ঢাকা     সোমবার   ০৩ অক্টোবর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৮ ১৪২৯ ||  ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

গাংনীতে ছাত্রলীগ-বিএনপির ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

মেহেরপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৫৫, ১৩ আগস্ট ২০২২  
গাংনীতে ছাত্রলীগ-বিএনপির ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

মেহেরপুরের গাংনীতে ছাত্রলীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও বিএনপি অফিসের সাইনবোর্ড ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। শনিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে গাংনী বাসস্ট্যান্ড থেকে উত্তেজনা শুরু হয়।

গাংনী উপজেলা ও কলেজ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গাংনী সরকারি ডিগ্রি কলেজ থেকে দুপুর ১টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে বিএনপি-জামায়াত বিরোধী স্লোগান দিয়ে গাংনী বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছায়। এ সময় বিএনপি অফিসে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। এক পর্যায়ে বাসস্ট্যান্ডে শহীদ রেজাউল চত্ত্বরে সমাবেশ করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এ সময় বিএনপির গুটি কয়েক নেতাকর্মী রামদা নিয়ে তাদের তাড়া দেয়। এতে ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। পরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সংগঠিত হয়ে লাঠিসোঁটা নিয়ে বিএনপি অফিসে হামলা করে। পুলিশের উপস্থিতিতে বিএনপি অফিসের সাইনবোর্ড ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

গাংনী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন মেঘলা বলেন, বিএনপি কার্যালয়ে কিছু নেতা-কর্মী বসেছিলেন। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মিছিল থেকে গিয়ে বিএনপির কার্যালয়ে অতর্কিত হামলা চালায় এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে| পরে বিএনপির নেতা-কর্মী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের পাল্টা ধাওয়া করলে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পরে আবারও তারা বিএনপি অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

ছাত্রলীগের গাংনী উপজেলা সভাপতি আমিরুল ইসলাম সেন্টু বলেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশের জামাত-বিএনপি'র নৈরাজ্য প্রতিহত করার জন্য বিক্ষোভ মিছিল করে গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগ। এ সময় গাংনী বাসস্ট্যান্ড শহীদ রেজাউল চত্বরে মিছিল পৌঁছালে বিএনপি'র নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা করে। এর তীব্র প্রতিবাদ জানান তিনি।

মেহেরপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মহাসিন/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়