Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৮ ||  ১৯ সফর ১৪৪৩

ড্রেসিংরুমেই মনে হয়েছিল আজ জিতব: শামীম

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৫৩, ২৫ জুলাই ২০২১   আপডেট: ২২:৫৬, ২৫ জুলাই ২০২১

১৯৩ রান তাড়া করে দারুণ জয়ে ‘ফাইনাল’ ম্যাচ জিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিজেদের করে নিলো বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার ৬৮ রানের দৃষ্টিনন্দন ইনিংস খেলে ম্যাচ জেতালেও ফিনিশিংয়ে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন শামীম হোসেন পাটোয়ারি। ১৫ বলে অপরাজিত ৩১ রানের ছোট্ট ক্যামিওতে জিম্বাবুয়ের বোলিং আক্রমণ লণ্ডভণ্ড করে ম্যাচ বের করে আনেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ইনিংসে কোনো ছয়ের মার নেই, চার ৬টি। সিঙ্গেল, ডাবলসে রাঙিয়েছেন ইনিংস। তাতেই যেন ম্যাচটা নিজের করে নেন শামীম।

ম্যাচ শেষে তিনি জানালেন, ড্রেসিংরুম থেকে টপ ও মিডল অর্ডারের ব্যাটিং দেখে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিলেন আজ জিতবে বাংলাদেশ। শামীম বলেন, ‘যখন সৌম্য-রিয়াদ ভাই ব্যাটিং করছিলেন, তখন সব কিছু ইতিবাচক ছিল আমাদের। আমি যখন ড্রেসিংরুম থেকে খেলা দেখছিলাম, তখন মনে হচ্ছিল যে আজ জিতব। যেভাবেই হোক আমরা জিতব।’

মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে শামীমের জুটি ছিল ১৯ বলে ৩৭ রানের। ম্যাচের অতি গুরুত্বপূর্ণ ১৮তম ওভার খেলেছিলেন শামীম। ওই সময়ে সফরকারীদের সামনে সমীকরণ ছিল ১৮ বলে ২৮ রান। ডিয়ন মায়ার্সের করা ওভারের প্রথম বল ডট। দ্বিতীয় বলে মাহমুদউল্লাহর ১ রান। পরের বল শামীমের মিস টাইমিং, বল যায় ডিপ পয়েন্টে। মাহমুদউল্লাহর ২ রানের ডাকে সাড়া দিয়ে শামীম ক্ষিপ্রতা দেখান। বিশাল ডাইভ দিয়ে বাঁচান উইকেট।

পরের তিন বলে মায়ার্সকে এলোমেলো করে দেন শামীম। প্রথম বল ডিপ এক্সট্রা কভার দিয়ে চার। পরের বলে রিভার্স সুইপে আরেকটি বাউন্ডারি। শেষ বল পুল করে মিড উইকেট দিয়ে চার। ওভারে ১৫ রান তুলে ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেন শামীম।

সিকান্দার রাজাও এই ওভারের কথা বললেন ম্যাচ শেষে, ‘মায়ার্সের করা ১৮তম ওভারে ১৫ রান চলে আসার পর বুঝে যাই ম্যাচটা আমাদের হাতে নেই। তবুও শেষ পর্যন্ত আমরা লড়াই করেছি।’ লড়াই করলেও জিম্বাবুয়ে শেষ হাসি হাসতে পারেনি। শেষ ওভারে বাংলাদেশের দরকার ছিল ৫ রান। শামীম প্রথম বলেই হাঁকান বাউন্ডারি। দ্বিতীয় বলে ১ রান নিয়ে চার বল বাকি থাকতেই জয় নিশ্চিত করেন।

নিজের ইনিংস নিয়ে শামীম বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খারাপ বল কম পাওয়া যায়। বেশিরভাগ সময়ই ভালো বল আসে, সেগুলোই সাহস করে মারতে হয়। এই দায়িত্বটা নিয়ে খেলতে হয়।’ দলকে জিতিয়ে শেষ করে আসতে পারায় খুশি তিনি, ‘অনেক ভালো লাগছে। গত ম্যাচে শেষ করতে পারিনি। তাই মনে ছিল যে পরের ম্যাচে সুযোগ পেলে আমার লক্ষ্য থাকবে শেষ করে আসার। সেই সুযোগটা পেয়ে আমি সফলও হয়েছি, তাই অনেক ভালো লাগছে।’

সিরিজ জয়ে ক্যারিয়ার শুরু করায় পরবর্তীতে ভালো করার আত্মবিশ্বাস শামীমের মনে, ‘আমার যেহেতু টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে অভিষেক হয়েছে। আমার জন্য ভালো হয়েছে যে সিরিজ জয় দিয়ে শুরু করেছি। এটা আমার জন্যও ভালো হয়েছে, দলের জন্যও।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