Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ৬ ১৪২৮ ||  ০৬ জিলক্বদ ১৪৪২

ই-কমার্সে পিনন হাদি

শিরীন সুলতানা অরুনা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:১৮, ২৭ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২৩:০০, ২৭ এপ্রিল ২০২১
ই-কমার্সে পিনন হাদি

পিনন হাদির কথা শুনলেই মনে ভেসে উঠে পার্বত্য এলাকার চাকমা সম্প্রদায়ের নারীদের ঐতিহ্য ও আভিজাত্যের প্রতীক অনন্য এক পোষাক। আদিবাসী নারীরা তাদের ঐতিহ্যের অংশ হিসাবে পিনন হাদি পোষাক পরিধান করে থাকেন। পিনন ও হাদি দুটি আলাদা অংশ। নীচের অংশকে বলে ‘পিনন’ আর উপরের অংশের পোষাকের নাম ‘হাদি’।

বর্তমান সময়ে এই পিনন হাদির চাহিদা বেড়েছে। পিনন হাদি যে শুধু পাহাড়ি নারীরা পছন্দ করে তা কিন্তু নয়, সমতলের বাঙালি  নারীরাও পিনন হাদি পছন্দ করে। যার ফলে ই-কমার্সে এর কদর বেড়েছে বহুগুণ।

ই-কমার্সের সুবাদে পাহাড়ের এই পিনন হাদি পৌঁছে যাচ্ছে দেশের সব জায়গায়। এমনকি বিদেশেও পাড়ি জমাচ্ছে। আর এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন পার্বত্য এলাকার শত শত নারী। তাদের সহযোগিতায় রয়েছে বাংলাদেশের দেশি পণ্যের সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম উই (উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরাম)।

পিনন হাদি ব্যবসায় জড়িত কয়েকজন নারী জানান এই পণ্যের আদ্যপান্ত–

সুর্পনা তঞ্চঙ্গ‍্যা (স্বত্ত্বাধিকারী, কাঞ্চি ফ‍্যাশন হাউজ)
গত বছরে প্রায় ৪ লাখ টাকার পিনন হাদি বিক্রি করতে পেরেছি। ই-কমার্সের মাধ্যমে রাঙামাটি ছাড়াও অন্যান্য জেলার মানুষও কিনতে পারছে পিনন হাদি। এরফলে ঘরে বসে কেনাকাটায় আগ্রহী হয়ে ওঠছে অনেকেই। বিশেষ করে সময় বাঁচাতে ই-কমার্সের  ভূমিকা অপরিসীম।

হেনা চাকমা (স্বত্ত্বাধিকারী, চাবুগীফ্যাশন)
ই-কমার্সের মাধ্যমেই আমি বেশির ভাগ পণ্য বিক্রি করতে পেরেছি। পিনন হাদি তিন পার্বত্য জেলাতে বেশি বিক্রি হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রামেও এর চাহিদা ব্যাপক। ইদানিং পিনন হাদির প্রতি ইন্টারেস্ট বেড়েছে। গত একবছরে প্রায় আড়াই লাখ টাকার পিনন হাদি বিক্রি করেছি।

পিংকি চাকমা (স্বত্ত্বাধিকারী, পিংকিজ ওয়ার্ল্ড)
মূলত আমার মা একজন দক্ষ বেইন কর্মী। তাই আমি বেশি সাহস ও উৎসাহ পেয়েছি পিনন হাদি নিয়ে কাজ করার। তবে অনলাইনে যথেষ্ট সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি।  যেমন মাঝে মধ্যে ছবি তোলার সময় কালার সেইম না হওয়া। আমাদের সমাজে প্রায় বয়স্ক মহিলারা বুননে পারদর্শী। বুনন সবার নিখুঁত আর পরিশ্রমের হলেও, একজনের বুনন একরকম হয় না। একই ডিজাইন হলেও কোয়ালিটি ও বুনন আলাদা হয়, একদম হাতের কাজের মত। এ পর্যন্ত অনলাইনেই লক্ষাধিক টাকার পিনন হাদি বিক্রি হয়েছে।

