ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১৮ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

ব্যাটিংয়ে শীর্ষে শান্ত, দেশিদের দখলে সেরা পাঁচ  

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৫৭, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ১০:২২, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
ব্যাটিংয়ে শীর্ষে শান্ত, দেশিদের দখলে সেরা পাঁচ   

অষ্টম আসরে এসে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দেখলো অন্যরকম কিছু। ব্যাট-বলে সব বিভাগেই বিদেশি তারকাদের ছাড়িয়ে রাজত্ব দেশি ক্রিকেটারদের। ব্যাট হাতে রেকর্ড গড়া নাজমুল হোসেন শান্ত সবার উপরে অবস্থান করছেন। সেরা পাঁচ দেশিদের দখলে। 

সিলেট স্ট্রাইকার্সকে হারিয়ে চতুর্থবারের মতো ট্রফি ঘরে তোলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এর মধ্য দিয়ে পর্দা নামলো প্রায় দেয় মাস ধরে চলা বিপিএলের অষ্টম আসরের। রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য বিপিএলের এই আসরে ব্যাট হাতে শীর্ষে থাকা ৫ ক্রিকেটার নিয়ে এই প্রতিবেদন। 

নাজমুল হোসেন শান্ত 

সিলেট স্ট্রাইকার্সের বাঁহাতি ওপেনার ব্যাট হাতে ছড়ি ঘুরিয়েছেন শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। প্রায়ই ম্যাচে শুরুতে ভিত গড়ে দেওয়া শান্ত ফাইনালেও হাঁকিয়েছেন ফিফটি।  শান্ত ১৫ ম্যাচে ৩৯.৬৯ গড়ে ৫১৬ রান করেন। বাংলাদেশি হিসেবে প্রথমবার ৫০০ রান ছাড়িয়ে যান শান্ত। ফিফটি হাঁকিয়েছেন ৪টি। সর্বোচ্চ অপরাজিত ৮৯ রান। স্ট্রাইক রেট ১১৬.৭৪। ৪ মেরেছেন ৫৭টি আর ছয় ১২টি। শান্ত টুর্নামেন্ট সেরার পুরষ্কারও পেয়েছেন। 
   
রনি তালুকদার

শান্তর পরে আছেন রংপুর রাইডার্সের ওপেনার রনি তালুকদার। ৩৫.৪১ গড়ে ১৩ ম্যাচে ৪২৫ রান করেন রনি। ব্যাটিং করেছেন ১২৯.১৭ স্ট্রাইকরেটে। ৪ মেরেছেন ৫১টি আর ছয় ১২টি। ফিফটি ৩টি। তার দল দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে রংপুরের কাছে হেরে যায়। এই ম্যাচেও ফিফটি করেন রনি, তবে জিতিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেননি। 

তৌহিদ হৃদয়

এবারের বিপিএলের অন্যতম আবিষ্কার সিলেট স্ট্রাইকার্সের তৌহিদ হৃদয়। খোলস ছেড়ে বেরিয়ে স্বাধীনভাবে ব্যাটিং করা হৃদয় ১৪০.৪১ স্ট্রাইকরেটে ১৩ ম্যাচে ৪০৩ রান করেছেন। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় তিনি তৃতীয় স্থানে। শুরুতে ইনজুরিতে আক্রান্ত না হলে হৃদয় থাকতে পারতেন শীর্ষে। ফিফটি করেছেন ৫ ম্যাচে। সর্বোচ্চ অপরাজিত ৮৫। চার মেরেছেন ৪৩টি আর ছয় ১৩টি। হৃদয় বিপিএলে আলো ছড়িয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দলেও। 

লিটন দাস 

সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের লিটন দাস। ফাইনালে ফিফটি হাঁকানো লিটন ১৩ ম্যাচে ৩৭৯ রান করেন। ১২৯.৩৫ স্ট্রাইকরেটে গড়ে ৩১.৫৮ রান করেইন এই ডানহাতি ওপেনার। চার মেরেছেন ৪৪টি আর ছয় ১৪টি। ফিফটি করেছেন ৩টি। সর্বোচ্চ খেলেন ৭০ রানের ইনিংস। 

সাকিব আল হাসান

এবার আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে প্রতিপক্ষ দলকে এলোমেলো করে দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। ফরচুন বরিশালের অধিনায়ল্ক ১৭৪.৪১ স্ট্রাইকরেটে ১৩ ম্যাচে ৩৭৫ রান করেন। গড় ৪১.৬৬ রান। সর্বোচ্চ অপরাজিত ৮৯। চার হাঁকিয়েছেন ৩৬টি আর ছয় ২২টি।  রান সংগ্রাহকের তালিকায় তিনি আছেন পঞ্চম স্থানে। তবে বিপিএলের শেষ দিকে এসে সাকিব ব্যাট হাতে কিছুটা নিস্প্রভ ছিলেন। এলিমেনেটর ম্যাচে রংপুরের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে না নেমে বিদেশিদের পাঠানোতে পড়েন সমালচোনার মুখেও। 

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়