Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৪ জুন ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮ ||  ০১ জিলক্বদ ১৪৪২

বরিশালে নির্মাণ হবে আধুনিক সাইলো

কেএমএ হাসনাত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:১৩, ১১ মে ২০২১  
বরিশালে নির্মাণ হবে আধুনিক সাইলো

খাদ্য মজুতের সক্ষমতা বাড়াতে দেশের বিভিন্ন স্থানে স্টিলের সাইলো নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। বিশ্ব ব্যাংকের আর্থিক সহযোগিতায় খাদ্য অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন ‘মডার্ন ফুড স্টোরেজ ফ্যাসিলিটিজ প্রজেক্ট (এমএফএসপি)’ প্রকল্পের একটি প্যাকেজের আওতায় বরিশালে একটি চাল সংরক্ষণের সাইলো নির্মাণ করা হবে। এতে ব্যয় হবে ৩৩০ কোটি ৮৬ লাখ ১৫ হাজার ৮২২ টাকা।

প্রকল্পটি মোট ১ হাজার ৯১৯ কোটি ৯৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা (জিওবি ৩ কোটি ৩৫ লাখ ২৪ হাজার, প্রকল্প সাহায্য ১ হাজার ৮৭৬ কোটি ৬১ লাখ ৫১ হাজার ও উপকারভোগীর দেওয়া ৪০ কোটি টাকা) ব্যয়ে ২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২০ সালের জুন মেয়াদে বাস্তবায়নের জন্য ২০১৪ সালের ১১ মার্চ একনেক সভায় অনুমোদিত হয়।

সূত্র জানায়, আটটি আধুনিক স্টিল সাইলো এবং আইসিটি কম্পোনেন্টসহ আনুষঙ্গিক অন্যান্য কম্পোনেন্টের জন্য অতিরিক্ত অর্থায়নের প্রয়োজন হওয়ায় বিশ্ব ব্যাংকের ২০২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অতিরিক্ত অর্থায়ন করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে দ্বিতীয় সংশোধিত ডিপিপি মোট ৩ হাজার ৫৬৮ কোটি ৯৪ লাখ টাকা (জিওবি ৬৫ কোটি, প্রকল্প সাহায্য ৩ হাজার ৪৯৯ কোটি ৯৪ লাখ এবং উপকারভোগীর দেওয়া ৪ কোটি) ব্যয়ে ২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২৩ সালের অক্টোবর মেয়াদে বাস্তবায়নের জন্য ২০২০ সালের ১ সেপ্টেম্বর তারিখে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় অনুমোদিত হয়।

প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য—দুর্যোগকালীন এবং দুর্যোগ পরবর্তী সময়ে দেশে খাদ্য সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে খাদ্য মজুত ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য দেশের আটি কৌশলগত স্থানে স্টিলের সাইলো নির্মাণ। চট্টগাম, আশুগঞ্জ, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মধুপুর, ময়মনসিংহ, বরিশাল এবং মহেশ্বরপাশায় একটি করে সাইলো তৈরি করা হবে।

মোট ৫ লাখ ৩৫ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন ধারণক্ষমতার আটটি আধুনিক স্টিল সাইলো নির্মাণের উদ্দেশ্য হচ্ছে— বন্যা, ঘূর্ণিঝড় ইত্যাদি প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় খাদ্যশস্যের নিরাপদ মজুদ নিশ্চিতকরা। এছাড়া, সরকারি পর্যায়ে খাদ্য সংগ্রহ ও বিতরণ ব্যবস্থাপনায় অনলাইন ফুড স্টক অ্যান্ড মার্কেট মনিটরিং সিস্টেম প্রবর্তন, খাদ্যশস্যের গুণগত ও পুষ্টিমান বজায় রাখার লক্ষ্যে আধুনিক প্রযুক্তির অভিযোজন এবং সর্বোপরি খাদ্য ব্যবস্থাপনার উৎকর্ষ সাধনের লক্ষ্যে গবেষণালব্ধ ফল বাস্তবায়ন।

আটটি আধুনিক স্টিল সাইলো নির্মাণের জন্য দ্বিতীয় সংশোধিত ডিপিপিতে মোট ২ হাজার ৬৩৩ কোটি ৯৬ লাখ ৩৩ হাজার টাকা এবং কন্টিজেন্সি হিসেবে ৫০ কোটি ৯৭ লাখ টাকা বরাদ্দ আছে। ডিপিপির প্রকিউরমেন্ট প্ল‌্যানে প্রাক্কলন ব্যয় হিসেবে প্যাকেজ ডব্লিউ-২১ এ বরিশালে প্রস্তাবিত স্টিল সাইলো নির্মাণের জন্য মোট ৩৪০ কোটি ৮ লাখ ১৮ হাজার টাকা সংস্থান আছে। এছাড়া, অতিরিক্ত অর্থায়নের জন্য বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তির প্রজেক্ট পেপারে প্যাকেজ ডব্লিউ-২১ এর জন্য ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (৩৪০ কোটি টাকা) বরাদ্দ আছে।

প্রকল্পের ডিজাইন, সুপারভিশন কনসালট্যান্ট হিসেবে নিয়োজিত আছে গারসিও ফ্রান্স। পরামর্শক প্রতিষ্ঠান প্রাথমিকভাবে প্রণীত প্রাক্কলন পর্যালোচনা করে এই প্রকল্পের দাপ্তরিক প্রাক্কলন কমিটি এবং প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য দরপত্র আহ্বান করে। দরপত্রে দেশি-বিদেশি সাতটি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এর মধ্যে দরপত্রের বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি যৌথভাবে কনফিডেন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড এবং দ‌্য জিএসআই গ্রুপ এলএলসি প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য মনোনীত করে। সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের পর নির্মাতা সংস্থার সঙ্গে খাদ্য বিভাগের চুক্তি হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

ঢাকা/হাসনাত/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়