ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রিয়া সাহার এনজিও অফিস বন্ধ, চেনেন না দলিতরা

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২০ ৩:৫৫:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-২০ ৭:০৮:০৩ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ সংখ্যালঘু গুম হওয়ার তথ্য জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে নালিশকারী প্রিয় বালা বিশ্বাস ওরফে প্রিয়া সাহার এনজিও অফিস বন্ধ রয়েছে।

প্রিয়া সাহার ‘সেলফ-হেলপ অ্যাসোসিয়েশন ফর রুরাল পিপল থ্রো এডুকেশন অ্যান্ড এন্টারপ্রেনরশীপ’ (শারি) নামের এনজিওর নির্বাহী পরিচালক। এনজিওটি দলিত শ্রেণির মানুষদের জীবনমান উন্নয়ন ও মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করে বলে তাদের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে। ১৯৯৯ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

রাজধানীর অভিজাত এলাকা ধানমন্ডির ৪ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাড়িতে দ্বিতীয় তলায় গিয়ে দেখা গেছে, তার এনজিও অফিস বন্ধ। ভবনের তত্বাবধায়ক জানান, সাধারণত শুক্র ও শনিবার তাদের অফিস বন্ধ থাকে। তবে বিশেষ প্রয়োজনে শনিবার তাদের কেউ অফিসে আসে। আজ কেউ আসেনি।

এদিকে ধানমন্ডি, হাজারিবাগে দলিত শ্রেণির কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে তারা শারি নামে কোনো এনজিও চেনেন না।

রায়েরবাগ স্কুলের পাশে জুতা সেলাই করেন রমেন। তিনি বলেন, এই নামে কোনো এনজিও আমার কাছে আসেনি। যেহেতু আমাদের নিয়ে কাজ করলেতো তো আমার কাছেও আসার কথা, কিন্তু কোনদিন আসেনি।

ধানমন্ডি ৪ নম্বর রোডে বিভিন্ন বাসা থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করছিলেন দুজন। তারা বলেন, আমরা ওই বাড়ি থেকেও ময়লা আনি। কিন্তু জানতাম না সেখানে এনজিও আছে।

শারির ওয়েব সাইটে চারটি প্রকল্প দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে নেদারল্যান্ডসের  কেআইওসের অর্থায়নে ইম্পুভিং একসেস টু জাস্টিস অব দলিত কমিউনিটি থ্রো হিউম্যান অ্যান্ড ওমেন রাইটস এডুকেশন প্রকল্প (২০১২-২০১৫), ইউরোপীয় ইউনিয়ন, অক্সফাম গ্রেট ব্রিটেনের অর্থায়নে স্ট্রেন্থিং দ্য ভয়েস অব হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার টু প্রটেক্ট রাইটস অ্যান্ড এন্টাইটেলমেন্টস অব এথনিক মাইনরিটি (২০১৩-২০১৫), অক্সফাম গ্রেট ব্রিটেনের অর্থায়নে জাস্টিস ফর ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার সিস্টেম ইন বাংলাদেশ (২০১৩-২০১৫), নেটওয়ার্ক ফর ক্লাইমেট চেঞ্জ বাংলাদেশ, ফাউন্ডেড বাই ব্রিড ফর দ্য ওয়ার্ল্ডের অর্থায়নে অ্যাডভোকেসি টু এনহেনস জাস্টিস অর দ্য ক্লাইমেট ভালনারেবল পিপল ইন বাংলাদেশ (২০০৯- চলমান) প্রকল্প।

তবে তাদের ওয়েবসাইটে কাজের কোনো তথ্য দেয়া হয়নি। পাশাপাশি সেখানে বার্ষিক প্রতিবেদন ও সম্পদের কোনো তথ্য দেয়া হয়নি।

‘শারি’ নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, ইউএনডিপি বাংলাদেশ, ব্রিড ফর দ্য ওয়ার্ল্ড, মিসিরেওর, কেআইওস এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে কাজ করছে বলে তাদের ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ জুলাই ২০১৯/নূর/সাজেদ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন