ঢাকা     শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||  চৈত্র ৩০ ১৪৩০

তরুণ ভোটাররা বদলে দিতে পারে কুমিল্লার সব হিসেব-নিকেষ

কুমিল্লা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২২, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৯:০৭, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩
তরুণ ভোটাররা বদলে দিতে পারে কুমিল্লার সব হিসেব-নিকেষ

ছবি সংগৃহীত

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কুমিল্লার নতুন ভোটারদের উৎসাহ উদ্দীপনার যেন শেষ নেই। নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে এমন প্রত্যাশা শিক্ষা ও ঐতিহ্যের কুমিল্লার নতুন প্রজন্মের ভোটারদের।

তাদের ভোটে নির্বাচিতরা সংসদে গিয়ে দেশের উন্নয়ন আর মানুষের ভাগ্য বদলে দিবে এমনটি মনে করে তারা। প্রার্থীদের বয়স এবং যোগ্যতা নিয়েও নতুন ভোটারদের নিজস্ব মতামত রয়েছে।

এবার কুমিল্লা জেলার নতুন ১১টি সংসদীয় আসনে নতুন ভোটার বেড়েছে ৭ লাখের অধিক। ২০১৮ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনি তফসিল থেকে (নভেম্বর) পর্যন্ত কুমিল্লা জেলায় ভোটার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ২১ হাজার ৩৯৬ জন।

এদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কুমিল্লার হাট-বাজার, চায়ের দোকান থেকে শুরু করে পথে প্রান্তে নানা আলোচনা চলছে। নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনায় সরব নানা বয়সের ভোটাররা। তবে নির্বাচন নিয়ে নতুন প্রজন্মের ভোটারদের আগ্রহ সবচেয়ে বেশি।

কুমিল্লায় ১১টি আসনে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং স্বতন্ত্র মিলে মোট বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা ৯২ জন।

বিএনপিবিহীন এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথম যারা ভোট দেবেন তাদের মধ্যে এক ধরনের উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে ইতিহাসের সাক্ষী হতে চায় নতুন ভোটাররা। বর্তমান সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে তাদের প্রত্যাশার শেষ নেই।
জেলার শিক্ষা ব্যবস্থা, কারিগরি শিক্ষা ব্যবস্থা সময়োপযোগী করা, প্রাথমিক থেকে শিক্ষার মান বৃদ্ধিসহ বেকারত্ব ঘোচাতে কর্মসংস্থানের দাবি নতুন ভোটারদের। চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার দাবি তাদের।

এছাড়া এলাকার উন্নয়নের জন্য সড়ক যোগাযোগ, গোমতি নদীর ওপর সেতু নির্মাণ,আধুনিক কৃষি ব্যবস্থা গড়ে তোলা,  নদী-খাল পুনঃখনন, কৃষিক্ষেত্রে নতুন নতুন জাত উদ্ভাবন, কুমিল্লায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা এবং আরও নানা ধরনের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরেন তারা।

ভিক্টোরিয়া কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র ইমরান জানান, তরুণ প্রজন্মের প্রার্থীরা তার কাছে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। বয়োবৃদ্ধদের থেকে যুবকেরা সমাজে বেশি কাজ করতে পারে বলে মনে করেন তিনি। শিক্ষার বিষয়টি নিয়ে ভাববে এমন প্রার্থী তার পছন্দ।

একই কলেজের শিক্ষার্থী তাসলিমা জানান, প্রার্থীদের অবশ্যই উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। নানাভাবে তাদের সততার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এলাকাভিত্তিক পরিকল্পিত উন্নয়ন করতে হবে।

জেলা নির্বাচন অফিসের তথ্যমতে, ১১টি সংসদীয় আসনে ভোটার সংখ্যা ৪৫ লাখ ৮০ হাজার ৪৬৬ জন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ সংখ্যা ছিলো ৩৮ লাখ ৭৮ হাজার ৬০৪ জন। জেলায় এবার পুরুষ ভোটার ২৩ লাখ ৫১ হাজার ৭২৭ জন এবং নারী ভোটার ২২ লাখ ৩৫ হাজার ৭৯৮ জন।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুনীর হোসাইন খান বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এখনো পর্যন্ত ৭ লক্ষাধিক ভোটার বেড়েছে। নির্বাচনে এই সংখ্যা কম বেশি হতে পারে। কেউ মারা গেলে কিংবা নতুন ভোটার আরও অন্তর্ভুক্ত হলে তা পরিবর্তিত হবে।

রুবেল/ফয়সাল

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়