ঢাকা     শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২০ ১৪২৯

বৃদ্ধ বাবা-মাকে কুপিয়ে হাসপাতালে পাঠালো ছেলে 

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:২২, ৭ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১০:২৪, ৭ ডিসেম্বর ২০২২
বৃদ্ধ বাবা-মাকে কুপিয়ে হাসপাতালে পাঠালো ছেলে 

যশোরের অভয়নগরে তুচ্ছ ঘটনায় বৃদ্ধ বাবা-মাকে মারধরের পর কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে ছেলে মাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকেই তিনি পালাতক রয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

আহতরা হলেন- লক্ষীপুর গ্রামের মৃত রহমান সরদারের ছেলে বারেক সরদার (৮৩) ও তার স্ত্রী আছিয়া বেগম (৬৮)। 

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন বৃদ্ধ বাবা বারেক সরদার বলেন, ‘জমিজমা ও বৈদ্যুতিক মিটার বসানোকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সকালে বড় ছেলে মফিজুর রহমানের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মফিজুর ক্ষিপ্ত হয়ে একটি বাঁশের লাঠি দিয়ে আমাকে মারধর করতে শুরু করে। পরে সে আমার মাথায় আঘাত করে। এসময় আমার স্ত্রী এগিয়ে আসলে মাফিজুর তার মাকেও মারধর ও গাছি দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘এক পর্যায়ে আমাদের চিৎকার শুনে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসেন। এসময় মাফিজুর পালিয়ে যায়।’

আহত বারেক সরদারের ছোট ছেলে আজিজুর রহমান বলেন, ‘বড় ভাইকে ধরতে গেলে তিনি আমাকেও মারেন। পরে বিষয়টি অভয়নগর থানাকে জানানো হয়।’

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শোভন বিশ্বাস জানান, মাথায় ও শরীরে আঘাতপ্রাপ্ত দুইজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উভয়ের মাথায় সেলাই দিতে হয়েছে। তাদের ২৪ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। 

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত ছেলে মফিজুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা  করা হলে তাকে বাড়িতে বা এলাকায় খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। 

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শামীম হাসান বলেন, ‘বৃদ্ধ বাবা-মায়ের উপর হামলাকারী ছেলে মফিজুর রহমানের খোঁজ চলছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।’

রিটন/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়