ঢাকা     শনিবার   ২৫ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

পরিণীতি চোপড়ার কান্না থামছে না!

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৪৭, ১৬ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ০৯:১৬, ১৬ এপ্রিল ২০২৪
পরিণীতি চোপড়ার কান্না থামছে না!

পরিণীতি চোপড়া

‘লেডিস ভার্সেস রিকি বাহল’ সিনেমায় পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল পরিণীতি চোপড়ার। তাও প্রায় এক দশক পেরিয়ে যাচ্ছে। এই লম্বা সময়ের ক্যারিয়ারে একের পর এক সিনেমায় অভিনয় করেছেন পরিণীতি। কিন্তু কোনো সিনেমা বক্স অফিসে তেমন ব্যবসা করতে পারছিলো না। এতে অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন পরিণীতি। সম্প্রতি তার ভাগ্যের চাকা ঘুরেছে। আর এতেই কান্না থামছেনা এই নায়িকার!

স্থানীয় গণমাধ্যমসূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালে যশরাজ ফিল্মসের প্রযোজনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘ইশকজাদে’।  ওই সিনেমাতেই মুখ্যচরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান পরিণীতি। নবাগত অর্জুন কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধেছিলেন এই নায়িকা। এই সিনেমা ভালো ব্যবসা করতে না পারলেও একাধিক পুরষ্কার জিতে নিয়ে আলোচনায় চলে আসেন পরিণীতি চোপড়া। তারপর তাকে দেখা গেছে ‘শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স’, ‘হাসে তো ফাঁসে’র মতো রোম্যান্টিক ঘরানার সিনেমায়। পরিণীতি চোপড়ার ক্যারিয়ারে এই সিনেমা দুটি ভালো ব্যবসা করলেও ২০১৪ সাল থেকে তার ক্যারিয়ারের গ্রাফ নিম্নমুখী হতে শুরু করে। পরপর ছবি ব্যর্থ হওয়ায় মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন পরিণীতি। গানকে পেশা হিসেবে বেছে নেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু সেখানেও সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে। তবে ‘চমকিলা’ মুক্তি পেতেই যেন ঘুরে গেল ভাগ্যের চাকা। পাঞ্জাবি গায়ক ‘অমর সিংহ চমকিলা’কে নিয়ে তৈরি হয়েছে এই জীবনীভিত্তিক সিনেমা। ১২ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে নেটফ্লিক্সে। মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ। সিনেমাতে গায়কের স্ত্রী অমরজোৎ কউরের চরিত্রে দেখা গিয়েছে পরিণীতিকে। 

ঞ্জাবি গায়ক ‘অমর সিংহ চমকিলা’কে নিয়ে তৈরি হয়েছে এই জীবনীভিত্তিক সিনেমা।উল্লেখ্য, আশির দশকে পঞ্জাবের জনপ্রিয় গায়ক ছিলেন অমর সিংহ ওরফে চমকিলা। মাত্র ২৭ বছর বয়সে ভরা আসরে আততায়ীদের হাতে খুন হন তিনি ও তার স্ত্রী। এমনই এক চরিত্রকে নিয়ে ছবি করেছেন পরিচালক ইমতিয়াজ আলি। সেই সিনেমাতে গায়কের স্ত্রীর চরিত্রে নজর কেড়েছেন পরিণীতি। সমালোচক থেকে দর্শক, সবার প্রশংসা কুড়াচ্ছে এই ছবি। তবে অনেকেরই ধারণা, পরিণীতির যেন প্রত্যাবর্তন হলো এই সিনেমার মাধ্যমে।

পরিণীতি সমালোচকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘হ্যাঁ আমি ফিরে এসেছি, আর কোথাও যাচ্ছি না।’

এই অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন, গান নির্ভর এই সিনেমা অভিনয় করতে রাজি হয়েছিলেন গান গাওয়ার সুযোগ আছে বলেই।  সবার প্রশংসা ও রিভিউ পেয়ে তিনি আপ্লুত। কান্না থামছে না তার। অবশ্যই তা খুশির অশ্রু।

/লিপি

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়