ঢাকা     বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৯ ||  ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

২৬ মিনিটে বাংলাদেশের ৭ উইকেটে হার

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০০, ১৯ জুন ২০২২   আপডেট: ২০:৫৯, ১৯ জুন ২০২২
২৬ মিনিটে বাংলাদেশের ৭ উইকেটে হার

প্রথম ইনিংসে- বাংলাদেশ: ১০৩/১০ (৩২.৫ ওভার) ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২৬৫/১০ (১১২.৫ ওভার) উইন্ডিজের লিড: ১৬২

দ্বিতীয় ইনিংসে- ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৮৮/৩ (২২ ওভার) বাংলাদেশ: ২৪৫/১০ (৯০.৫ ওভার) লক্ষ্য: ৮৪

ফল: উইন্ডিজ ৭ উইকেটে জয়ী। 

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: কেমার রোচ ( ২/২১ ও ৫/৫৩) । 

ব্যাটিং ভরাডুবিতে ডুবলো বাংলাদেশ 

প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৩ রান করে বাংলাদেশ। এক সাকিব আল হাসান ছাড়া কারো ব্যাট কথা বলেনি। জবাবে উইন্ডিজ করে ২৬৫। মেহেদি হাসান মিরাজ নেন ৪ উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে যেখানে ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নেওয়ার কথা সেখানে দেখা যায় আসা যাওয়ার মিছিল। এবারও ত্রানকর্তা সাকিব। সঙ্গে ছিলেন নুরুল হাসান সোহান। দুজনের ফিফটিতে ১২৩ রানে জুটিতে বাংলাদেশ ইনিংস ব্যবধানে হার এড়ায়। বাংলাদেশ করে ২৪৫ রান। লক্ষ্য দাঁড়ায় ৮৪। ফিল্ডিংয়ে নেমে খালেদ আহমেদ শুরুতেই মাত্র ৩ রানে ৩ উইকেট নেন। কিন্তু স্কোরবোর্ডে পুঁজি কম থাকলে যা হয়। চাপ সামলে ম্যাচ বের করে নিয়ে আসেন ক্যাম্পবেল-ব্ল্যাকউড। বোলাররা তাদের দায়িত্ব পালন করেছেন কিন্তু ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থা ডুবিয়েছে বাংলাদেশকে। 

হাফ ডজন হার

এই নিয়ে উইন্ডিজের মাটিতে এই নিয়ে বাংলাদেশ ৬ষ্ঠবার হারলো। এর আগে আট ম্যাচ খেলে দুইটি জিতেছে বাংলাদেশ, ড্র করেছে একটি। হেরেছে পাঁচটিতে। সবশেষ জয় ছিল ২০০৯ সালে। 

২৬ মিনিটে ৭ উইকেটে হার

 

অ্যান্টিগা টেস্টে বড় হার দিয়ে শুরু হলো বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। চতুর্থ দিন দিনের খেলা ২৬ মিনিট না যেতেই ৭ উইকেটে জেতে উইন্ডিজ। জন ক্যাম্পবেল ৫৮ ও জার্মেইন ব্ল্যাকউড ২৬  রানে অপরজাতি থেকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন। দুই ম্যাচের সিরিজে উইন্ডিজ এগিয়ে গেলো ১-০তে। ৩৫ রান দূরে থেকে দিন শুরু করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ব্যাটসম্যান জন ক্যাম্পবেল ও জার্মেইন ব্ল্যাকউড। দুজনের শুরু থেকে সাবলীল খেলা খেলতে থাকেন। ব্ল্যাকউডের তুলোনায় ক্যাম্পবেল ছিলেন আগ্রাসী। ২২তম ওভারে নাজমুল হোসেন শান্তকে সুইপ করে চার মেরে তুলেন হাফ সেঞ্চুরি। ৬৩ বলে অর্ধ-শতক হাঁকান এই ব্যাটসম্যান। একই ওভারের শেষ বলে লং অনে ৬ হাঁকিয়ে ম্যাচ জেতান দিনের আধঘণ্টা শেষের আগেই। 

