ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৯ ||  ০২ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

চাঁদাবাজি ও অপহরণের মামলায় শ্রমিক লীগ নেতা গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:১৪, ১৬ আগস্ট ২০২২  
চাঁদাবাজি ও অপহরণের মামলায় শ্রমিক লীগ নেতা গ্রেপ্তার

গ্রেপ্তার শ্রমিক লীগ নেতা সেলিম আহমদ

চাঁদাবাজি ও অপহরণের ঘটনায় সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি সেলিম আহমদকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। পরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

মঙ্গলবার (১৬ আগষ্ট ) ভোরের দিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের হাসননগরের বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

এর আগে একই অভিযোগে তার চাচাতো ভাই মুর্শেদ আলমকেও পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

তাহিরপুর থানায় দায়ের হওয়া মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, বুধবার (১১ আগষ্ট) রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাহিরপুরের সংসার হাওরের জেটি থেকে অস্ত্র দেখিয়ে তিন ব্যক্তিকে অপহরণ করা হয়। পরে ১৪ থেকে ১৫ জনের সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্র তাদের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পাওয়ায় সেখানে রাতভর ব্যবসায়ীদের শারীরিক নির্যাতন করা হয়। পরবর্তীতে অপহরণকারী চক্র ব্যবসায়ীসহ তিন ব্যক্তিকে ছেড়ে দেয়। এরপর অপহরণের শিকার সুনামগঞ্জ পৌর শহরের হাসননগর এলাকার ওলিউর রহমান বাদী হয়ে মোর্শেদ ও তার অপর তিন সহোদরসহ সাত জনের নাম উল্লেখ করে এবং নাম না জানা ৭ থেকে ৮ জনকে আসামি করে তাহিরপুর থানায় চাঁদাবাজি ও অপহরণ মামলা করেন। 

পরে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে তাহিরপুরের লাউড়েরগড় সাহিদাবাদ থেকে মোর্শেদকে গ্রেপ্তার করে। এরই ধারাবাহিকতায় মোর্শেদের চাচাতো ভাই শ্রমিক লীগের সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি সেলিম আহমদকে ভোরে ডিবি পুলিশ ও সদর থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার সেলিম আহমদের ভাই নিজাম উদ্দিন বলেন, ‘আমার ভাই সম্পূর্ণ নির্দোষ, তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার।’ 

সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘অপহরণ ও চাঁদাবাজির মামলায় সেলিম আহমদকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’ 

আল আমিন/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়