ঢাকা     শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||  চৈত্র ৩০ ১৪৩০

লক্ষ্মীপুর-২:

প্রতীক পেলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৩৬, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩  
প্রতীক পেলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন

উচ্চ আদালতে আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়া লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্রী প্রার্থী এএফ জসিম উদ্দিন আহমেদকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান তাকে ‘ট্রাক’ প্রতীক বরাদ্দ দেন।

প্রার্থী ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানা যায়, গত ৩ ডিসেম্বর লক্ষ্মীপুর-২ আসনের প্রার্থিতা যাছাই-বাছাইয়ের শেষ দিন ছিল। ওইদিন মনোনয়ন ফরমের তৃতীয় পাতা অসম্পূর্ণ ও দুইজন ভোটার সমর্থন না করায় জসিম উদ্দিনের মনোয়ন বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরে জসিম উদ্দিন নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন। সেখানে তার আবেদন নামঞ্জুর হয়। এরপর তিনি উচ্চ আদালতে যান। গতকাল রোববার (২৪ ডিসেম্বর) উচ্চ আদালত জসিম উদ্দিনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করেন। 

স্বতন্ত্র জসিম উদ্দিন আমরা ক'জন মুজিব সেনা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। তিনি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার টুমচর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামের বাসিন্দা। 

স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন আহমেদ বলেন, রায়পুর উপজেলা ও পৌরসভাসহ সদরের ৯ টি ইউনিয়ন নিয়ে লক্ষ্মীপুর-২ আসন গঠিত। এ আসনটি অবহেলিত থেকে গেছে। অনেকেই এখানে এমপি হয়েছেন। কিন্তু মৌলিক উন্নয়ন হয়নি এখানে। বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত অবকাঠামোগুলো অবহেলিত রয়ে গেছে। আসনটিতে মৌলিক পরিবর্তন চায় জনগণ। আমি নির্বাচিত হলে মৌলিক উন্নয়নে কাজ করবো। উপকূলীয় অঞ্চলে কৃষিখাত নিয়ে ব্যাপক উন্নয়নের সুযোগ রয়েছে। এ অঞ্চলে প্রায় ১০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার উদ্যোগ নেবো। 

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুর-২ আসনে নৌকার প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন। এখানে নয়নের স্ত্রী রুবিনা ইয়াছমিন লুবনা ‘তরমুজ’ প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র নির্বাচন করবেন। তবে, এখনো তার পক্ষে কোনো প্রচার-প্রচারণা দেখা যায়নি। লক্ষ্মীপুর-২ আসনে অন্য প্রার্থীরা হলেন- জাতীয় পার্টির বোরহান উদ্দিন আহমেদ (লাঙল), জাসদের মো. আমীর হোসেন (মশাল), তৃণমূল বিএনপির আব্দুল্লাহ আল মাসুদ (পাট), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির জহির হোসেন (একতারা), বাংলাদেশ কংগ্রেস জোটের মো. মনসুর রহমান (ডাব), ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের মো. মোরশেদ আলম (চেয়ার), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মো. শরিফুল ইসলাম (মোমবাতি), মুক্তিজোটের মো. ইমাম উদ্দিন সুমন (ছড়ি), বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো: ফরহাদ মিয়া (হাত ঘড়ি) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সেলিনা ইসলাম (ঈগল)।

জাহাঙ্গীর/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়