ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৮ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪৩১

৩৪ বছর পর বোনের খোঁজ মিললো পাকিস্তানে

রংপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৩০, ২০ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ২২:৩৩, ২০ এপ্রিল ২০২৪
৩৪ বছর পর বোনের খোঁজ মিললো পাকিস্তানে

সুফিয়া বিবি

নিখোঁজের ৩৪ বছর পর খোঁজ মিলল হারিয়ে যাওয়া সুফিয়া বিবির। বর্তমানে তিনি পাকিস্তানের ওমর উদ্দিন নামের একটি এলাকায় বসবাস করছেন। পরিবারের লোকজনও জানতেন মারা গেছেন সুফিয়া। হারিয়ে যাওয়া বোনকে দীর্ঘ তিন যুগ পর কাছে পেতে অপেক্ষা আর আকুতির যেন শেষ নেই অপর ১০ ভাই-বোনের।

গত ১৫ এপ্রিল ‘দেশে ফেরা’ নামে ফেসবুক আইডি থেকে হারিয়ে যাওয়া সুফিয়ার একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ করা হয়। পরে এটি ভাইরাল হলে সুফিয়ার স্বজনরা তাকে শনাক্ত করেন। সুফিয়ার বাড়ি রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের নাওপাড়া কাশীগঞ্জ গ্রামে। ওই গ্রামের চাঁন মামুদ ও শরিতন নেছা দম্পতির চতুর্থ মেয়ে সুফিয়া বিবি। হারিয়ে যাওয়ার সময় তার বয়স ছিল আনুমানিক ২০-২১ বছর।

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকালে উপজেলার কালীগঞ্জে সুফিয়ার বড় ভাই সহিদার রহমানের বাড়িতে গেলে স্বজনদের কাছে জানা যায়, ১৪ থেকে ১৫ বছর বয়সে পারিবারিকভাবে পাশের দামোদরপুর ইউনিয়নের সৌলারপাড় গ্রামের জব্বার মিয়ার সঙ্গে বিয়ে হয় সুফিয়ার। সংসারে জীবনে দুই সন্তানও ছিল তার। অভাবের তাড়নায় অভিমানে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন সুফিয়া। পরে স্বামী ও এক কন্যা সন্তানের মৃত্যু হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরেও সুফিয়ার কোনো সন্ধান পায়নি স্বজনরা। এক পর্যায়ে হাল ছেড়ে দেন তারা। অনেকেই মনে করেন সুফিয়া হয়ত মারা গেছেন।

কিন্তু দীর্ঘ তিন যুগ পর ‘দেশে ফেরা’ গ্রুপের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সুফিয়ার ভিডিওটি দৃষ্টি কাড়ে স্বজনদের। পরে যোগাযোগ হয় ‘দেশে ফেরা’ গ্রুপের সদস্যদের সাথে। তারাও সুফিয়ার স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে পরিচয় সনাক্তে নিশ্চিত হন। পরে ১৭ এপ্রিল ভিডিও কলে সুফিয়ার সাথে কথা বলে দেন স্বজনদের। এরপর কয়েক দফায় ভিডিও কলে দশ ভাই-বোনের সঙ্গে কথা হয় সুফিয়ার। কান্নায় ভেঙে পড়েন তারা।

পাকিস্তান থেকে বোন সুফিয়াকে দ্রুত ফিরিয়ে পেতে সরকারসহ মন্ত্রণালয়ের কাছে আকুতি জানান দেশে থাকা তার দশ-ভাই বোন। আর সহজ-সরল সুফিয়া কীভাবে দেশের সীমানা পেরিয়ে পাকিস্তানে- এমন প্রশ্নে ঘুরপাক খেলেও সন্ধান মেলায় খুশি এলাকাবাসী। সমস্ত প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন হয়ে ফের সুফিয়া ফিরে আসবে আপন নীড়ে- এমন প্রহর গুনছেন তারা।

