ঢাকা     সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৯ ||  ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

প্রকৃত খুনিদের আড়াল করতে ভিডিও বার্তা দেন হাসিম: পুলিশ 

কক্সবাজার প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:০১, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৩:২২, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
প্রকৃত খুনিদের আড়াল করতে ভিডিও বার্তা দেন হাসিম: পুলিশ 

ভিডিও বার্তায় রোহিঙ্গা নেতাদের হত্যার বর্ণনা দেওয়া মো. হাসিম

কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৪ মাঝিকে (নেতা) খুনের দায় স্বীকার করা যুবক মো. হাসিম দীর্ঘদিন ধরে ক্যাম্প থেকে নিখোঁজ রয়েছে। ভিডিও বার্তায় হাসিম প্রকৃত খুনিদের আড়াল করতে মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছেন বলে দাবি করছে পুলিশ। 

এপিবিএন পুলিশ বলছে, তিনি (হাসিম) যদি অনুতপ্ত হতো তবে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পন করে দায় স্বীকার করতো। মূলত তিনি প্রকৃত খুনিদের আড়াল করতে ভিডিও বার্তায় মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে।

মো. হাসিমের বাবা আব্দুল জব্বার বলেন, ‘সে (মো. হাসিম) সন্ত্রাসী হয়ে গেছে। আমাদের সঙ্গে তার দীর্ঘদিন যোগাযোগ নেই। সে নিখোঁজ রয়েছে। ভিডিও বার্তায় যেসব তথ্য প্রকাশ করেছে তা সম্পূর্ন মিথ্যা। তাকে হয়তো কেউ জিম্মি করে কথাগুলো বের করে ভিডিও প্রকাশ করেছে।’ তিনি তার ছেলে হাসিমকে আইনের আওতায় আনারও দাবি জানান।

এবিষয়ে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দায়িত্বরত ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সহাকরী পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে থাক হাসিমের নিজস্ব আইডি থেকে ভিডিওটি প্রকাশ হয়নি। যে দুটি আইডি থেকে ভিডিও প্রকাশ হয়েছে সেগুলোও সন্দেহজনক। এসব আইডি যারা চালায় তারাও দুষ্কৃতিকারী হিসেবে আমরা খেয়াল করেছি।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘ক্যাম্প-১৮ তে হাসিমের পরিবার বসবাস করেন তা সঠিক। তার পরিবার ও নিকট আত্মীয়রা জানায়, তিন (হাসিম) গত কয়েক মাস ধরে বাইরে অবস্থান করছে। ক্যাম্পের প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে অথবা কারো প্ররোচনায় পড়ে হাসিম এ ধরনের অপপ্রচার চালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’ 

রোহিঙ্গা যুবক মো. হাসিম যদি অনুশোচনা প্রকাশ করে ভিডিও প্রকাশ করতো তাহলে তার হাতে পিস্তল থাকতো না। হাসিমকে আইনের আওতায় এনে প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা অব্যাহত আছে। একই সঙ্গে ক্যাম্পের সব দুষ্কৃতিকারীদের আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন তৎপর রয়েছে বলেও দাবি করেন এপিবিএন সহকারী পুলিশ সুপার। 

গত বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৪ মাঝিকে (নেতা) কীভাবে এবং কার ইন্ধনে খুন করা হয়েছে তা এক ভিডিও বার্তায় বর্ণনা দিয়েছিলেন হাসিম (২১) নামের রোহিঙ্গা যুবক।  রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৪ নেতা খুনের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও আকারে প্রকাশ করলে তা ভাইরাল হয়।

তারেকুর/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়