ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৭ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আলোচিত এরশাদ, প্রেসিডেন্ট পার্কে নেতা-কর্মীদের পাহারা

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-০৬ ৮:১৬:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-২১ ১০:৫৫:০৯ পিএম
Walton AC 10% Discount

মুহম্মদ নঈমুদ্দীন : সিদ্ধান্ত বদলের জন্য রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচিত-সমালোচিত জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।  অসুস্থ শরীর নিয়ে বৃদ্ধ অবস্থায়ও তিনি একেক সময় একেক সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। সকালে যাকে বাদ দেন, বিকেলে তাকে আবার পুনর্বহাল করেন। সিদ্ধান্ত বদলের জন্য তিনি দলে যেমন আলোচিত, তেমনি রাজনৈতিক অঙ্গনেও সমালোচিত।

সর্বশেষ ছোট ভাই জি এম কাদেরকে পদ থেকে অপসারণ, একইভাবে পুনর্বহালের ঘটনায় এরশাদের সিদ্ধান্তে নাটকীয়তার জন্ম দিয়েছে। সংসদের উপনেতা ও দলের কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে জি এম কাদেরকে সরিয়ে দেন এরশাদ। রংপুরের নেতা-কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে তের দিনের মাথায় তিনি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে কো-চেয়ারম্যান পদে ছোট ভাইকে পুনর্বহাল করেন। শনিবার সকালে পৃথক একটি সাংগঠনিক নির্দেশে এরশাদের অবর্তমানে জি এম কাদেরকে পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

জানা গেছে, জিএম কাদের ইস্যুতে এরশাদের সর্বশেষ সিদ্ধান্ত যাতে পরিবর্তন না হয় সেজন্য রংপুরের বেশ কিছু নেতা-কর্মী এরশাদের বারিধারাস্থ প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় পাহারা বাসিয়েছেন। যাতে কোনো নেতা গিয়ে এরশাদকে প্রভাবিত করতে না পারেন। এরশাদ নিজেও যেন সিদ্ধান্তে অটল থাকেন।

দুদিন ধরে জি এম কাদেরের অনুগত নেতা-কর্মীদের এরশাদের বাসায় পাহারা দিতে দেখা গেছে। তারা পালাকরে পাহারা বসিয়েছেন। এসব নেতাকর্মী মহানগর উত্তর-দক্ষিণের কেউ নন, দলের যুগ্ম মহাসচিব হাসিবুল ইসলাম জয়ের অনুসারী। জি এম কাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে জয়কে পদোন্নতি দিয়ে কিছু দিন আগে দলের যুগ্ম মহাসচিব করেন।  তার বাড়ি রংপুরে।

দলীয় সূত্র জানায়, জি এম কাদের ইস্যুতে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এক গ্রুপ জিএম কাদেরের পক্ষে, বৃহত্তর গ্রুপ তার বিপক্ষে। জিএম কাদেরের বিরোধী গ্রুপ গিয়ে যাতে এরশাদকে প্রভাবিত করতে না পারেন সেজন্য তার অনুসারীরা এরশাদের বাসায় পাহারা বসিয়েছেন। এসব নেতা-কর্মীর পাহারার কারণে জি এম কাদের বিরোধী সিনিয়র নেতারা প্রেসিডেন্ট পার্কে যেতে পারছেন না বলেও জানা গেছে।

জি এম কাদের ইস্যুতে জাপায় অভ্যন্তরীণ বিরোধ আরো বেড়েছে। হঠাৎ করেই  এরশাদের বাসা ও বনানী কার্যালয়ে পার্টির তৃণমূলের কিছু নেতা-কর্মীর উপস্থিতি বেড়ে গেছে। তারা জি এম কাদেরের পক্ষে স্লোগান দিচ্ছেন। সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য কোনো নেতা এরশাদের বাসভবনে এলে তাদের প্রতিহত করার হুমকি দিচ্ছেন।

পার্টির যুগ্ম মহাসচিব হাসিবুল ইসলাম জয় বলেন, ‘বিগত দুই সপ্তাহ যাবত পার্টির মাঝে ঘাপটি মারা থাকা কুচক্রীরা পার্টিকে অস্থিতিশীল করে তোলার চেষ্টা করছেন। ভেবে দেখতে হবে এদের উৎপত্তি কোথায় থেকে। যারা ষড়যন্ত্র করছেন তারা এক সময় বিএনপি থেকে এ পার্টিতে এসেছেন। এদের মাঝে কেউ কেউ এরশাদের বুকে ছুরিকাঘাত করে চলে গিয়ে আবার ফিরে এসেছেন। সরকারের কাছে অনুরোধ, সরকারি সুযোগ-সুবিধা নিয়ে যেন জাপার ভাঙার মিশনে কেউ যেন লিপ্ত না হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘জাপাকে ভেঙে বিএনপি-জামায়াত জোটের মিশন বাস্তবায়ন করতে চায়। ’

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ এপ্রিল ২০১৯/নঈমুদ্দীন/সাইফুল

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge