Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৮ ||  ১৯ সফর ১৪৪৩

বন্ধুকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ ফেরদৌস ওয়াহিদ

প্রকাশিত: ০০:৪২, ২৪ জুলাই ২০২১   আপডেট: ০১:৫৭, ২৪ জুলাই ২০২১
বন্ধুকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ ফেরদৌস ওয়াহিদ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে অনন্তকালের পথে চলে গেলেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দসৈনিক, গণসঙ্গীতশিল্পী ফকির আলমগীর। তাঁর মৃত্যুতে সঙ্গীত অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সত্তরের দশকে বাংলা পপসংগীতের চার খলিফা বলা হতো আজম খান, ফকির আলমগীর, ফেরদৌস ওয়াহিদ ও ফিরোজ সাঁইকে। এদের তিনজনই আজ আর বেঁচে নেই। ফেরদৌস ওয়াহিদ বেঁচে আছেন।  ফকির আলমগীরের সঙ্গে ফেরদৌস ওয়াহিদের বন্ধুত্ব দীর্ঘদিনের। 

বন্ধুর মৃত্যুতে ভাষাহীন হয়ে পড়েছেন ফেরদৌস ওয়াহিদ। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘প্রায় পঞ্চাশ বছরের বন্ধুত্ব আমাদের। কিছুক্ষণ আগে হার্ট অ্যাটাকের খবর পেলাম। আর এখন শুনতে হলো মৃত্যুর খবর। কোথায়, কখন সমাহিত করা হবে কিছুই জানি না।'

তিনি আরো বলেন, ‘সর্বশেষ একমাস আগে তার সঙ্গে আমার কথা হয়। তাও মোবাইল ফোনে। অসুস্থ হওয়ার পরে কথা হয়নি। পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে খবর নিতাম। অসংখ্য স্মৃতি আমাদের। এই মুহূর্তে এত শত স্মৃতি কী করে বলবো? বলার সময় এটা নয়। শুধু এতটুকুই বলবো তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। তিনি যেন জান্নাতবাসি হন।'

শুক্রবার রাত ১০টার দিকে রাজধানীর বেসরকারি এক হাসপাতালে কোভিড ইউনিটে ভেন্টিলেশনে থাকা অবস্থায় ফকির আলমগীরের হার্ট অ্যাটাক হয়। রাত ১০টা ৫৬ মিনিটে তিনি মারা যান।

এর আগে গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীরের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছিল।

কয়েক দিন আগে তার করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। হঠাৎ অবস্থার অবনতি হলে গত ১৫ জুলাই রাতে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ফকির আলমগীরকে।

ফকির আলমগীর গণসংগীত পরিবেশন করে ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। একাত্তরের শব্দসৈনিক হিসেবে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রেও তিনি ছিলেন। শুধু তাই নয়, অস্ত্র হাতে শত্রুর বিরুদ্ধে সম্মুখযুদ্ধে লড়াই করেছেন এই শিল্পী।

ঢাকা/রাহাত সাইফুল/তারা

সর্বশেষ