ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৮ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪৩১

কলেজছাত্রীর মৃত্যু: স্বামীকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৫২, ৯ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৬:০১, ৯ এপ্রিল ২০২৪
কলেজছাত্রীর মৃত্যু: স্বামীকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

ঢাকা উদ্যান সরকারি কলেজের এক ছাত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মামলায় স্বামী রায়হানুল হক মুগ্ধর রিমান্ড ও জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে যে কোনো দুই দিন তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) ঢাকার অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবুল হকের আদালত এ আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদাবর থানার সাব-ইন্সপেক্টর সাহেরা খানম আসামিকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। আসামির পক্ষে তার আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। বাদীপক্ষ এর বিরোধিতা করেন।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড ও জামিনের আবেদন নাকচ করে তাকে দুই দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।

আদাবর থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার সাব-ইন্সপেক্টর হেলাল উদ্দিন এ তথ্য জানান।

জানা গেছে, ওই ছাত্রীর সঙ্গে মুগ্ধর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রায় ৯ মাস আগে তাদের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই মুগ্ধ ও তার পরিবারের সঙ্গে আদাবরের মোহাম্মদীয়া হাউজিং সোসাইটির একটি বাসায় থাকতেন ওই ছাত্রী। মুগ্ধর শ্বশুরের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পরিবারের লোকজনসহ মুগ্ধ তার মেয়েকে মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছিল। গত ৭ এপ্রিল বিকেলে মুগ্ধর আত্মীয় জহিরুল ইসলাম নান্টু ওই ছাত্রীর বাবাকে ফোনে জানায়, তার মেয়ে ৬ এপ্রিল বাসায় ওড়না প্যাঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার লাশ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আছে।

খবর শুনে ভোলার চরফ্যাশন থেকে আত্মীয়-স্বজন নিয়ে ঢাকা আসেন হেলাল উদ্দিন। পরে হাসপাতালে এসে মেয়ের লাশ দেখতে পান তিনি। তার অভিযোগ, মুগ্ধ এবং তার পরিবারের সদস্যদের শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার সইতে না পেরে মেয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ ঘটনায় হেলাল উদ্দিন ৮ এপ্রিল আদাবর থানায় মুগ্ধ, তার বাবা জহিরুল হক, মা মাহমুদা খানম ডলি, তানজিলা হক মীম ও জহিরুল হক নান্টুর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।
 

মামুন/এনএইচ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়