হারের মুখে চতুর্থ দিন ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

অ্যান্টিগা টেস্টের চতুর্থ দিন রোববার মাঠে নেমেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ। উইন্ডিজের জয়ের জন্য প্রয়োজন মাত্র ৩৫ রান। জন ক্যাম্পবেল ২৮ ও জার্মেইন ব্ল্যাকউড ১৭ রানে দিন শুরু করেন। 

কড়া নাড়ছে হার

দরজায় কড়া নাড়ছে হার। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বাংলাদেশ লক্ষ্য দিয়েছে মাত্র ৮৪। তবুও তৃতীয় দিন শেষ বিকেলে খালেদের আগুণঝরা স্পেলে উত্তেজনার রেণু ছড়ায়। সহসায় আবার ম্যাচে ফেরে স্বাগতিকরা। অতিমানবীয় কিছু না ঘটলে আজ প্রথম ঘণ্টায় ম্যাচ জিততে পারবে ক্যারিবীয়ানরা। ব্যাটিং ভরাডুবির আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হবে বাংলাদেশ। 

ডমিঙ্গোর মতে, ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাস নিচের দিকে  

বাংলাদেশের ব্যাটিং ইউনিটের আত্মবিশ্বাস নিচের দিকে বললেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। দুই ইনিংসেই এমন দৈন্যদশা নিয়ে ডমিঙ্গো বললেন, ‘এটা ভালো নয়। দুই ইনিংসেই অনেক বেশি সফট ডিসমিসাল এবং ব্যাটিংয়ে অনেক বাজে সিদ্ধান্ত। প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৩ রান। আরও বেশি রান হওয়া দরকার ছিল। দ্বিতীয় ইনিংসেও ২৪৫ রান কম...। এই টেস্ট ম্যাচে অনেক বেশি সফট ডিসমিসাল।’

ব্যাটসম্যানদেরদের মানসিকতা নিয়ে প্রধান কোচ বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাস নিচের দিকে। মুমিনুল, শান্তর মতো বড় খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস নিচে। ক্রিকেটে আত্মবিশ্বাস বড় ব্যাপার এবং এই মুহূর্তে ওই আত্মবিশ্বাসরা তারা তাদের ব্যাটিংয়ে পাচ্ছে না।’

তৃতীয় দিন শেষে কড়া নাড়ছে হার 

খালেদ আহমেদের তোপে ৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পুঁজি মাত্র ৮৩ রান হলেও শুরুতেই খালেদের এমন আক্রমণ উত্তেজনা ছড়ায় বাংলাদেশ শিবিরে। শরীরি ভাষায় যা ছিল স্পষ্ট। এরপর প্রতিরোধ গড়েন জন ক্যাম্পবেল-ব্ল্যাকউড। দুজনে সাবধানী খেলতে থাকেন। শেষ দিকে ইবাদত হোসেন বোলিংয়ে আসলেও সুবিধা করতে পারেননি। মোস্তাফিজুর রহমান কৃপণ হলেও উইকেটের দেখা পাননি। মাঝে মিরাজ এসে রান দিয়ে দেন। তিনি ২ ওভারে ১০ রান দেন। সাকিব আল হাসান ২ ওভার করে ৩ রান দেন। ক্যাম্পবেল (২৮) ও ব্ল্যাকউড (১৭) অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। দিন শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৪৯। জয়ের জন্য প্রয়োজন মাত্র ৩৫। চতুর্থ দিন প্রথম সেশনের প্রথম ঘণ্টায় ম্যাচের ফল আসবে। দিন শেষে বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে কম রানের আক্ষেপ। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং ভরাডুবির কারণেই এই হাল হলো।

ঢাকা/রিয়াদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়