Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮ ||  ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

ডিএসই: লেনদেনে বিনিয়োগকারীদের ভোগান্তি  

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২০, ২১ এপ্রিল ২০২১  
ডিএসই: লেনদেনে বিনিয়োগকারীদের ভোগান্তি  

লকডাউনের মধ্যে সীমিত পরিসরে দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন চলছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে যখন অনলাইনে লেনদেন বিনিয়োগকারীদের প্রধান ভরসা তখন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ডিএসই অ্যাপে সমস্যা দেখা দিয়েছে। এ কারণে বিনিয়োগকারীদের শেয়ার লেনদেনে বিঘ্ন ঘটে। 

বুধবার (২১ এপ্রিল) আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কম হয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিনিয়োগকারীরা জানান, বুধবার শেয়ার বাই-সেল অর্ডার সময় মতো হয়নি।  অ্যাপে ছিল ধীর গতি। ফলে বিনিয়োগকারীরা শেয়ার লেনদেনের সেল-বাই অর্ডার সমন্বয় করতে পারেনি ডিএসই মোবাইল অ্যাপ। তাছাড়া বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বাই করার জন্য ব্রোকারেজ হাউজগুলো থেকে যে লিমিট দেওয়া হয় সেটাও সময়মতো পায়নি বিনিয়োগকারীরা। তাতে লেনদেন ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে তাদের। ফলে বাজারে আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কম হয়েছে বলে মনে করেন বিনিয়োগকারীরা।

তারা বলছেন, মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারে সকালে কখনো সেন্ডার ফেইল, রং অ্যাকাউন্ট আইডি, প্লিজ চেকে ইউথ ব্রোকার সাপোর্ট, নো ট্রেডিং ইউথ টাইমিং এ ধরনের রিজেকশন ম্যাসেজ আসে।  কখনও কখনও মোবাইল অ্যাপ ওপেন হলেও সময়মতো স্ক্রিনে সবকিছু আসে না। কোনো শেয়ারের নাম আসলে পরিমাণ বা মূল্য দেখায় না।  অনেক সময় ব্যালান্স দেখাতে বেশ সময় নেয়।  এছাড়া ইন্টারনেট কানেকশন ঠিক থাকলেও প্রায়শই বাম্পিং হয় এবং পূর্ণ স্ক্রিন দেখতে অনেক সময় লাগে, যা বিরক্তির জন্ম দেয়। বুধবার অ্যাপে লেনদেন করতে গিয়ে সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করে।

এ সম্পর্কে পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক রাইজিংবিডিকে বলেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই ডিএসই অ্যাপে সমস্যা হচ্ছে। আজ এ সমস্যা প্রকট আকার ধারন করেছে। ফলে বিনিয়োগকারীরা সময় মতো শেয়ার বাই সেল দিতে পারেনি। এতে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। যার প্রভাব পড়েছে লেনদেনে।

তিনি বলেন, সমস্যাটি যাতে বার বার না হয় তাই ডিএসইর আইটি বিভাগকে রি-অর্গানাইজড করা উচিত। একই সঙ্গে এ বিষয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

এদিকে ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, লকডাউনে এক সঙ্গে অনলাইনে বাই সেল অর্ডার আসায় বেশি চাপ পড়ছে সার্ভারে। ফলে এ ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। তবে বিনিয়োগকারীদেরকে সকাল ১০টার মধ্যে সিস্টেমে লক ইন করার জন্য অনুরোধ করেছে ডিএসই। তাতে এ ধরনের সমস্যা থাকবে না বলেও বিনিয়োগকারীদের আশ্বস্ত করেছে ডিএসই।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, লকডাউনের মধ্যে অনলাইনে, মোবাইল অ্যাপই বিনিয়োগকারীদের লেনদেনের একমাত্র অবলম্বন।  সেখানে মোবাইল অ্যাপের সমস্যা রয়েই গেছে। ইদানিং এ সমস্যা আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। ডিএসই মোবাইল অ্যাপ সকাল ১০ থেকে সোয়া ১০ টা পর্যন্ত প্রায় প্রতিদিনই ওপেন করতে সমস্যায় পড়ছে বিনিয়োগকারীরা।

পুজিবাজারের উন্নয়নে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন অনেক নতুন নতুন পদক্ষেপ নিচ্ছে যা প্রশংসার দাবি রাখে। কিন্তু বর্তমানে যুগ অটোমেশনের যুগ, এ যুগ ডিজিটালের যুগ। আগামী দশককে এই অটোমেশন বা ডিজিটালের ধারা আমাদের কোন উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারে তা আজকেই ভাবতে হবে এবং সেভাবে এখনই পরিকল্পনা নিতে হবে।  শুধু কথা বা বক্তৃতা না দিয়ে সাহসী এবং উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে।

এনএফ/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়