ঢাকা     রোববার   ২১ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৮ ১৪৩১

আধা ঘণ্টায় তফিজুল পেলেন ৩৯ নতুন রিকশা কেনার প্রস্তাব

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১০, ১ এপ্রিল ২০২৩   আপডেট: ১৩:২৩, ১ এপ্রিল ২০২৩
আধা ঘণ্টায় তফিজুল পেলেন ৩৯ নতুন রিকশা কেনার প্রস্তাব

তফিজুলকে নতুন রিশার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন স্থানীয় ব্যবসায়ী সৌরভ

ঠাকুরগাঁওয়ের রিকশা চালক তফিজুল ইসলাম। প্রতিদিনের ন্যায় রিকশা রেখে একটি হাসপাতালের নিচে যান আছরের নামাজ আদায়ে। পরে সেখান থেকে বাইরে এসে দেখেন তাঁর রিকশাটি আর নেই। আয়ের একমাত্র অবলম্বন হারিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তফিজুল। পরে তার সেই কান্নার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। এর আধা ঘণ্টার মধ্যেই ৩৯ জন হৃদয়বান ব্যক্তি তফিজুলকে নতুন রিকশা কিনে দেওয়ার প্রস্তাব নিয়ে যোগাযোগ করেন। 

শুক্রবার (৩১ মার্চ) বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তফিজুলের রিকশা হারানোর পর কান্নাকাটির ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে পোষ্ট করেন স্থানীয় সাংবাদিক তানভীর হাসান তানু। এরপর থেকেই সেই সাংবাদিক ও রিকশা চালকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে শুরু করেন সমাজের মানবিক মানুষরা। আধা ঘণ্টায় ৩৯ জন ব্যক্তি তফিজুলকে নতুন রিকশা কিনে দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন। 

তফিজুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ ইউনিয়নের দিঘিয়া পারকুন্ডা গ্রামের বাসিন্দা। 

রাইজিংবিডিকে তফিজুল জানান, তিনি রিকশা চালান। সংসারে তার চারটি মেয়ে রয়েছে। দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। এখন সংসারে স্ত্রীসহ  দুই মেয়ে রয়েছে। এই সংসারে একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তি তিনি। লোনে কেনা রিকশাটি চুরি হওয়ায় ভেঙে পড়েছিলেন তিনি।

তফিজুল বলেন, আজ (গতকাল) আছরের নামাজ পড়তে রিকশা রেখে রেখে একটি হাসপাতালের নিচতলার মসজিদে যাই। সেখান থেকে বের হয়ে দেখি রিকশাটি নেই। আয়ের অবলম্বন হারিয়ে আমি কান্নায় ভেঙে পড়ি।

রিকশা কিনে দিতে চেয়েও সুযোগ না পাওয়া সামসুজ্জোহা জানান, সমাজে ভালো মানুষ আর নেই, এ যেনো আমাদের নিত্য প্রবাদ হয়ে দাড়িয়েছে। তবে এখনও সমাজের একটি বড় অংশই যে মানবিক, তার প্রামণ পাওয়া গেলো রিকশা চুরির একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে।

ঘটনাটি ফেসবুকে শেয়ার করা ব্যক্তি সাংবাদিক তানু বলেন, ঘটনাটি ঠিক আমার বাসার সামনেই ঘটেছে। আমি বাসা থেকে বের হলে তফিজুলকে কান্না করতে দেখি। বিষয়টি দেখে আমার খুবই খারাপ লাগে। চার কন্যার জনক একজন রিকশা চালকের পরিস্থিতি খুবই দুঃখজনক ছিলো। ভেবেছিলাম ফেসবুকে প্রচার করে কিছু টাকা সংগ্রহ করে তফিজুলকে একটি রিকশা কিনে দেওয়ার। কিন্তু ভিডিওটি পোষ্ট করার আধা ঘণ্টায় আমাদের সঙ্গে ৩৯ জন যোগাযোগ করেন তফজুলকে রিকশা কিনে দেওয়ার আগ্রহ নিয়ে। বিষয়টি আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। তবে সবার আগে যোগাযোগ করার কারণে স্থানীয় ব্যবসায়ী সৌরভের মাধ্যমে তফিজুলকে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

স্থানীয় ব্যবসায়ী সৌরভ বলেন, ইফতার করার মুহূর্তে আমি ফেসবুকে একটি পোষ্ট দেখতে পাই। সেখানে এক রিকশা চালককে কান্নাকাটি করতে দেখি। বিষয়টি আমাকে নাড়া দেয়। তাই তৎক্ষনিক আমি সাংবাদিক তনুর সঙ্গে যোগাযোগ করে ওই চালককে রিকশার ব্যবস্থা করে দেই। রিকশাটি আজ শনিবার (১ এপ্রিল) বিকেলে হস্তান্তর করা হবে। 

তিনি আরও বলেন, শুনেছি অনেকেই সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসতে চেয়েছিলেন। আসলে এটি আমাদের সমাজের মানবিকতার উদাহরণ। এমন মহৎ কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পেরে খুবই ভালো লাগছে।

মঈনুদ্দীন/ মাসুদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়