Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭ ||  ১৫ রজব ১৪৪২

দুটি কেন্দ্র ছাড়া সবখানে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে: ইসি সচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৬, ১৬ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২০:৫৯, ১৬ জানুয়ারি ২০২১
দুটি কেন্দ্র ছাড়া সবখানে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে: ইসি সচিব

নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর (ফাইল ফটো)

আজ (১৬ জানুয়ারি) দেশের ৬০টি পৌরসভায় নির্বাচন হয়েছে। এসব পৌরসভায় দুটি কেন্দ্র ছাড়া সবখানে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে বলে দাবি করেছেন নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি অত্যন্ত ভালো। গণমাধ্যমে আপনারা দেখিয়েছেন যে, ভোটারদের উপস্থিতি ভালো ছিল। সকাল থেকে ভোটাররা সুশৃঙ্খলভাবে ভোট দিয়েছেন।’

ইসি সচিব বলেন, ‘বোয়ালমারী পৌরসভার একটি কেন্দ্রে দুপুর ১২টার পরে কিছু দুর্বৃত্ত হঠাৎ ঢুকে ব্যালট পেপার ছিনতাই করার চেষ্টা করেছে, বাক্স ভেঙেছে। যেহেতু বাক্সটা ভেঙে ফেলেছে, ব্যালট পেপার নিতে না পারলেও প্রিজাইডিং অফিসার ওই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করেছেন। কিশোরগঞ্জে দুর্বৃত্তরা ব‌্যালট বাক্স ছিনতাই করে নিয়ে যাচ্ছিল। প্রিজাইডিং অফিসার ওই কেন্দ্রেও ভোটগ্রহণ বন্ধ করেছেন। এ দুটি ছাড়া ৬০টি পৌরসভার সব কেন্দ্রে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভোট হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিছু দুষ্কৃতিকারী সব জায়গাতেই থাকে। তারা নির্বাচন ভণ্ডুল ও বিতর্কিত করার চেষ্টা করে। তাদের উদ্দেশ্যই থাকে যে, যাতে সুষ্ঠু নির্বাচন না হয়। সেটা ব্যর্থ করে দিয়েছি। আমরা বলব যে, নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং আপনাদের সহযোগিতায় অত্যন্ত সুন্দর নির্বাচন করা সম্ভব হয়েছে।’

ভোট পড়ার হার সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে এ পর্যন্ত যে তথ্য এসেছে, তাতে ইভিএমে সর্বোচ্চ ৮০ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে। সম্পূর্ণ রেজাল্ট আসলে তখন একজাক্ট ফিগারটা দিতে পারব। রাজশাহীর আড়ানী পৌরসভায় ইভিএমে ৮০ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে। কুলিয়ারচরে ইভিএমে সবচেয়ে কম ৫৫ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে। এসব তথ্য আরও আগে পাওয়া। এটা আরও বাড়বে। ব্যালটের ক্ষেত্রে রাজশাহীর বোয়ালমারীতে সর্বোচ্চ ৭৫ পার্সেন্ট, দিনাজপুরের সদরে সবচেয়ে কম ১৫ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে। এটা কিন্তু সর্বশেষ হিসাব নয়। ফলাফল পেলে আমরা চূড়ান্ত হিসাব বলতে পারব।’

এদিকে, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, ‘সব মিলিয়ে এই নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না।’ এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ‘নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ডেফিনেশন আপনারা ভালো করে জানেন। নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের, রাষ্ট্রযন্ত্রের। তারা সে আয়োজন করেছে। এখন যদি কেউ নির্বাচনে তার প্রতিনিধি না দেন বা নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করেন—ওনারা এটা বলতেই পারেন। ওনারা যদি নির্বাচনে না আসেন, সে ক্ষেত্রে তো কিছু করার নেই। হতে পারে, এটা ওই রাজনৈতিক দলের নির্বাচনী কৌশল।’

ঢাকা/হাসিবুল/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়