ঢাকা, রবিবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৫, ২৪ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

অতিরিক্ত ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক আদায়ের পরিকল্পনা

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-১০ ৮:০১:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-১১ ১০:১৬:৫৫ এএম

কেএমএ হাসনাত : সদ্য প্রস্তাবিত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেটে প্রায় ৪২ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক আদায়ের পরিকল্পনার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এ বোঝা চাপবে জনগণের ওপর।

বাজেট দলিলাদি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, আগামী ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ১ লাখ ১০ হাজার ৫৫৫ কোটি টাকা মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট আদায়ের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। যা চলতি অর্থবছরে এ খাতের সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৭ হাজার ৮৪২ কোটি টাকা বেশি। চলতি অর্থবছরে সংশোধিত বাজেটে ভ্যাট আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৮২ হাজার ৭১৩ কোটি টাকা।

গত বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জাতীয় সংসদে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করনে। এতে আগামী অর্থবছরে সম্পূরক শুল্ক থেকে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রাও অনেকটা ব্যাপক হারে বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছেন তিনি। এ খাত থেকে আগামী অর্থবছরে ১৪ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় কর হবে। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে সম্পূরক শুল্ক থেকে রাজস্ব আদায়ের টার্গেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৭৬৬ কোটি টাকা। আগামী অর্থবছরে তা ১৪ হাজার কোটি টাকা বাড়িয়ে ধরা হয়েছে ৪৮ হাজার ৭৬৬ কোটি টাকা। ফলে আগামী অর্থবছরে ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক থেকে অতিরিক্ত ৪১ হাজার ৮৪২ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের টার্গেট করা হয়েছে।

বাজেট দলিলাদি থেকে দেখা যায়, চার অর্থবছরের ব্যবধানে ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক থেকে রাজস্ব আদায় বাড়ানো হয়েছে প্রায় আড়াই গুণ। ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরে ভ্যাট থেকে রাজস্ব আদায়ের টার্গেট ছিল ৪৫ হাজার ৩৬৬ কোটি টাকা। অন্যদিকে, আগামী অর্থবছরে এ খাত থেকে রাজস্ব আদায়ের প্রাক্কলন করা হয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৫৫৫ কোটি টাকা। চার বছরের ব্যবধানে এ খাত থেকে রাজস্ব আদায় বাড়ানো হয়েছে ৬৫ হাজার ১৮৯ কোটি টাকা। এ বৃদ্ধির হার ১৪৪ শতাংশ।

অন্যদিকে, ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরে সম্পূরক শুল্ক থেকে রাজস্ব আদায় করা হয়েছে ২১ হাজার ৮০ কোটি টাকা। আগামী অর্থবছরে এ খাত থেকে আদায়ের পরিকল্পনা করা হয়েছে ৪৮ হাজার ৭৬৬ কোটি টাকা। চার বছরের ব্যবধানে আদায়ের বাড়ানোর হয়েছে ২৭ হাজার ৬৮৬ কোটি টাকা। শতকরা হারে এ বৃদ্ধি ১২৮ শতাংশ।

অর্থমন্ত্রী তাদের বাজেট বক্তৃতায় স্বীকার করেছেন, ‘জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক আহরিত রাজস্বের মধ্যে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) ও সম্পূরক শুল্ক হতে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি রাজস্ব আদায় হয়।’

জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার উত্থাপিত ‘অর্থ আইন ২০১৮’ অনুসারে ৪৩০টিরও বেশি পণ্যের ওপর সম্পূলক শুল্ক আরোপের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এসবের মধ্যে কিছু পণ্যের সম্পূরক শুল্ক অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। আবার কিছু পণ্যের সম্পূরক শুল্ক বৃদ্ধি বা হ্রাস করার কথা বলা হয়েছে। পণ্যের প্রকারভেদে সর্বনিম্ন ১০ এবং সর্বোচ্চ ৫০০ শতাংশ পর্যন্ত সম্পূরক শুল্ক ধার্য রয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জুন ২০১৮/হাসনাত/রফিক

Walton Laptop
 
   
Walton AC