RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

ম্যানইউ-পিএসজি, লড়াইটা হবে সেয়ানে সেয়ানে

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪৫, ২০ অক্টোবর ২০২০  
ম্যানইউ-পিএসজি, লড়াইটা হবে সেয়ানে সেয়ানে

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সবচেয়ে সফল দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এক মৌসুম পর আবার ফিরেছে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের আসরে। আর প্রথম ম্যাচেই তারা মুখোমুখি হচ্ছে গতবারের ফাইনালিস্ট প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি)। ২০২০-২১ চ্যাম্পিয়নস লিগের উদ্বোধনী দিনের খেলায় দুই দলের এই হেভিওয়েট ম্যাচে অবশ্য কোনো দলকে নির্দিষ্টভাবে এগিয়ে রাখার সুযোগ নেই।

তবে আবার চ্যাম্পিয়নস লিগে ফেরার ম্যাচে আত্মবিশ্বাসের জায়গায় কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকবে রেড ডেভিলরা। পিএসজির ঘরের মাঠ পার্ক দে প্রিন্সেসে আজ রাত ১টায় মুখোমুখি হবে দুই দল। আর এই মাঠে উয়েফা প্রতিযোগিতায় নিজেদের মধ্যকার সর্বশেষ মুখোমুখিতে প্রথম লেগে ২-০ গোলে পিছিয়ে থাকা ম্যানইউ জিতেছিল ৩-১ গোলে। ফলে ২০১৮-১৯ আসর থেকে ছিটকে গিয়েছিল পিএসজি।

তবে দুই বছরে চিত্র পালটে গেছে অনেকটাই। সেই মৌসুমের হতাশা ঝেরে গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল খেলেছে পিএসজি। ফাইনালে শক্তিশালী বায়ার্ন মিউনিখের কাছে মাত্র ১-০ ব্যবধানে হেরে শিরোপা হারিয়েছিল যদিও। তবে নিজেদের চ্যাম্পিয়নস লিগের সেই ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ণ থাকলে বিপদ থাকবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জন্যও।

তবে ওলে গানার সুলশারের দল ছেড়ে কথা বলবে না বলে মনে করছেন পিএসজির কোচ থমাস টুখেল। তার উপর পিএসজির অন্যতম সেরা তারকা এডিনসন কাভানি যোগ দিয়েছেন ম্যানইউ শিবিরে। ফলে তিনিও বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারেন বলে মনে করছেন টুখেল। এদিকে অবশ্য ম্যানইউয়ের ভাঙাচোরা ডিফেন্স আশা জোগাতে পারে পিএসজিকে। চলতি প্রিমিয়ার লিগে চার ম্যাচে ৯ গোল দেওয়া ম্যানইউ হজম করেছে ১২ গোল। এদিকে পিএসজির নেইমার এবার আছেন দারুণ ছন্দে। তার সঙ্গে কিলিয়ান এমবাপ্পে, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়ারা জ্বলে উঠলে ডেভিড ডি গিয়ার জন্য কঠিন চ্যালেঞ্জই হবে ম্যাচটি।

তারউপর দলের নিয়মিত অধিনায়ক হ্যারি ম্যাগুয়েরকে এই ম্যাচের স্কোয়াডেই রাখেননি সুলশার। ভরসা রেখেছেন পর্তুগিজ ব্রুনো ফার্নান্দেজের উপর। তার নেতৃত্বে মাঠে নামবে ম্যানইউ। বদলে যাওয়া রেড ডেভিলদের ধারাবাহিক জয়ে বড় ভূমিকা রাখা এই ফুটবলারকে নিয়েও অবশ্য ভেবে রেখেছে পিএসজির কোচ টুখেল।
রেড ডেভিলদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে টুখেল বলেন, ‘গত মৌসুম শেষ এবং আমরা এখন ভিন্ন একটা দল। শক্ত-পোক্ত একটা দলের মধ্যে ভালো আবহ তৈরি করাই আমার চ্যালেঞ্জ।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘২০১৮-১৯ মৌসুমের দল থেকে ম্যানইউ অনেক পরিবর্তন করেছে। আরও আত্মবিশ্বাসী এবং অভিজ্ঞ খেলোয়াড় দলে টেনেছে। পল পগবা তাদের একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, বিশ্বের সেরা মিডফিল্ডারদের একজন। তাকে আটকানো গুরুত্বপূর্ণ হবে, ব্রুনো ফের্নান্দেসকে আটকানোও গুরুত্বপূর্ণ। সে তিনজন গতিময় ফরোয়ার্ডের সঙ্গে খেলে।’

এমনকি কাভানিকে নিয়েও কথা বলেন টুখেল। তার ভাষ্যে, ‘ক্লাবের হয়ে (পিএসজির) সে ইতিহাস লিখেছিল। আর এখন সে অন্য একটি দলের হয়ে আমাদের বিপক্ষে খেলবে। বিষয়টা কিছুটা অদ্ভুত হতে যাচ্ছে। তার বিপক্ষে রক্ষণ সামলানো কঠিন। সে দারুণ মানসম্পন্ন একজন খেলোয়াড়। তবে হ্যাঁ, আগামীকাল সে এটা প্রমাণ না করলেই ভালো।’

প্রতিপক্ষ দল নিয়ে কোচের এমন কথা সত্ত্বেও আত্মবিশ্বাসী পিএসজির মিডফিল্ডার অ্যান্ডার হেরেরা। যিনি কিনা ম্যানইউ থেকেই যোগ দিয়েছেন পিএসজি শিবিরে। তিনি বলেন, ‘গত মৌসুম আমাদের দারুণ গেছে। আমাদের হারানো সহজ হবে না। আমাদের দলে দারুণ কিছু তারকা আছে। ওই খেলোয়াড়দের আবার আমাদের মতো খেলোয়াড়দের সাহায্য দরকার। আমি খুবই খুশি যে দল যা চাচ্ছে সেটা দিয়ে যেতে পারছি। আশা করছি জয় আমাদের পক্ষে থাকবে।’

ঢাকা/কামরুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়