ্বোধন৷ সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত এই প্রকল্প পরিচালিত হয় দেশের নিজস্ব অর্থায়নে৷ ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটি দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৯টি জেলা সরাসরি সারা দেশের সঙ্গে যুক্ত করেছে৷ ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতু উদ্বোধন করার পরদিন থেকেই সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য তা খুলে দেওয়া হয়৷ যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ করার পাশাপাশি অর্থনীতিতেও এই সেতু নতুন প্রাণ সঞ্চার করেছে৷ নানা সমালোচনা আর বিরোধিতার মুখে দাঁড়িয়ে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ শেখ হাসিনা এই কাজ সম্পন্ন করে বিশ্ববাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।

নেগেটিভ দিক ও কম ছিল না।  সবচেয়ে বেশী আলোচিত নেগেটিভ বিষয় চিল ব্যাংকের টাকা লুট পাচার ও অনিয়ম। বছরের আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম আরেকটি হলো বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে আসা ও ডলার সংকট৷ ২০২১ এর নভেম্বরে যেখানে বাংলাদেশ ব্যাংকে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল ৪৬ বিলিয়ন ডলার, ২০২২ সালের নভেম্বরে তা ৩৪ বিলিয়নে নেমে আসে৷ বিভিন্ন ব্যাংক ও খোলা বাজারে চাহিদার তুলনায় ডলার কম পাওয়া যাচ্ছে৷ বিশ্লেষকরা বলছেন, আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি, রেমিট্যান্স হ্রাস, রপ্তানি বাড়লেও বাণিজ্য ঘাটতির কারণে ডলারের এ সংকট তৈরি হয়েছে দেশে।

আরেক নেগেটিভ বিষয় ছিল আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা। সে নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশের বাহিনী ও ভাবমূর্তিকে বিপদে ফেললেও সরকার তা সামাল দেবার চেষ্টা করেছে। কিছুটা সফলতাও মিলছে এখন।

বছরের শেষপ্রান্তে এসে মানুষের মনে নতুন আশা যুগিয়েছে মেট্রোরেল। এক সময় যা ছিল অভাবনীয়। পাশের দেশ ভারতের কলকাতা গিয়ে এমন যাত্রা করার দিন ফুরিয়েছে। চালু হয়ে গেছে ঢাকার মেট্রোরেল। আপনি মানুন বা নাই মানুন শেখ হাসিনাই ২০২২ সালের সেরা নেতা। তিনি যা বলেন তাইই করে দেখান। একদিন তিনি থাকেন বা না থাকেন এই প্রকল্পগুলো মনে করিয়ে দেবে আমাদের এমন একজন নেতা ছিলেন যিনি স্বপ্নের দুয়ার খুলে দেখিয়ে গেছেন বাংলাদেশ পারে, বাঙালিও পারে অসাধ্য সাধন করতে ।

বছরের শেষ প্রান্তে এসে দুনিয়া  কাঁদিয়ে বিদায় নিয়েছেন কালো মানিক পেলে। অতল স্পর্শী দারিদ্র্য থেকে উঠে এসেছিলেন। ভালো খাবার, প্রশিক্ষণ এমন কী পকেট মানিও জুটতো না। কিন্তু ফুটবল ছিল নেশা। বিশাল এক নাম নিয়ে জন্মেছিলেন। স্কুলে বোকাসোকা ছেলেটি তাঁদের সময়কার সেরা গোলকিপার ভাস্কো ডা গামা নামে পরিচিত বিলে কে ভুল করে ডাকতেন পিলে। হাসাহাসি আর ঠাট্টার শিকার কালো ছেলেটির সে থেকে নাম হয়ে গিয়েছিল পেলে। কে জানতো এই পেলেই হবেন ফুটবলের কালো মানিক পেলে। ৮২ বছর বয়সে তাঁর স্বাভাবিক প্রয়ান হলেও এই বেদনা বইতে হবে আজীবন।

তবে গেল বছরের সাড়া জাগানো ঘটনা ছিল বিশ্বকাপ ফুটবল।  বাংলাদেশের আপামর জনতা জেগে উঠেছিল এ নিয়ে। এমন আবেগ উত্তেজনা বিরল। পুরো দেশ দুই বা ততোধিক দলে বিভক্ত দেশের সমর্থনে জেগে ওঠা দেশে আনন্দের বন্যা বয়ে যায় যখন সবচেয়ে রোমাঞ্চকর ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনাল জিতে আর্জেন্টিনা চ্যাম্পিয়ন হয়। লিওনেল মেসির হাতে ওঠে স্বপ্নের বিশ্বকাপ। বিশ্ব গণমাধ্যম তার এই অর্জনকে ‘অমরত্বের স্বাদ’ বলে আখ্যায়িত করেছে। শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে লিওনেল মেসির জাদুকরী দুই গোলে দুবার এগিয়ে গিয়েও ফ্রান্সকে দমাতে পারেনি আর্জেন্টিনা। কিলিয়ান এমবাপ্পের হ্যাটট্রিকে ৯০ মিনিটের খেলা ১২০ মিনিট পেরিয়ে পৌঁছায় টাইব্রেকারে। আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক মার্টিনেজের অসাধারণ নৈপুণ্যে টাইব্রেকারে ফ্রান্সকে আটকে দেয় আর্জেন্টিনা। কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে লিওনেল মেসি তুলে নেন বিশ্বকাপ। এই জয়ের মধ্য দিয়ে ৩৬ বছরের শিরোপা খরা কাটাল আর্জেন্টাইনরা।

রাজনীতি হীন সমাজ ও দেশে হঠাৎ করে চাঙ্গা হয়ে গেছে রাজনীতি। আওয়ামী লীগ, বিএনপি-জামায়াতের দ্বন্দ্ব ঘোচেনি। বরং আবার উত্তপ্ত হচ্ছে দেশ। মানুষ আর যা চায় বা না চায় হানাহানি মারামারি চায় না। গেল বছরের অশান্তি অকল্যাণের পরিবর্তে সকল কল্যাণকর কাজগুলো বড় হয়ে থাকুক আমাদের জীবনে। তেমনি এক গৌরবের নাম সেঁজুতি সাহা। সমাজে অনাধুনিকতা বিজ্ঞানহীনতার বাড়াবাড়ি। সে জায়গায় Planset  এর মতো বিজ্ঞান সাময়িকীতে সেরা দশজন বিজ্ঞানীর মধ্যে তার নাম অর্ন্তভুক্ত হয়েছে। এই গৌরবের স্বপ্ন নিয়েই শুরু হোক ভালোবাসা ও প্রত্যাশার নতুন বছর।

সিডনি

/ইভা/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়