RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭ ||  ১৩ রজব ১৪৪২

এমসি কলেজে ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৪, ২৪ জানুয়ারি ২০২১  
এমসি কলেজে ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় ৮ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি। সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য বুধবার (২৭ জানুয়ারি) পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে সিলেটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হক এ দিন ধার্য করেন। একই সঙ্গে আদালত মামলার আসামি ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমান ও শাহ মাহবুবুর রহমান রনির জামিনের আবেদনও নামঞ্জুর করেন।

অন্য আসামিরা হলেন মাহফুজুর রহমান মাসুম, অর্জুন লস্কর, রবিউল ইসলাম, তারেক, রাজন ও তার সহযোগী আইনুল। গত ১৭ জানুয়ারি আলোচিত এ মামলার অভিযোগপত্র গঠন করেন আদালত।  পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য রোববার দিন ধার্য করেন। এজন্য ৮ আসামিকে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে হাজির করা হয়। তবে বাদীপক্ষের আইনজীবী আদালতে দাখিলকৃত ধর্ষণ ও চাঁদাবাজির পৃথক অভিযোগপত্রের শুনানি একই দিনে চলমান রাখার আবেদন করলে, আদালত তা নামঞ্জুর করে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউর (পিপি) রাশিদা সাঈদা খানম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের কথা ছিল।  তবে এ ঘটনায় পুলিশ দুটি পৃথক অভিযোগপত্র দাখিল করে। এর একটি হচ্ছে চাঁদাবাজি এবং অন্যটি ধর্ষণের ঘটনার। তবে দুই অভিযোগপত্রেই আসামি একই। বাদীপক্ষ এ দুই মামলার কার্যক্রম এক আদালতে চলমান রাখার আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করে দেন।

বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শহীদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আদালতে পৃথক দুটি অভিযোগপত্র (চাঁদাবাজি ও ধর্ষণ) দাখিল করে শাহপরাণ থানা পুলিশ। এই দুটি অভিযোগপত্রের আসামিরাও একই। একই দিন আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রবাসে স্বামীকে আটকে রেখে নববধূকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।  ঘটনার রাতেই নির্যাতিতার স্বামী বাদী হয়ে এসএমপি শাহপরান থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।

নোমান/সাইফ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়