ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

কুড়িগ্রামে শিশুকে হত্যা করলো চাচি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:০৩, ৩০ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৯:০৪, ৩০ এপ্রিল ২০২৪
কুড়িগ্রামে শিশুকে হত্যা করলো চাচি

কুড়িগ্রামে তরকারি কাটার বটি দিয়ে দুলালী খাতুন দিশা নামে আড়াই বছরের এক শিশুর দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে চাচির বিরুদ্ধে। ঘটনার পরপরই অভিযুক্তকে কামনা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) দুপুরে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছী ইউনিয়নের ছত্রপুর মাষ্টার পাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। 

স্থানীয়রা জানান, বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে তরকারি কাটার বটি দিয়ে ঘরের ভেতর দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করে দিশাকে হত্যা করেন তার চাচি কামনা। পরে তিনি ঘরের দরজা শিকল লাগিয়ে পালিয়ে যান। শিশুটির মা বাড়িতে এসে দরজা খুলতেই সন্তানের লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা আসেন। লাশের পাশে রক্তমাখা বটি পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে পুলিশ এসে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে লাশ নিয়ে যায়।

নিহত দিশার মা শাবনুর জানান, নদীতে গোসল করিয়ে মেয়েকে বাড়িতে পাঠান তিনি। বাড়িতে ফিরে ঘরের দরজা খুলতেই সন্তান লাশ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার শুরু করেন তিনি। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে বড় ভাসুরের স্ত্রী কামনা বেগম এ ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে গেছেন বলেও জানান তিনি। 

কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদ্য পুলিশ সুপারে পদন্নতি প্রাপ্ত) রুহুল আমিন বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর একই বাড়িতে বসবাসকারী নিহত শিশুর বড় চাচি সাইদুরের স্ত্রী কামনা বেগমকে আটক করা হয়েছে। অভিযুক্ত মানসিক ভারসাম্যহীন কী না তা ডাক্তারি পরীক্ষার পর তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আটকের সময় ওই নারীর ব্যবহৃত রক্ত মাখা জামা জব্দ করা হয়েছে।

বাদশাহ/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