Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ১০ ১৪২৮ ||  ০৯ রমজান ১৪৪২

ব্রিক-এন্ড-ক্লিক মডেলে স্বাস্থ্যসেবায় বড় বিনিয়োগ পেলো প্রাভা হেলথ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৭:৪২, ৯ মার্চ ২০২১  
ব্রিক-এন্ড-ক্লিক মডেলে স্বাস্থ্যসেবায় বড় বিনিয়োগ পেলো প্রাভা হেলথ

ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবায় উদ্ভাবনী ব্রিক এন্ড ক্লিক মডেলের পরিধি বাড়ানোর সোমবার (৮ মার্চ) সিরিজ এ প্রাইম রাউন্ডের সফল সমাপ্তির ঘোষণা দিয়েছে প্রাভা হেলথ। বিনিয়োগের মোট পরিমান ১০ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার।   

এই বিনিয়োগ ব্যবস্থাপনায় বেশ কয়েকজন দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীর নাম উল্লেখ করা হয় প্রাভা হেলথের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে। 

এর মধ্যে রয়েছেন– কেকেআর গ্লোবাল ইন্সটিটিউটের চেয়ারম্যান ডেভিভ এইচ প্যাট্রিয়াস। যিনি আমেরিকার সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ওয়েলভিলের প্রতিষ্ঠাতা ইস্টার ডাইসন, সিঙ্গাপুরের এসটার ডিজিটাল হেলথ কেয়ারের উপদেষ্টা জিরেমি লিম, এসবিকে টেক ভেঞ্চারের প্রতিষ্ঠাতা সোনিয়া বশির কবীর, ইয়োরা হেলথের প্রধান নির্বাহী ড.  রুশিকা ফার্দান্দোপুল্লে এবং ওয়াক স্ট্রিট হেলথের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জিওফ প্রাইস।   

প্রতিষ্ঠানটির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিনিয়োগের প্রথম ধাপ– সিরিজ এ-তে প্রথাগত চিকিৎসাকেন্দ্র ভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবার বাইরে প্রযুক্তির ব্যবস্থাপনায় মানুষের হাতের নাগালে সাশ্রয়ী পরামর্শ সেবা মডেল দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকর্ষন করেছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।  

যেকোন স্টার্টআপ বা নবীন উদ্যোগের ক্ষেত্রে সিরিজ–এ বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানটির ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি এবং মুনাফা অর্জনের নিদর্শক হিসেবে গন্য হয়।   

বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি। গড় চিকিৎসকের পরামর্শ ৪৮ সেকেন্ডের কম। দেশটিতে কেবলমাত্র একটি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ল্যাব রয়েছে এবং বাজারে প্রচুর ওষুধ নকল। অনেক নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশগুলির মতো, কেবলমাত্র অ্যাক্সেসের অভাবের চেয়ে মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবার অ্যাক্সেসের অভাবে বেশি রোগী মারা যাচ্ছেন।

বিনিয়োগকারীদের ভাষ্য অনুযায়ী প্রাভা হেলথ বাংলাদেশের করোনা মহামারিকালিন স্বাস্থ্যখাতে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার মাধ্যমে সম্মুখভাগে অবদান রেখেছে এবং আগামীদিনের স্বাস্থ্য সেবাকে এগিয়ে নিচ্ছে।  

ব্রিক-এন্ড-ক্লিক স্বাস্থ্য সেবা প্লাটফর্মের মাধ্যমে সবার জন্য প্রাভার ডিজিটাল এবং উপস্থিতি স্বাস্থ্যসেবাকে হাতের মুঠোয় নিয়ে আসা হয়েছে। এই প্লাটফর্মে প্রযুক্তি এবং প্রচলিত স্বাস্থ্যসেবার সমন্বয়ের পাশাপাশি উন্নত সেবা প্রদানের জন্য রোগী প্রতি চিকিৎসকদের পরামর্শকাল ১৫ মিনিটে বৃদ্ধি করা হয়েছে যা উন্নয়নশীল দেশে অনন্য।

প্রাভার প্রতিষ্ঠাতা ও  প্রধান নির্বাহী সিলভিয়া সিনহা বলেন, প্রযুক্তি এবং প্রচলিত সেবার সমন্বয়ে রোগীদের সম্মানের সাথে সেবা প্রদানের মাধ্যমে রেখে প্রাভা হেলথ বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবাকে এগিয়ে নিচ্ছে।

তিনি বলেন স্বাস্থ্যসেবাতে অ্যাক্সেস যথেষ্ট নয়- গুণমানই জীবন বাঁচায়, ‘আমি একটি শীর্ষ বেসরকারি হাসপাতালে আমার মায়ের সাথে উদ্বেগজনক অভিজ্ঞতার পরে প্রাভা শুরু করতে বাংলাদেশে চলে এসেছি। ক্যান্সারে আক্রান্ত অন্যান্য আত্মীয়দের ভুলভাবে নির্ণয় করা হয়েছিল।

প্রকৃতপক্ষে, হাজার হাজার বাংলাদেশি প্রতিটি দিনই বিদেশে ভ্রমণ করে এমন স্বাস্থ্যসেবা খোঁজেন যেগুলিতে তারা বিশ্বাস করতে পারে। এই অভিজ্ঞতাগুলি আমাকে লক্ষ লক্ষ লোক সম্পর্কে অবাক করে দিয়েছিল যাদের বিদেশে চিকিৎসা করার সুযোগ নেই। বাংলাদেশি স্থানীয় বিশ্বমানের, সাশ্রয়ী মূল্যের স্বাস্থ্যসেবার অ্যাক্সেসের যোগ্য যা তাদের সাথে মর্যাদার সাথে আচরণ করে। প্রাভা রোগীদের জন্য, আপনি যে স্বাস্থ্যসেবা বিশ্বাস করতে পারেন তা অবশেষে- যে কোনও সময়, যে কোনও জায়গায় পাওয়া যায়। 

অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল ডেভিড পেট্রিয়াস, যিনি সিআইএর পরিচালক হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন এবং এখন তিনি কে কেআর গ্লোবাল ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান। তিনি বলেন ‘আমি প্রাভা এর বীজ রাউন্ডের পর থেকে প্রতিটি তহবিল রাউন্ডে বিনিয়োগ করেছি, এবং আমি তাতে অভিভূত এবং গর্বিত, বজায় রেখেছি কোম্পানির নেতৃত্ব। প্রাভার অনন্য মডেল, যা প্রযুক্তি এবং স্বতন্ত্র স্বাস্থ্যসেবা সমাধানের সম্মিলন করেছে, মহামারি এবং অন্যান্য অনেক চিকিৎসা সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সহায়তা করতে ইতোমধ্যে কার্যকর এবং স্কেলযোগ্য প্রমাণিত হয়েছে এবং এটি বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবাগুলির ভবিষ্যতের জন্য স্পষ্টতই দুর্দান্ত প্রতিশ্রুতি দেয়।’

হাসান/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়