ঢাকা, বুধবার, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘কোথায় আমার নীল দরিয়া’

রাহাত সাইফুল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৭-০৬-০৬ ৪:৩৩:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৬-০৭ ৮:৩৯:০৮ এএম
আব্দুল জব্বার

বিনোদন প্রতিবেদক : দেশ বরেণ্য সংগীতশিল্পী আব্দুল জব্বার। ‘তুমি কি দেখেছ কভু জীবনের পরাজয়’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’, ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’শিরোনামের মতো বেশ কিছু কালজয়ী গান তার সংগীত ক্যারিয়ারের ঝুলিতে জমা রয়েছে।

কিন্তু একক কোনো অ্যালবামে তাকে কখনো গাইতে দেখা যায়নি। ২০০৮ সালে তিনি ‘কোথায়  আমার নীল দরিয়া’নামে একটি অ্যালবামের কাজ শুরু করেন। এটি তার জীবনের প্রথম একক অ্যালবাম। তখন তিনি এই অ্যালবামের গানগুলো রেকর্ডিং করেন। বিভিন্ন জটিলতায় অ্যালবামটি এতদিন প্রকাশিত হয়নি।

সম্প্রতি এই অ্যালবামটি ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া এর মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনাও করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

মৌলিক গানের এ অ্যালবামে ‘আমি আপন ঘরের জানলাম না খবর’, ‘মা আমার  মসজিদ’, ‘এখানে  আমার পদ্মা মেঘনা’, ‘প্রেমের বিষকাঁটা’, ‘নয়নে মেখোনা কাজল’, ‘আমি দুঃখকে বলেছি’সহ মোট ৯টি গান নিয়ে সাজানো হয়েছে অ্যালবামটি।

গানগুলো লিখেছেন মো. আমিরুল ইসলাম। সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন গোলাম সারোয়ার।

এ প্রসঙ্গে আব্দুল জব্বার বলেন, ‘এটি আমার প্রথম অ্যালবাম। এই অ্যালবামের কাজ শেষ করতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। গানগুলোর কথা অসাধারণ। এর মধ্যে মা, মাটি, দেশ, ধর্ম, সমাজ সবই আছে। আশা করছি, শ্রোতাদের ভালো লাগবে।’

এ প্রসঙ্গে গীতিকার আমিরুল ইসলাম বলেন, ‘এই  অ্যালবামে সব রকম  আবেগের গান রয়েছে।  গানগুলো শ্রোতা মনে দাগ কাটবে।তা ছাড়া শ্রদ্ধেয় আব্দুল জব্বার ভাই বাংলা গানের জীবন্ত কিংবদন্তি। আমার লেখা গানে তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন এটা আমার পরম প্রাপ্তি। এজন্য আমি শ্রদ্ধেয় জব্বার ভাইয়ের কাছে চির কৃতজ্ঞ।’

অ্যালবামটি  প্রকাশ করেছে মম মিউজিক সেন্টার।

বরেণ্য এই শিল্পী এখন হাসপাতালের বিছানায় শয্যাশায়ী। তার কিডনি ঠিকমতো কাজ করছে না। হৃদরোগও শিল্পীর হৃদয়ে বাসা বেঁধেছে। ফলে তিনি এখন রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নেফ্রোলজি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এই কালজয়ী শিল্পীর উন্নত চিকিৎসার জন্য আনুমানিক ৮০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা প্রয়োজন। কিন্তু শিল্পী এবং তার পরিবারের পক্ষে এত টাকা সংগ্রহ করা সম্ভব নয়। এরই মধ্যে দেশের শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, অটোমোবাইলস, হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও টেলিকমিউনিকেশন পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ এ শিল্পীর পাশে দাঁড়ানোর আগ্রহ প্রকাশ করে আর্থিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ জুন ২০১৭/রাহাত/শান্ত

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC