ঢাকা     সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৯ ১৪৩১

রিয়াদে মহান শহিদ দিবস পালিত

কূটনৈতিক প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৪, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
রিয়াদে মহান শহিদ দিবস পালিত

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দূতাবাসের মিলনায়তনে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, কূটনীতিক ও সৌদি কর্মকর্তাদের নিয়ে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

রিয়াদস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। বিশেষ অতিথি বক্তব্য দেন জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক মোহাম্মদ আল জারকানি, কূটনৈতিক কোরের ডিন জিবুতির রাষ্ট্রদূত দায়া আদদীন সাঈদ বামাখারামা, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত ক্রিস্টফি ফারনড, সৌদি আরবের শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বিজ্ঞানবিষয়ক জাতীয় কমিশনের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল হানি মানসি এবং ওআইসির রাজনীতিবিষয়ক সহকারী মহাসচিব ইউসেফ আল দুবেহ।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে বীর শহিদদের আত্মত্যাগের কথা উল্লেখ করে মাতৃভাষা বাংলাকে রক্ষার বিষয়ে বাঙালি জাতির অবদানের কথা বিদেশিদের কাছে তুলে ধরেন। তিনি বলেন, দিবসটি পৃথিবীর ইতিহাসে মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতে সংগ্রাম ও ভাষার অধিকার আদায়ের উজ্জলতম দৃষ্টান্ত। 

ভাষা আন্দোলনে ও মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান তুলে ধরেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, দ্রুতই পৃথিবী থেকে বিভিন্ন ভাষা হারিয়ে যাচ্ছে, সাথে সাথে হারিয়ে যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। বাংলাদেশ সরকার মাতৃভাষা রক্ষার্থে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এবং বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য তাদের মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করেছে। 

মাতৃভাষা রক্ষায় দেশ-কাল ভেদে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

অনুষ্ঠানে বক্তারা মাতৃভাষায় শিক্ষার ওপর জোর দেন। পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষাভাষী জনগোষ্ঠীর নিজ নিজ ভাষায় শিক্ষা গ্রহণ এবং নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন তারা। প্রত্যেককে নিজ নিজ ভাষা চর্চা বৃদ্ধির মাধ্যমে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য তুলে ধরার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য বজায় রাখার আহ্বান জানান বক্তারা। ভাষার বৈচিত্র্য যেকোনো দেশের জন্য গর্বের বিষয় বলে অভিমত ব্যক্ত করেন তারা। ২১ ফ্রেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি আদায়ে অবদান রাখায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেন অতিথিরা।

অনুষ্ঠানে রিয়াদস্থ বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নৃত্য পরিবেশন করে। এ সময় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে একটি তথ্যচিত্র ও ১২টি ভাষায় একুশে ফেব্রুয়ারির গান পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে ১০ জন রাষ্ট্রদূতসহ ৪০ জন কূটনীতিক যোগ দেন।

দিবসটি উপলক্ষে দিনের শুরুতে দূতাবাস চত্বরে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। এর পর রাষ্ট্রদূত দূতাবাসের কর্মকর্তাদের নিয়ে শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। রিয়াদস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

আলোচনা সভায় রাষ্ট্রদূত প্রবাসে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে বাংলা ভাষা ও বাংলা সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করে দেওয়ার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আশা ব্যক্ত করেন, নতুন প্রজন্মকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের সঙ্গে পরিচয় করে দেওয়া ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী ও তার জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহণে উৎসাহিত করতে প্রবাসীরা ভূমিকা রাখবেন।

অনুষ্ঠানে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। এছাড়া, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও ভাষা আন্দোলন‘ শিরোনামে একটি তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। 

দূতাবাসের কাউন্সেলর মো. বেলাল হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন—প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী এম আর মাহবুব, অধ্যাপক মো. নুরুন্নবী, শাহজাহান চঞ্চল প্রমুখ। এছাড়া, মিশন উপ-প্রধান মো. আবুল হাসান মৃধা বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভা শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া করা হয়।

হাসান/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়