ঢাকা     শুক্রবার   ০১ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

সচিবালয়ে প্রথম কর্মদিবসে উপস্থিতি কম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৪০, ২৪ এপ্রিল ২০২৩  
সচিবালয়ে প্রথম কর্মদিবসে উপস্থিতি কম

প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয়েও ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতির হার কম। ঈদের ছুটি শেষে সোমবার (২৪ এপ্রিল) থেকে খুলেছে সরকারি অফিস।

কিন্তু ঈদ আমেজ এখনও কাটেনি। প্রথম কর্মদিবস ঈদের আমেজ বিরাজ করছে। ঈদের শুভেচ্ছা ও কৌশল বিনিময়ের পর অনেককে গল্প করতে দেখা যায়।

আজ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, তথ্য অধিদপ্তর, ভূমি মন্ত্রণালয়সহ কয়েকটি মন্ত্রণালয় ঘুরে দেখা যায়, কোনো কোনো মন্ত্রণালয়ের পাঁচজন কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনজন অফিস করছেন। অনেক কক্ষে চেয়ার, টেবিল ফাঁকা পড়ে রয়েছে।

প্রথম কর্মদিবসে সচিবালয়ে ঈদের আমেজ বিরাজ করছে। সকালে অফিসে এসে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একে অপরের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। কোলাকুলি করছেন একে অপরের সঙ্গে।

এছাড়া সচিবালয়ে গাড়ি রাখার স্থানগুলোও অন্যান্য দিনের তুলনায় ফাঁকা। চার নম্বর ভবনের দক্ষিণ, ছয় নম্বর ভবনের উত্তর পাশের পার্কিংয়ের স্থানসহ বিভিন্ন জায়গা ফাঁকা ছিল। সচিবালয়ের করিডোরগুলো, লিফটগুলোর সামনে ভিড় ছিল না। আর সচিবালয়ে দর্শনার্থী কক্ষটিও ছিল ফাঁকা আর গাড়ি রাখার স্থানগুলো অন্যান্য সময়ের মতো গাড়িতে ভরা ছিল না।

বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজ অফিস খুলেছে, তবে অনেকেই তিন দিন ঐচ্ছিক ছুটি নিয়ে টানা সাত দিনের ছুটি উপভোগ করছেন। ঈদের পরে প্রথম কর্মদিবস মোটামুটি এমনই হয়ে থাকে। খুব একটা কাজ হয় না, আবার অনেকেই ছুটিতে থাকেন। যারা অফিসে এসেছেন তারাও গল্প করে সময় কাটাচ্ছেন। তাই আগামী সপ্তাহ থেকে সচিবালয়ের অফিস পুরোদমে শুরু হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রীর জজনসংযোগ কর্মকর্তা মো. হায়দার আলী বলেন, প্রায় অর্ধেক কর্মকর্তা-কর্মচারী এখনও আসেনি। যারা দূরে গেছেন তারা কিছুক্ষণের মধ্যে চলে আসবেন। অনেক কর্মকর্তা ছুটিতে আছেন।  ঈদের ছুটির সঙ্গে অনেকে বাড়তি ছুটি নেওয়ায় অফিস সেভাবে জমে উঠেনি। আশা করছি, দুই/একদিনের মধ্যে অফিসে কর্মতৎপরতা বাড়বে।

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালযের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বলেন, অফিস আওয়ারে আগেই আসছি। মাস শেষ বেতন, ভাতা দিতে হবে তাই চলে এসেছি। আমাদের দপ্তরে পাঁচজন এর মধ্যে একজন ছুটিতে আছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, ঈদের ছুটি বাড়িতে যাইনি। ঈদ এখানে ভালো কেটেছে। আমরা যে কক্ষে বসি সেখানে চারজনের মধ্যে এসেছে দুইজন। অন্য কলিগরা বাড়ি গেছে, ছুটিতে আমরা এখানেই কাজ করছি।

এই সপ্তাহের বাকি কর্মদিবস এভাবেই উপস্থিতি কম থাকবে বলে জানান তিনি।

/এএএম/এসবি/

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়