RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১০ ১৪২৭ ||  ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রিয়েল লাইফে যেমন ছিলেন দিলদার

প্রকাশিত: ১৬:৩৮, ১৩ জানুয়ারি ২০২১  
রিয়েল লাইফে যেমন ছিলেন দিলদার

ঢাকাই চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি কৌতুক অভিনেতা দিলদার। পর্দায় তিনি উপস্থিত হলেই দর্শকের মাঝে হাসির রোল পড়ে যায়। কৌতুক অভিনেতা হিসেবে তিনি এতটাই সফল ছিলেন যে, তার জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে তাকে কেন্দ্র করে সিনেমার গল্প লেখা হয়েছে। এই কৌতুক অভিনেতা সব রেকর্ড ভেঙে নায়কের চরিত্রেও অভিনয় করেছেন। ১৩ জানুয়ারি এই অভিনেতার জন্মদিন। বিশেষ এই দিনে এখনো তার ভক্তরা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

পর্দায় দর্শক হাসিয়েছেন কিন্তু কিংবদন্তি এই অভিনেতা বাস্তব জীবনে কেমন ছিলেন, তা হয়তো তার ভক্তদের অজানা। এ বিষয়ে দিলদারের ছোট মেয়ে জিনিয়া আফরোজ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আব্বা বাস্তবে পর্দার ঠিক উল্টো ছিলেন। বাস্তবে তাকে আমরা সবাই ভয় পেতাম। এমনকি আমার দাদিও আব্বাকে ভয় পেতেন। খুব রাগি ছিলেন। কিন্তু পরিবারের সবাইকে ভালোবাসতেন। একবার আমার ছেলের জ্বর হওয়ার কারণে শুটিং প্যাকআপ করে দিয়েছিলেন আব্বা।’

১৯৪৫ সালের ১৩ জানুয়ারি চাঁদপুরে জন্মগ্রহণ করেন দিলদার। এসএসসি পাস করার পর পড়াশোনা বাদ দেন এই অভিনয়শিল্পী। ১৯৭২ সালে ‘কেন এমন হয়’ সিনেমার মাধ্যমে অভিনয় জীবন শুরু করেন তিনি। এরপর চলচ্চিত্রে সুদীর্ঘ ক্যারিয়ার গড়েন। ‘বেদের মেয়ে জোসনা’, ‘বিক্ষোভ’, ‘অন্তরে অন্তরে’, ‘কন্যাদান’, ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’, ‘শুধু তুমি’, ‘স্বপ্নের নায়ক’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘অজান্তে’, ‘প্রিয়জন’, ‘প্রাণের চেয়ে প্রিয়’, ‘নাচনেওয়ালী’সহ অসংখ্য সিনেমা উপর দেন তিনি।

কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘তুমি শুধু আমার’ সিনেমার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন দিলদার। দিলদারের স্ত্রী রোকেয়া বেগম। এই দম্পতির দুই কন্যা সন্তান। বড় মেয়ের নাম মাসুমা আক্তার। ছোট মেয়ে জিনিয়া আফরোজ। ২০০৩ সালের ১৩ জুলাই লাখ ভক্তকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এই অভিনয়শিল্পী।

ঢাকা/রাহাত সাইফুল/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়