ঢাকা, সোমবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

গেলেই মিলবে স্বর্ণ ও নগদ টাকা

শাহিদুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-১১ ২:১৩:৫৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-১১ ৩:২৫:৩৪ পিএম

শাহিদুল ইসলাম : প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশুদের ভর্তির হার বাড়াতে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। তবে ভারতের তামিলনাড়ু প্রদেশের কোনারপালায়ম গ্রামের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিশুদের ভর্তির হার বাড়াতে এক অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

বিদ্যালয়টিতে ভর্তি হলেই তাকে এক গ্রাম ওজনের একটি সোনার কয়েন এবং সাথে নগদ পাঁচ হাজার রুপি ও দুই সেট স্কুল ইউনিফর্ম উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ওই গ্রাম প্রধান সিলভারাজ ও শেখর নামের এক ব্যবসায়ী। তবে এ সুযোগ পাবে ভর্তি হওয়া প্রথম দশজন শিক্ষার্থী।

কোনারপালায়ম কৃষি প্রধান গ্রাম। তবে গত দুই দশক ধরে এখানকার ফসল উৎপাদন ক্রমশ কম হচ্ছে। ফলে কৃষিজীবী গ্রামবাসী ধীরে ধীরে অন্যত্র বসত গড়তে শুরু করেছে। এছাড়া ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়গুলোতে ঝোঁক বাড়ছে। এতে করে গ্রামীণ ওই বিদ্যালয়টিতে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ক্রমশ কমে যাচ্ছে। বর্তমানে ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী সংখ্যা মাত্র পাঁচজন। অথচ বিদ্যালয়টি ১৯৯৬ সালে যখন স্থাপিত হয় তখন ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ছিল ১৬৫ জন।

ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা দশ জনের কম হওয়ায় রাজ্য সরকার কয়েকদিন আগে তাদের নীতিমালা অনুযায়ী বিদ্যালয়টি বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। এই ঘোষণার পরই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাজেশ চন্দ্রকুমার গ্রামের সকলের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসেন। উক্ত আলোচনা সভাতেই গ্রাম প্রধান সিলভারাজ ও ব্যবসায়ী শেখর এই অভিনব ঘোষণা দেন।

উক্ত ঘোষণা দেওয়ার পরেই তিনটি শিশু বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে এবং আরো তিনটি শিশুর পরিবার ভর্তির ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে। গ্রাম প্রধান সিলভারাজ বলেন, ‘আমাদের গ্রামে একটি বিদ্যালয় আছে এটি গর্বের বিষয়। আমরা যেকোনো মূল্যে বিদ্যালয়টি চালু রাখার চেষ্টা করব।’




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জুলাই ২০১৮/মারুফ/তারা

Walton Laptop
 
     
Walton