ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১১ ১৪৩০

মানববন্ধনে হামলার অভিযোগ করেছে জামায়া‌ত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:২১, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩  
মানববন্ধনে হামলার অভিযোগ করেছে জামায়া‌ত

১০ ডিসেম্বর ‘আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস’ উপলক্ষে রাজধানীতে মানববন্ধনে পু‌লি‌শি হামলা ও গ্রেপ্তারের অভি‌যোগ ক‌রে‌ছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী।

রোববার সকালে যাত্রাবাড়ীতে অনুষ্ঠিত জামায়া‌তের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের মানববন্ধ‌নে পু‌লি‌শের অতর্কিত গুলিবর্ষণ ও তা‌দের নেতাকর্মী‌দের গ্রেপ্তার করা হ‌য়ে‌ছে ব‌লে অভিযোগ ক‌রে‌ছেন দল‌টির মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি দেলাওয়ার হোসেন।

তি‌নি ব‌লেন, স্বৈরাচার শেখ হাসিনার সরকারের পতন ছাড়া গুম ও খুন হওয়া ব্যক্তিদের সন্তান ও মা-বাবার কষ্ট মুছবে না। আমরা কারা-নির্যাতিত বিরোধীদলের সব নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি চাই। একতরফার ফরমায়েশি নির্বাচন বন্ধ করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং গুম হওয়া সবাইকে তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

দেলাওয়ার হোসেন ব‌লেন, শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন শেষে চলে যাওয়ার পথে নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুলিবর্ষণ, টিয়ারশেল ও সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে এবং অসংখ্য নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। যা বাংলাদেশের সংবিধান ও মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘনের শামিল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দল‌টির কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমীর অ্যাড. ড. হেলাল উদ্দিন, ড. আব্দুল মান্নান, দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য অধ্যাপক মোকাররম হোসাইন, শামছুর রহমান, দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুস সালাম, কামরুল আহসান, শিবিরের ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, ঢাকা মহানগরী পূর্বের সভাপতি তাকরিম হাসান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, ঢাকা কলেজ সভাপতি আসিফ তাজওয়ার শিশিরসহ ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের বিভিন্ন থানা আমীর ও সেক্রেটারিবৃন্দ।

মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমীর অ্যাড. ড. হেলাল উদ্দিন বলেন, বাংলাদেশে আজ ভয়াবহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। এর ফলে আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বসবাসের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে। এদেশে রাষ্ট্রীয়ভাবে গুম, খুন, নির্যাতন চরম আকার ধারণ করেছে। মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে বর্তমান সরকার ও প্রশাসনের কতিপয় কর্তাব্যক্তিদের একদিন জনগণের আদালতে বিচার হবে।

তি‌নি ব‌লেন, আজকে বাংলাদেশের জনগণের কথা বলার অধিকার নেই। ভোট ও ভাতের অধিকারসহ সব হরণ করা হয়েছে। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, অবিলম্বে অবৈধ তফসিল বাতিল ও কেয়ারটেকার সরকারব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। অন্যথায় সংগ্রামী জনতা রাজপথে নেমে এসেছে। এবার নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেই তারা ঘরে ফিরবে।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে পুলিশের হামলার অভি‌যোগ ক‌রে এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক নিন্দা ও প্রতিবাদ জানি‌য়ে‌ছেন দল‌টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল এবং কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ।
 

নঈমুদ্দীন/এনএইচ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়