সুকেশী চাকমা (স্বত্ত্বাধিকারী, কালারস)
আমার বেশির ভাগ পিনন হাদি অনলাইনেই বিক্রি হয়। আধুনিকতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে পিনন হাদি নিত্য নতুন ডিজাইনে তৈরি হচ্ছে। তেমনি এর চাহিদাও দিন দিন বেড়ে চলছে। ই-কমার্সের কারণে দেশ ও বিদেশের মানুষ আমাদের ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারছে। ফলে আমার পিনন হাদিগুলো শুধু এ দেশে নয় বিদেশেও পৌঁছে যাচ্ছে। 

কুহেলী চাকমা (স্বত্ত্বাধিকারী, উদোন্দী)
অনেকেই দূরে থাকায় দেখেশুনে পিনন হাদি নিতে পারেন না।  তবে বর্তমানে ই-কমার্সের মাধ্যমে একজন উদ্যোক্তা ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করতে পারছে। আমার পেজ থেকে রেয়ন সিল্ক, সুতি ও মাসলাইয়ের পিনন হাদিই বেশি বিক্রি করেছি।

রিনা চাকমা (স্বত্ত্বাধিকারী, রিবেঙ)    
ব্যবসার শুরুর দিকে অনলাইনে বিয়ের কনের এক সেট পিনোন হাদির অর্ডার পেয়েছিলাম। মনে সাহস নিয়ে কাজটি সম্পন্ন করার আগ্রহ পেলাম।  সুন্দর ও আকর্ষণীয় ডিজাইনে বানাতে মনপ্রানে চেষ্টা করেছি।  সত্যি বলতে এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অল্প সময়ে ই-কমার্স উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে পেরেছিলাম।

মৌটুসী কর্মকার তুসু (স্বত্ত্বাধিকারী, তুসুজ কালেকশন)
আমার লক্ষ্য ছিল আমার জেলার ঐতিহ্যবাহী পোশাক পিনন হাদিকে দেশের প্রতিটি জেলাতে পরিচিতি করানো। আমি আমার ইচ্ছা ও লক্ষ্য পূরণ করতে পেরেছি। যা সম্ভব হয়েছে ই-কমার্সের মাধ্যমে। বিশ্বের দরবারে ঐতিহ্যবাহী পিনন হাদি পৌঁছানোর লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।  পিনন হাদি নিয়ে আমার নিজের ডিজাইন করা পোশাকও সবার সামনে তুলে ধরতে চাই।

রোকসানা আক্তার (স্বত্ত্বাধিকারী, উড়াল)   
রাঙামাটি ছাড়া অন্যান্য অঞ্চলের মানুষের কাছে পিনন হাদি সম্পূর্ণ নতুন একটি পোশাক। পিনন হাদির প্রচার করতে গিয়ে বুঝতে পারি অনেকে এর নামই জানে না। তাই পিনন হাদি নিয়ে প্রচুর পরিমাণে কন্টেন্ট লেখায় মনযোগী হই। এতে করে আমার পেজের পণ্যের বিক্রিও বেড়েছে ।

নাজমা আক্তার (স্বত্ত্বাধিকারী, লালপাহাড়ি)
বিগত এক বছর আগেও পার্বত্য অঞ্চলের মানুষ ছাড়া পিনন হাদি সম্পর্কে তেমন কেউ জানতো না। ই-কমার্সের হাত ধরে এখন পিনন হাদি পৌঁছে যাচ্ছে দেশ থেকে বিদেশে। অনলাইনে ক্রেতারা তাদের পরিবারের জন্য ম্যাচিং করে অর্ডার করেন এই পোশাক। অনেকেই যখন এর প্রসংশা করেন, তখন পার্বত্য এলাকার পিনন হাদি শিল্পের সঙ্গে জড়িত যারা তাদের কর্মের স্পৃহা আরও বৃদ্ধি পায়।

লেখক : স্বত্ত্বাধিকারী, এসএস এগ্রো প্রোডাক্ট

রাঙামাটি/সিনথিয়া

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়