এদিকে ‘দেশে ফেরা’ গ্রুপের সদস্য তানভির হাসান বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সদস্য নিয়ে আমাদের একটি সামাজিক সংগঠন আছে। মূলত যারা বিভিন্নভাবে এক দেশ থেকে অন্য দেশে গিয়ে নিখোঁজ বা পাচার হয়েছেন তাদের নিজ নিজ দেশের স্বজনদের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করে দেওয়ার ব্যবস্থা করে থাকি। দীর্ঘদিন ধরে আমরা এ নিয়ে কাজ করছি। হারিয়ে যাওয়া মানুষদের স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দেওয়াই হচ্ছে আমাদের লক্ষ্য।

তিনি আরও বলেন, এ পর্যন্ত ভারত পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ১১৬ জনকে আমরা স্বজনদের কাছে ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। তেমনি একজন সুফিয়া বিবির সম্পর্কে আমাদের কাছে খোঁজ আসে। বর্তমানে তিনি পাকিস্তানে রয়েছেন। পাকিস্তানে বসবাসরত বন্ধু মারুফ হুসাইন মূলত সুফিয়ার বিষয়ে আমাদের কাছ থেকে তথ্য জানতে চান। আমরা এটি ফেসবুকে ভাইরাল করলে তার স্বজনদের খোঁজ মেলে। এখন দুই পক্ষের মধ্যে যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দেওয়াই হচ্ছে আমাদের কাজ। পরে প্রশাসনের মাধ্যমে আইনগত পদক্ষেপ নিলে সুফিয়া দেশে স্বজনদের কাছে ফিরতে পারবেন।

তানভির হাসান বলেন, অনেক প্রতারক চক্র এরকম সুযোগ নিয়ে নিখোঁজের স্বজনদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেন। এ থেকে আমরা সকলকে সতর্ক করে দিই। আমরা কারো কাছ থেকে কোনো অর্থ সহায়তা নিই না।

তানভির হাসান আরও বলেন, বুধবার বিকেল চারটায় সুফিয়ার সঙ্গে তার পরিবারের মধ্যে ভিডিও কলের মাধ্যমে যোগাযোগ করানো হয়। তারা চাইলে দুই দেশের দূতাবাসের মাধ্যমে আইনগত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তাকে ফেরত নিতে পারবেন।

সুফিয়া বিবির বড় ভাই সহিদার রহমান বলেন, কষ্টের সংসারে অভাবের তাড়নায় আমার বোন নিরুদ্দেশ হয়েছিল। সেই সময় অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে আমরা পায়নি। হঠাৎ ফেসবুকে তার সন্ধান পেয়েছি এজন্য মহান আল্লাহর কাছে লাখো কোটি শুকরিয়া। কয়েক দফায় বোনের সাথে ভিডিও কলে আমরা ১০ ভাই-বোনসহ অন্য সদস্যরা কথা বলেছি। আমাদের সকলকে চিনেছেন সুফিয়া। সে আমাদের কাছে আসতে ব্যাকুল। আর আমরাও বোনকে দ্রুত সশরীরে ফিরে পেতে চাই। এজন্য সরকারের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছি।

মধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আলম ভুট্টু বলেন, বিষয়টি আমি জেনেছি। আমরাও চাই সুফিয়া নিজ দেশে স্বজনদের কাছে ফিরে আসুক। এখন সুফিয়ার স্বজনরা যে ধরনের সহযোগিতা চাইবে তা করা হবে।

৯০ দশকে নিখোঁজ হওয়া সুফিয়া বিবির এই দীর্ঘ সময়ের নিখোঁজে চিরবিদায় নিয়েছে পিতা চান মিয়া, স্বামী জব্বার আর আদরের এক কন্যা সন্তানও। দীর্ঘ সূত্রিতা নয় সীমানার আইনে প্রক্রিয়া মানবিক দৃষ্টিতে বিবেচনা করে সহজ সত্ত্বে ফিরে আসবে সুফিয়া- এমনটাই দাবি তার পরিবারের।

আমিরুল/এনএইচ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়