ঢাকা     মঙ্গলবার   ০৫ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

ইউটিউব থেকে মঞ্চ, চুল নিয়ে বিদ্রুপ, গায়িকা থেকে নায়িকা জেফার

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:২০, ২৫ আগস্ট ২০২৩   আপডেট: ১০:২২, ২৫ আগস্ট ২০২৩
ইউটিউব থেকে মঞ্চ, চুল নিয়ে বিদ্রুপ, গায়িকা থেকে নায়িকা জেফার

তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জেফার রহমান। ২০১১ সালে বিখ্যাত সব ইংরেজি গান কাভার করে ইউটিউবে প্রকাশ করে সাড়া ফেলেন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম ইউটিউব বেইজড মিউজিশিয়ান জেফার। সময়ের সঙ্গে তার গায়কির জাদু স্পর্শ করে সংগীতপ্রেমীদের হৃদয়। ধীরে ধীরে পৌঁছে যান জনপ্রিয়তার শিখরে।

পরবর্তীতে ইউটিউব থেকে স্টেজ শোয়ে পা রাখেন জেফার। স্বকীয় গায়কি আর ফ্যাশন স্টেটমেন্ট দিয়ে সহজেই সবার থেকে আলাদা হয়েছেন তিনি। নেমেসিস, ওয়ারফেইজ, অর্থহীন-এর মতো দেশের বড় বড় ব্যান্ডগুলোর সঙ্গে অসংখ্য স্টেজ শো করেছেন জেফার।

 

মৌলিক ইংরেজি গান নিয়ে জেফারের একক অ্যালবাম রয়েছে। রক ও পপ ঘরানার ইংরেজি গান গাওয়ার জন্য জেফার আলাদা পরিচিত রয়েছে। ২০১৭ সালে স্টার সিনেপ্লেক্সের সহযোগিতায় প্রকাশিত হয় জেফারের প্রথম একক অ্যালবাম ‘আনকেইজড’। ৯টি মৌলিক ইংরেজি গান নিয়ে সাজানো হয় অ্যালবামটি।

 

একই বছর বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্র ‘সেনাপতি’-তে ইংরেজি ভাষার গানে কণ্ঠ দেন জেফার। ‘পাঠশালা’ সিনেমায় জেফার গেয়েছেন ‘তুই ভালো থাকিস’ শিরোনামের গান। তা ছাড়া ‘যাযাবর’ সিনেমায় গেয়েছেন রোমান্টিক ঘরানার গান ‘প্রিয়তমা’। ওয়েব সিরিজে তার গাওয়া ‘মাকড়শা’ গানটি বেশ সাড়া ফেলেছিল।

 

৬টি ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয় করা ‘ন ডরাই’ সিনেমায় ‘হারবো না’ শিরোনামের আলোচিত গানটি জেফারের গাওয়া। তা ছাড়া এ সিনেমার এক্সিকিউটিভ প্রোডিউসারও ছিলেন তিনি।

 

গান ছাড়াও জেফারের সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে তার চুল। এক সময় এই চুলের স্টাইল নিয়ে বিদ্রুপের শিকার হলেও এখন সেটাই আবেদনময়ী ফ্যাশন। ক্যাজুয়ালি ওয়েস্টার্ন পোশাক বেশি পরে থাকেন এই গায়িকা।

 

একাধিক চলচ্চিত্র ও ওয়েব সিরিজে বাংলা গান গেয়েছেন জেফার। পাশাপাশি র‌্যাম্পে হেঁটে নজর কাড়েন। সম্প্রতি গায়িকা থেকে নায়িকা হয়ে আলোচনায় উঠে এসেছেন তিনি। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘মনোগামী’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখবেন জেফার। সিনেমাটিতে তার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী।

 

এ বিষয়ে জেফার রহমান বলেন— ‘‘সংগীতশিল্পী হিসেবে আগেও পর্দায় হাজির হয়েছি। কিন্তু ‘মনোগামী’-এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো অভিনেতা হিসেবে পর্দায় আসব। বিষয়টি আমার জন্য অনেক আনন্দের, একই সঙ্গে চ্যালেঞ্জিংও। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সিনেমায় অভিনয় করতে পারা ও সহ-অভিনেতা হিসেবে চঞ্চল চৌধুরীকে পাওয়া আমার জন্য কিছুটা চাপের, তবে ভীষণ রোমাঞ্চকরও বটে।’’

ঢাকা/শান্ত

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়