Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৮ ||  ২০ রবিউস সানি ১৪৪৩

‘সহকারী অধ‌্যাপক রুমার ভিডিও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অন্তরায় ছিল’

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০৯, ২১ অক্টোবর ২০২১  
‘সহকারী অধ‌্যাপক রুমার ভিডিও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অন্তরায় ছিল’

দেশের সাম্প্রতিক প্রেক্ষাপটে নাজুক পরিস্থিতিতে বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রুমা সরকারের লাইভ ভিডিওটি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে গুজব ও ভয়ভীতি ছড়াতে সাহায্য করে বলে মন্তব‌্য করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রমনা মডেল থানার সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মো. শফিকুল ইসলাম সহকারী অধ‌্যাপক রুমা সরকারকে আদালতে হাজির করে সংশ্লিষ্ট থানায় দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। সেসময় একথা বলেন তিনি।

এদিন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ-উর-রহমানের আদালত শুনানি শেষে রুমা সরকারের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, রুমা সরকার সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নোয়াখালীর যতন সাহার হত্যার শিরোনামে একটি অন্য ঘটনার ভিডিও আপলোড করে কিছু স্বার্থান্বেষী মহল কর্তৃক গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বিনষ্টের অপপ্রয়াস চালান। যা বিভ্রান্তিমূলক। 

প্রকৃতপক্ষে ভিডিওটি গত ১৬ মে বিকেল চারটার সময় ঢাকার পল্লবী থানাধীনডি-ব্লকের শাহিন উদ্দিন নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার ভিডিও। এসময় সনাতন ধম্বালম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজায় সহিংসতাকে কেন্দ্র করে সারাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ঘটনা ঘটানো হচ্ছিল। দেশের এই সময়ে এ ধরনের স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে রুমা সরকার গত ১৯ অক্টোবর দুপুর ২টা ৩৫ মিনিট থেকে ২টা ৪২ মিনিট পর্যন্ত ফেসবুক লাইভে আসেন। 

সেখানে তিনি বলেন, ‘আমি ভুল করে যতন সাহার মৃত্যুর দৃশ্য দেখে ফেলেছিলাম। গরুর মাংস যেভাবে কুপিয়ে বানায়, আহা হিন্দুদের প্রতি তোর এত ক্ষোভ। তোরা অমানুষ, হত্যার পর এইভাবে কুপালি ক্যান?’ 

দেশের সাম্প্রতিক প্রেক্ষাপটে নাজুক পরিস্থিতিতে তার লাইভ ভিডিওটি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে গুজব ও ভয়ভীতি ছড়াতে সাহায্য করে।

আবেদনে বলা হয়, প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় রুমা সরকার রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি বা সুনাম বিনষ্ট করার অভিপ্রায়ে ফেসবুকে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে, মিথ্যা অপপ্রচার, হিন্দু সম্প্রদায়কে উস্কানীমূলক বক্তব্য প্রদান দেশে বিরাজমান পরিস্থিতিতে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিল।

কী উদ্দেশ্যে, কার ইন্ধনে, কোন পরিকল্পনাকে সামনে রেখে কার পরামর্শে ফেসবুক লাইভে এ ভিডিওর মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়েছে তা যাচাই এবং ওই ঘটনার অন্য কোনো গভীর ষড়যন্ত্র লুকিয়ে আছে কি না তা উদঘাটনের লক্ষ্যে রুমা সরকারের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আসামির পক্ষে অ্যাডভোকেট লিটন কুমার সাহা, সুব্রত বিশ্বাস (শুভ্র) রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে এর বিরোধীতা করা হয়।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রুমা সরকারের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বলে জানান সংশ্লিষ্ট থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এসআই নিজাম উদ্দিন ফকির। 

এরআগে ১৯ অক্টোবর বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রাজধানীর বেইলি রোডের বাসা থেকে রুমা সরকারকে আটক করে র‌্যাব-৩। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে র‌্যাব তার বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা দায়ের করে।

ঢাকা/মামুন/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়