ঢাকা     শনিবার   ০২ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৮ ১৪২৯ ||  ০২ জিলহজ ১৪৪৩

মাঙ্কিপক্স: ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে না বাংলাদেশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২০, ২৪ মে ২০২২  
মাঙ্কিপক্স: ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে না বাংলাদেশ

মহামারি করোনা কারণে প্রায় ২ বছর পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ফ্লাইট পরিচালনায় বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। নতুন ভাইরাস মাঙ্কিপক্স ইস্যুতে এখনই কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পরিকল্পনা নেই। পৃথিবীর যেকোনো দেশ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের দ্বার খোলা থাকবে। তবে প্রত্যেককে যেতে হবে স্ক্রিনিংয়ের মধ্য দিয়ে।

বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

বেবিচক বলছে, করোনার কারণে দেশের এভিয়েশন ও ট্যুরিজম খাত অনেক বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক ট্রাভেল এজেন্সি, টিকিটিং এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর বন্ধ হয়েছে, চাকরি হারিয়ে বেকার হয়েছেন অনেকে। তাই এবার নতুন করে আতঙ্ক তৈরি করতে চায় না তারা। সেজন্য নিষেধাজ্ঞা না দিয়ে স্ক্রিনিংয়ের দিকে জোর দেওয়া হচ্ছে। 

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম. মফিদুর রহমান বলেন, আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। কোন দেশের সাথে ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিতে চাচ্ছি না। 

তিনি বলেন, কোনো দেশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিলে অন্যান্য দেশগুলোও এসব পর্যবেক্ষণ করে। অন্য দেশের যাত্রীরাও বাংলাদেশে আসতে অনীহা দেখাতে পারেন। পরিস্থিতি আইসোলেটেড হয়ে যেতে পারে। তাই আমরা নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছি না, তবে প্রত্যেকের ওপর নজরদারি চলবে।

বেবিচক সূত্র জানায়, মাঙ্কিপক্স ঠেকাতে স্ক্রিনিংয়ের দিকে জোর দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশে আসা প্রত্যেক যাত্রীকে একটি হেলথ ডিক্লারেশন ফরম দেওয়া হবে। সেখানে বাংলাদেশে আসা যাত্রীরা মাঙ্কিপক্স সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেবেন। সেসব তথ্য যাচাই-বাছাই করে যাত্রীকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে। এ ছাড়াও প্রতিটি বিমানবন্দরের ক্রু’দের বেবিচক ব্রিফ করবে। তারা প্লেনের ভেতরেই যাত্রীদের নজরদারি করবে। কারো মধ্যে মাঙ্কিপক্সের লক্ষণ বা উপসর্গ থাকলে তাকে আলাদা করে রাখবে। 

হেলথ ডিক্লারেশন ফরম কী?
হেলথ ডিক্লারেশন ফরমটি মূলত কোভিড-১৯ ও মাঙ্কিপক্স সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহের ফরম। এটি তৈরি করা হয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শে। হেলথ ডিক্লারেশন ফরমটি বাংলাদেশে আসা প্রতিটি যাত্রীকে প্লেনের ভেতরেই দেওয়া হবে। ফরমে কোভিড-১৯ ও টিকা সংক্রান্ত তথ্য থাকবে। এর সঙ্গে মাঙ্কিপক্স নিয়ে ৩টি প্রশ্ন থাকবে। 

ফরমে উল্লেখ থাকবে, আপনি মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত কিনা? আপনার মধ্যে মাঙ্কিপক্সের কোনো লক্ষণ-উপসর্গ আছে কিনা (লক্ষণগুলো লেখা থাকবে)? মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হয়েছে গত ১৫ দিনে এমন কোনো দেশে ভ্রমণ করেছেন কিনা?

ঢাকা/হাসান/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়