ঢাকা     রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

ধানক্ষেতে ইঁদুর দমনে পাতা বৈদ্যুতিক ফাঁদে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

ঝালকাঠি প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৩৬, ২৩ মার্চ ২০২৩   আপডেট: ১০:০১, ২৩ মার্চ ২০২৩
ধানক্ষেতে ইঁদুর দমনে পাতা বৈদ্যুতিক ফাঁদে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

ঝালকাঠির নলছিটিতে ধানক্ষেতে ইঁদুর দমনে পাতা বৈদ্যুতিক ফাঁদে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।  

নিহত শিক্ষার্থীর নাম জাহিদুল খান (১১)। সে নান্দিকাঠি এলাকার রিপন খান'র ছেলে। স্থানীয় আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করতো। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ইঁদুর নিধনের জন্য আগে থেকেই ধানের ক্ষেতে বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে রেখেছিলেন ক্ষেতমালিক সুমন হোসেন।

নিহতের পরিবার এবং প্রত্যাক্ষদর্শী সহপাঠিরা  জানায়, বুধবার রাতে বাড়ির কাছে শীতলপাড়া নামক এলাকায় মাছ মারতে যায় জাহিদুল। মাছের ঘেরের পাশেই ছিলো ওখানকার সুমন হোসেনের ইরি ধানের ক্ষেত। ক্ষেতের ধান ইদুরে যাতে নষ্ট না করে সেজন্য সুমন বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে রেখেছিলেন। মাছমারার এক পর্যায়ে ঘের সংলগ্ন সুমনের ধানের ক্ষেতে ঢুকে যায় জাহিদুল। এসময় বৈদ্যুতিক ফাঁদে পা পড়ে জাহিদুলের। আর এতেই মৃত্যু হয় তার। 

জাহিদের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান।

স্থানীয় বাসিন্দা অভি হাওলাদার বলেন, ঘটনা বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে। মাছ মারার সময় জাহিদুল খানের সাথে ওর বয়সী আরও কয়েকটি ছেলে ছিলো। তারা জাহিদকে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ছটফট করতে দেখে দৌড়ে বাড়িতে গিয়ে খবর দেয়। এরপর বাড়ির লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। ততক্ষণে জাহিদুলের দেহ নিথর হয়ে যায়।

ঘটনার পরে রাত ১০ টার দিকে বিক্ষুব্ধ জনতা ও শিক্ষার্থীরা ধানক্ষেতের মালিক সুমন হোসেনের বসত ঘরে হামলা চালায়।  পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে এবং জাহিদুলের মরদেহটি নলছিটি থানায় নিয়ে যায়।

নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মু. আতাউর রহমান মুঠোফোনে বলেন, ধানক্ষেতে বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। মরদেহটি বুধবার রাতেই পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। একই সাথে নিহতের অভিভাবকদের সাথে কথা বলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অলোক/টিপু

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়