ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বাটলারকে ‘মানকড়’ আউট করে সমালোচনায় বিদ্ধ অশ্বিন

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২৬ ১১:৫৪:১১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৩-২৬ ৩:৩৭:০০ পিএম
আইপিএলের শুরুতেই বিতর্কের জন্ম দিয়েছে এই ঘটনা
Walton AC 10% Discount

ক্রীড়া ডেস্ক : রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে জয় দিয়ে আইপিএল শুরু করেছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। কিন্তু ম্যাচের ফল ছাপিয়ে এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে জস বাটলারকে পাঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ‘মানকড়’ আউট করার ঘটনা। আর ‘ক্রিকেটীয় চেতনা পরিপন্থী’ এই কাজের জন্য সমালোচনার তিরে বিদ্ধ অশ্বিন।

সোমবার রাতে জয়পুরে রাজস্থানের ইনিংসের ১৩তম ওভারের পঞ্চম বলের ঘটনা এটি। ১৮৫ রান তাড়ায় তখন রাজস্থানের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১০৮ রান। ৪২ বলে ৬৯ রান করে রাজস্থানকে বেশ ভালোভাবেই ম্যাচে রেখেছেন বাটলার। অশ্বিন বল করার আগে ক্রিজ ছেড়ে কিছুটা বেরিয়ে যান নন স্ট্রাইকে থাকা ইংলিশ ব্যাটসম্যান। বল না করে স্টাম্প ভেঙে দেন অশ্বিন। ঘটনার আকস্মিকতায় তখন হতভম্ব বাটলার। টিভি আম্পায়ার দেন আউট।

নিয়ম বলছে, বোলিং করার মুহূর্তে যদি ব্যাটসম্যান ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যান, তাহলে আউট করা যাবে। কিন্তু টিভি রিপ্লেতে দেখা গেছে, অশ্বিন বল ছোড়ার ভঙ্গি করার সময়ও বাটলার ক্রিজেই ছিলেন। অশ্বিন কিছুটা অপেক্ষা করায় বাটলার ক্রিজ ছেড়ে সামনের দিকে এগিয়ে গেছেন, এরপরই স্টাম্প ভেঙেছেন অশ্বিন।



সেই ঘটনার পরই টুইটারে শুরু হয়ে যায় প্রতিক্রিয়ার জোয়ার। ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক এউইন মরগান টুইট করেছেন, ‘যা দেখলাম, বিশ্বাসই করতে পারছি না। নতুন প্রজন্মের ক্রিকেটারদের জন্য বাজে উদাহরণ তৈরি হলো। অশ্বিন এটার জন্য অনুতপ্ত হবে।’

আরেক ইংলিশ ক্রিকেটার জেসন রয়ের টুইট, ‘অশ্বিন, জঘন্য আচরণ। এর চেয়ে হতাশাজনক কিছু হতে পারে না।’ দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইন টুইটারে লিখেছেন, ‘ক্রিকেটীয় চেতনার কোনো সম্মানই অশ্বিনের জন্য প্রাপ্য নয়।’

প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ কাইফের টুইট, ‘হয়তো নিয়মের মধ্যে থেকেই অশ্বিন আউট করেছে। কিন্তু ওর একবার বাটলারকে সতর্ক করা উচিত ছিল। খুবই বিস্মিত।’ কাইফ আরো লিখেছেন, ‘অশ্বিন এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচেও এই ঘটনা ঘটিয়েছিল। শেবাগ সেই আবেদন পরে ফিরিয়ে নিয়েছিল।’



অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন টুইটারে অশ্বিনকে ট্যাগ করে লিখেছেন, ‘একজন অধিনায়ক ও একজন ব্যক্তি হিসেবে খুবই হতাশাজনক। আইপিএলের সব অধিনায়ক ক্রিকেটীয় চেতনা নিয়ে খেলতে সম্মত হন। অশ্বিনের বল ডেলিভারি করার কোনো ইচ্ছেই ছিল না। এটাকে ডেড বল দেওয়া উচিত ছিল। বিসিসিআইকে বলব, এটা আইপিএলের জন্য ভালো দিক নয়।’

প্রাক্তন নিউজিল্যান্ড অলরাউন্ডার স্কট স্টাইরিস যদিও এখানে ব্যাটসম্যান বা বোলার কারও দোষ দেখছেন না, ‘বাটলার-অশ্বিনের বিতর্কের বিষয়ে আমার মতামত হলো, এটা না বাটলারের দোষ, না অশ্বিনের দোষ। অশ্বিন আবেদন করার অধিকার রাখে। আমার মনে হয়, টিভি আম্পায়ার ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। এটাকে ডেড বল ঘোষণা করে খেলা চালিয়ে যেতে পারতেন।’

কিন্তু যিনি কাজটা করেছেন, সেই অশ্বিনের প্রতিক্রিয়া কী? ম্যাচ শেষে অশ্বিন বলেছেন, ‘দেখুন, এটা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার ছিল। আমার দৃষ্টিকোণ থেকে এটা স্বাভাবিক ছিল। আগে থেকে কখনোই পরিকল্পনা ছিল না। এটা তো ক্রিকেটের নিয়মের ভেতরেই আছে। আমি বুঝতে পারছি না এখানে ক্রিকেটীয় চেতনার কথা কেন আসছে!’




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ মার্চ ২০১৯/পরাগ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge